• শিরোনাম

    উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের রোল মডেল- জেলা প্রশাসক

    জেলায় নানা আয়োজনে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৮ মার্চ ২০১৯ | ১:৫৩ পূর্বাহ্ণ

    জেলায় নানা আয়োজনে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

    কক্সবাজারে নানা আয়োজনে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন হয়েছে। জেলাব্যাপী সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠন দিবসটি যথাযোগ্য মর্যদায় পালন করেছে।
    জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, বধ্যভূমিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী, বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ, ডিসপ্লে, ্প্রীতি ক্রীড়ানুষ্ঠান, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বর্ধনা, সন্ধ্যায় আলোচনা সভা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে শিল্পকলা একাডেমি, শিশু একাডেমি, সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ও ঝিনুকমালা খেলাঘর আসর।
    কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে জেলাবাসীর উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে দেশ এখন আত্মনির্ভরশীল। দেশের ৯০ ভাগ অর্থায়নে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। আগামিতে বাইরের অর্থনৈতিক ছাড়াই দেশ এগিয়ে যাবে। দেশের সর্বক্ষেত্রে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন বিশে^র রোল মডেল।আর দেশের প্রতিটি উন্নয়নের নৈপথ্যে উজ্জীবিত করেছে মুক্তিযুদ্ধের শক্তির চেতনা।
    তিনি বলেন, কক্সবাজারে পর্যটন উন্নয়ন, মহেশখালি, মাতারবাড়ি, সোনাদিয়া, টেকনাফে নানা রুপরেখায় উন্নয়ন হচেছ। সর্বোপরি কক্সবাজার হচ্ছে দেশের আরেক উন্নয়ন মডেল। দেশের প্রতিটি উন্নয়নে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের শক্তির চেতনা।
    সন্ধ্যায় পাবলিক লাইব্রেরির শহীদ দৌলত ময়দানে জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী, সাবেক এমপি খোরশেদ আরা হক, মুক্তিযোদ্ধা মো: শাহজাহান, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সোমেশ^ চক্রবর্তী, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, রাজনৈতিক নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল।
    কক্সবাজার সরকারি কলেজ
    কক্সবাজার সরকারি কলেজে যথাযোগ্য মর্যাদায় উদ্যাপিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস- ২০১৯। ২৬ মার্চ ২০১৯ তারিখ মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় রাষ্ট্রীয় নির্দেশনা অনুযায়ী জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এর পরপরই কলেজ শহীদ মিনারে কলেজ শিক্ষক পরিষদ, বিএনসিসি সেনা-নৌ, রোভার স্কাউট, রেড ক্রিসেন্ট, ছাত্রী হোস্টেল, বিভিন্ন বিভাগ ও ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয় এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভিন্ন ইভেন্টে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
    সকাল ১০ টায় কলেজ মিলনায়তনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক বাঁধন কুমার ঘোষের সঞ্চালনা ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মোঃ গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে পবিত্র ধর্মগ্রন্থসমূহ হতে পাঠের মাধ্যমে আলোচনা সভা শুরু হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এ.কে.এম ফজলুল করিম চৌধুরী। প্রধান অতিথি স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে সামনে রেখে গণতন্ত্রের মানসকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান। তিনি জাতীয় কার্যক্রমের বিভিন্ন সেক্টরে সকলকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মিাণের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
    এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর পার্থ সারথি সোম এবং শিক্ষক পরিষদ সম্পাদক রনজিত বিশ^াস। স্বাগত বক্তব্য রাখেন গণিত বিভাগের সহকারি অধ্যাপক আহমদ কবির। শিক্ষকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ নুরুল আলম, ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর হোসাইন আহমেদ আরিফ ইলাহী, ইতিহাস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অরুন বিকাশ বড়–য়া, বাংলা বিভাগের সহকারি অধ্যাপক মোহাম্মদ মুজিবুল হক চৌধুরী, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারি অধ্যাপক শেখ দিদারুল আলম, ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক নুরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রভাষক মোহাম্মদ হাসানুল ফরহাদ। এছাড়াও ছাত্রদের পক্ষ থেকেও বক্তব্য রাখা হয়।
    এরপর মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত প্রতিযোগিতার বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ। আলোচনা সভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযুদ্ধে শাহাদাত বরণকারী বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয় এবং মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এদিনের কর্মসূচির সমাপ্তি হয়।
    কক্সবাজার সিটি কলেজ
    ২৫ মার্চ কালরাত্রিতে শহীদ মিনারে আলোক প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে দু’দিন ব্যাপী কর্মসূচীতে কক্সবাজার সিটি কলেজে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়েছে। পরদিন ২৬ মার্চ সকাল ৮টায় সিটি কলেজ ক্যাম্পাসে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।
    এরপর উপাধ্যক্ষ আবু মোহাম্মদ জাফর সাদেকের নেতৃত্বে শিক্ষক-কর্মচারী-ছাত্রছাত্রীরা শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। সকাল ৯টায় উপাধ্যক্ষ আবু মোহাম্মদ জাফর সাদেকের সভাপতিত্বে মহান স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভা ও পুরস্কারবিতরণী অনুষ্ঠানে শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক তসলিমা রশিদ।
    মোঃআনচারুল্লাহর কোরান তেলওয়াত, সোমাদাশের গীতা পাঠ ও মালাচেং রাখাইনের ত্রিপিটক পাঠের পর বক্তব্য রাখেন, ছাত্রছাত্রীদের পক্ষে তামজিদ আহমেদ,ফারিয়া বিনতে রশিদ,মিজানুর রহমান। কর্মচারীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন আব্দুল গফুর,শিক্ষকদের পক্ষে অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম,অধ্যাপক আকতার উদ্দিন চৌধুরী, অধ্যাপক আশফাকুর রহমান,অধ্যাপক শাহানুর আকতার,অধ্যাপক গোপাল দাশ।
    অনুষ্ঠান শেষে নির্ধারিত বক্তব্য প্রতিযোগিতা ও আন্তঃবিভাগীয় ক্যারাম প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়।
    দিনের সবচেয?ে আকর্ষণীয় স্বাধীনতা দিবসের আন্তঃবিভাগীয় ফুটবল প্রতিযোগিতায় রাস্ট্রবিজ্ঞান বিভাগকে ২/১ গোলে হারিয়ে ব্যবস্থাপনা বিভাগ চ্যাম্পিয়ন হয়।
    অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন,অধ্যাপক রোমেনা আকতার। সহযোগিতায় ছিলেন,অধ্যাপক মেঘলা দেব, অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল রাহাত, অধ্যাপক জমির হোসেন অধ্যাপক বিকাশ কান্তি দে অধ্যাপক সাইফুদ্দিন আজাদ,অধ্যাপক জোস্না ইয়াসমিন অধ্যাপক পবন পাল অধ্যাপক মুজাহিদুল হক, অধ্যাপক সুরাইয়া সুলতানা অধ্যাপক আউমে অধ্যাপক আজম উদ্দিন, আইনেং ও রহমতুল্লাহ।
    শিশু একাডেমি
    বাংলাদেশ শিশু একাডেমি কক্সবাজার জেলা শাখা কর্তৃক বিস্তারিত কর্মসূচীর মাধ্যমে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস/২০১৯ উদ্যাপন করা হয়। এ উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি কক্সবাজার জেলা শাখার উদ্যোগে অনুর্দ্ধ ১৬ বছরের শিশুদের জন্য ২৪ মার্চ বিকাল ৩ টায় শিশু একাডেমি কার্যালয়ে সংগীত প্রতিযোগিতা ও প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।
    ২৬ মার্চ শহীদ দৌলত ময়দানে জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভা শেষে শিশু একাডেমি আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে সনদ ও পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল ও বিশেষ অতিথি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এড: সিরাজুল মোস্তফা, অধ্যক্ষ কক্সবাজার সরকারি কলেজ ফজলুল করিম চৌধুরী, সাবেক সাংসদ খোরশেদ আরা হক, জেলা জাসদ সভাপতি নাইমুল হক টুটুল,মুক্তিযোদ্ধা কামাল চৌধুরী, সাবেক কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ মো: শাহ্জাহান এবং জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আহসানুল হক প্রমূখ। সবশেষে শিশু একাডেমির শিশু শিল্পীদের অংশগ্রহনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।
    জেলা আইনজীবী সমিতি
    কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস এবং ৪৯ তম মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়েছে। দিবসের কর্মসূচীর মধ্যে ছিল ২৫ মার্চ দিবাগত রাত ৯.০০ ঘটিকায় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিকী ব্ল্যাকআউট, রাত ৯.০১ ঘটিকা হতে ৯.০৩ ঘটিকা পর্যন্ত মোমবাতি প্রজ্জ্বলন। ২৬ মার্চ সূর্যোদয়ের সাথে সাথে আইনজীবী সমিতি ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সূর্যোদয়ের অব্যবহিত পর মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল ১১.০০ ঘটিকায় অত্র সমিতির মিলনায়তনে আলোচনা সভা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে, দেশ ও জাতির কল্যাণে বিশেষ মোনাজাত।
    আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি এডভোকেট আ.জ.ম মঈন উদ্দীন। কোরআন তেলওয়াত ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সমিতির পেশ ইমাম মোঃ নুরুল হক।
    আলোচনা সভায় অংশ নেন সর্বজনাব এডভোকেট দিলীপ কুমার দাশ, এডভোকেট মোহাম্মদ সুলতানুল আলম, এডভোকেট মমতাজ আহমদ, এডভোকেট মোঃ আব্বাছ উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট এ.কে.এম আতাউল হক, এডভোকেট ফরিদুল আলম, এডভোকেট মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ, এডভোকেট আবদুল শুক্কুর, এডভোকেট মঈনুল হোসেন চৌধুরী, এডভোকেট মোহাম্মদ রিদুয়ান, এডভোকেট মীর হারুনুল এরশাদ প্রমুখ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- এডভোকেট নুরুল মোর্শেদ আমিন, এডভোকেট আহমদ কবির, এডভোকেট এম.এ রশিদ, এডভোকেট গোলাম মোস্তফা, এডভোকেট আবুল হোসেন, এডভোকেট মোহাম্মদ শাহীনুল হক শাহীন, এডভোকেট বিবেক রঞ্জন রুদ্র, এডভোকেট মোহাম্মদ হারেছ, এডভোকেট সাকী-এ-কাউছার, এডভোকেট মোঃ শামসুল আলম, এডভোকেট মোক্তার আহমদ, এডভোকেট রশিদুল আলম, এডভোকেট মোহাম্মদ সরওয়ার, এডভোকেট আলী হোসেন, এডভোকেট উজ্জল কান্তি দাশ, এডভোকেট আবদুল খালেক, এডভোকেট মোহাম্মদ ফয়সাল, এডভোকেট মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, এডভোকেট আনছারুল করিম, এডভোকেট ফয়েজুল নোমান, এডভোকেট রহমত উল্লাহ, এডভোকেট মোহাম্মদ হারুন, এডভোকেট খালেক নেওয়াজ, এডভোকেট এ.টি.এম শেফাউল হক, এডভোকেট এরশাদ উল্লাহ, এডভোকেট মোঃ নজরুল ইসলাম প্রমুখ।
    ইসলামিক ফাউন্ডেশন
    ‘‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলাদেশ- আজ উন্নয়নের রোল মডেল, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও জাতীয় ঐক্যের অনন্য প্রতিক।’’ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস,২০১৯ উপলক্ষে ২৬ মার্চ ২০১৯ তারিখে ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজার জেলা কার্যালয় আয়োজিত খতমে কোরআন ও মিলাদ মাহফিল শেষে ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন ।
    ইসলামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজারের উপ-পরিচালক জনাব ফাহমিদা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহকারি পরিচালক জনাব সরওয়ার আকবর। আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামালীগের জেলা সভাপতি জনাব নুরুল আলম সরকার, জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি জনাব সিরাজুল ্িসলাম ছিদ্দিকী, ফিল্ড অফিসার জনাব ফজল করিম। আলোচনা সভার আগে সকাল ৮টায় জেলার বিভিন্ন মসজিদের ২০ জন হাফেজে কুরআনের মাধ্যমে খতমে কুরআন, মিলাদ ও দোয়া মাফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । শহীদদের রূহের মাগফিরাত ও দেশের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করা হয় ।
    পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভাসিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি
    ৪৮তম মহান স্বাধীনতা দিবসে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের বিনম্র শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেছেন পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। আজ ২৬ মার্চ, ২০১৯ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ নূরল আনোয়ার এর নেতৃত্বে চট্টগ্রাম শহীদ মিনারের মূল বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। সকাল ৬:৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে দিবসটির সূচনা করা হয়। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীনবৃন্দ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, প্রক্টর, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহ শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
    শহর জামায়াত
    ২৬ শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করে জামায়াতে ইসলামী কক্সবাজার শহর। ২৬ মার্চ মঙ্গলবার কক্সবাজার শহর জামায়াতের আমির আলহাজ¦ সাইদুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায়, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা জামায়াতের আমির আলহাজ¦ মুস্তাফিজুর রহমান, উপস্থিত ছিলেন এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারী অধ্যাপক আবু তাহের চৌধুরীসহ শহর জামায়াত নেতৃবৃন্দ।
    আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি বলেন, স্বাধীনতার ৪৮ বছর পার হলেও বাংলাদেশের মানুষ তার মৌলিক অধিকার ফিরে পায়নি। স্বাধীন বাংলাদেশের যে ঐক্যের চেতনাকে ধারণ করে পথ চলার কথা ছিল, স্বার্থান্বেষী মহলের কারণে তা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। অনৈক্য ছড়িয়ে বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার ষড়যন্ত্র চলছে। আওয়ামী লীগ আজ স্বাধীন বাংলাদেশে একাত্তরের পাকিস্তানী স্বৈরাচারের ভূমিকায়ই অবতীর্ণ হয়েছে। পাকিস্তানী অপশাসকদের মতই একইভাবে স্বৈরাচারী কায়দায় বর্তমান অবৈধ সরকার অস্ত্রের মুখে জনগণের মৌলিক অধিকার কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। অপশাসনের কবলে দেশের সার্বভৌমত্বই আজ হুমকির মুখে পড়েছে। যে চেতনাকে বুকে ধারণ করে একাত্তরে লক্ষ লক্ষ মানুষ শহীদ হয়েছিলেন, দেশের জনগণ সেই চেতনা ধারণ করলেও রাষ্ট্র তা থেকে যোজন যোজন মাইল দূরে অবস্থান করছে। এই অবস্থায় বাংলাদেশের জনগণকে আরো সোচ্চার হতে হবে। তাই আজ গনতন্ত্র ও মানুষের মৌলিক অধিকার পুনরুদ্ধারই হোক স্বাধীনতা দিবসের মূল আঙ্গীকার। আলোচনা সভা শেষে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
    জেলা ছাত্রদল
    ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে বিকাল ৩.০টায় কক্সবাজার জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদাত হোসেন রিপন এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ফাহিমুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রী কমিটির মৎস্যজীবি বিষয়ক সম্পাদক সাবেক সাংসদ জননেতা জনাব লুৎফুর রহমান কাজল, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ জনাব শাহজাহান চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জনাবা শামীম আরা স্বপ্না, পৌর বিএনপির সভাপতি জনাব রফিকুল হুদা,
    উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে গণতন্ত্র ছাড়া স্বাধীনতা অর্থহীন বলে মন্তব্য করেছেন কক্সবাজার সদর রামু আসনের সাবেক সাংসদ ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা জনাব লুৎফুর রহমান কাজল, তিনি বলেন বর্তমানে দেশে কোন আইনের শাসন নেই, জনগণের মতামতের কোন গুরুত্ব নেই তাই এখন ভোট কেন্দ্রে ভোটাররা যায় না। ৩০ ডিসেম্বর নৈশকালীন ভূয়া ভোটের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের কবর রচনা করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শুধু স্বাধীনতা ঘোষনা দিয়ে বসে থাকেন নি। তিনি অস্ত্র হাতে সম্মুখ যুদ্ধে সেক্টর কমান্ডার হিসেবে নেতৃত্ব দিয়েই এদেশ স্বাধীন করেছে। এঅবস্থায় শহীদ রাষ্টপতি জিয়াউর রহমানের মত সাহসী রাষ্ট্র নায়কের খুবই প্রয়োজন। শহীদ জিয়া প্রবর্তিত গণতন্ত্র ও মানুষের মৌলিক অধিকার পুনরায় প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে দেশের সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলনের মাধ্যমে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি ও অবৈধ জালিম সরকারের পতন ঘটিয়ে একটি সুষ্টু ধারার গনতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠার পথকে সুগম করতে সবাইকে প্রস্তুত থাকার আহবান করেন।
    প্রধান আলোচক জনাব শাহজাহান চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে স্বাধীনতা ঘোষনার মূল ইতিহাস তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের ভূমিকার পর্যালোচনা করেন।
    আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি জনাব আবুল কাসেম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারণ সম্পাদক এড. মো: ইউনুছ, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আমির আলী, জেলা বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাশেদুল হক রাসেল, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাবেক সভাপতি সরওয়ার রোমন, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম সম্পাদক আবছার কামাল, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার জসিম উদ্দিন, কক্সবাজার সরকারী কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইদু সিকদার, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ছাত্রদলের সভাপতি রেজাউল হক, কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আবু বক্কর ছিদ্দিক, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হুদা শাহেদ, যুগ্ম সম্পাদক মো: রুবেল মিয়া,
    উপস্থিত ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম সম্পাদক হাজী আব্দুর রহিম, টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুল করিম মালকিন, জেলা যুবদলের যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি মো: মুরাদ, শহর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন, জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মোজাম্মেল হক, জাহেদুল হক, ঈদগাও ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি সাদেকুর রহমান সোহাগ, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন সাইদী, কক্সবাজার সদর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি কাউসারুল হাসান সাজ্জাদ, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শাখা, আমানুল হক শামীম, শহর ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান সরওয়ার টিপু, সদর ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক এহসানুল করিম, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বাবলু, ওমর ফারুক, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আশেক মোস্তফা রিয়াজ, প্রচার সম্পাদক সাহাব উদ্দিন,
    উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদল নেতা রেজাউল হক, রহিম উল্লাহ খান রানা, আবছার কামাল, জানে আলম চৌধুরী জানিব, কায়সার মিয়া বাপ্পি, মোস্তফা কামাল রিফাত, সাইদ আনোয়ার, রবিউল আলম, জাফর আলম, বিজয়, বাবু, তৌকি, ইমরান, মো: রায়হান, রবিউল আলম ফাহিম, কামাল উদ্দিন, মো: তাহিম সহ আরও অসংখ্য ছাত্রদল নেতা উপস্থিত ছিলেন।
    টেকনাফ
    টেকনাফ অফিস জানান
    টেকনাফে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬শে মার্চ) সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সুচনা ও শহীদদের স্বরনে পূষ্পস্তবক অর্পন করা হয় এবং সকল সরকারি-বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ৮ টায় টেকনাফ উপজেলা আদর্শ কমপ্লেক্স বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে কোরআন তেলাওয়াত, আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, পুলিশ, আনসার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে কুচকাওয়াজ ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ভিত্তিক নাটক মঞ্চস্থ করা হয়। এর পূর্বে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক কুচকাওয়াজের সালাম গ্রহন করেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসান ও টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ। এরপরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃক শরীর চর্চা ও কুজকাওয়াজ প্রদর্শন করা হয়। এতে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী, টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, টেকনাফ এজাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়, বায়তুশ শরফ রিয়াদুল জন্নাহ মাদ্রাসা, টেকনাফ সরকারি বার্মিজ প্রাথমিক বিদ্যালয়, মায়মুনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, টেকনাফ সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়, টেকনাফ আদর্শ কমপ্লেক্স, বর্ডার গার্ড স্কুলসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অংশ গ্রহন করেন। কুচকাওয়াজ শেষে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক ও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পৃথকভাবে ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা জ্ঞাপন করা হয়েছে।
    পরে সকাল ১১ টায় সকাল মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসানের সভাপতিত্বে ও একাডেমিক সুপার ভাইজার নুরুল আবছারের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নুরুল বশর, মুক্তিযুদ্ধাকালীন কমান্ডার মোঃ আয়ুব বাঙ্গালী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জহির আহমদ। সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন টেকনাফ উপজেলা সহকারি কমিশনা (ভূমি) প্রণয় চাকমা। আলোচনা সভাশেষে প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারী উত্তীর্ণ সকলের হাতে পুরষ্কার পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া বিকালে উপজেলা কমপ্লেক্স আদর্শ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা কমপ্লেক্স বনাম পৌরসভা একাদশের মধ্যে ফুটবল ও ভলিবল প্রতিযোগীতা শেষে পুরস্কার বিতরন করা হয়। সন্ধায় শহীদ মিনারে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দিবসের সমাপ্তি হয়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ