• শিরোনাম

    লবণ চাষ ও আয়োডিনযুক্তকরন শীর্ষক কর্মশালায় শিল্পমন্ত্রী

    লবণ উৎপাদনে দেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ, লবণ আমদানীর প্রয়োজন নেই

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৫ জুলাই ২০১৯ | ১১:৪৯ অপরাহ্ণ

    লবণ উৎপাদনে দেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ, লবণ আমদানীর প্রয়োজন নেই

    দেশে লবণের কোন ঘাটতি নাই জানিয়ে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি বলেছেন, এ মুহুর্তে লবণ আমদানির কোন প্রয়োজন নাই। দেশে লবণ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন এবং আয়োডিন ঘাটতি পূরণের ক্ষেত্রে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। লবণচাষিদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং সরকারের সহায়তায় লবণ উৎপাদনে এবছর স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ।
    বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) এর আয়োজনে ‘লবণ চাষ ও আয়োডিনযুক্তকরণঃ সার্বজনীন আয়োডিনযুক্ত লবণ’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শিল্পমন্ত্রী।
    কক্সবাজার শহরের কলাতলীর তারকামানের হোটেলের কনফারেন্স হলে শুক্রবার (৫ জুলাই) অনুষ্ঠিত সভায় শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এমপি বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থ অর্থবছরে লবণের চাহিদা ১৬.৫৭ লক্ষ মেট্রিক টন এবং উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ১৮ লক্ষ মেট্রিক টন। উৎপাদন হয়েছে ১৮.২৪ লক্ষ মেট্রিক টন। চাহিদা ও লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি লবণ উৎপাদন হওয়ায় বর্তমানে দেশে লবণের কোন ঘাটতি নেই। তাই অমাদনির কোন প্রয়োজন নাই। তিনি বলেন, এই সরকার লবণ শিল্পবান্ধব সরকার। প্রান্তিক চাষিদের কথা মাথায় রেখে নীতিমালা প্রনয়ন করা হবে। বাংলাদেশ থেকে লবণ রপ্তানির সময় এসেছে। সরকারকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে কোন চক্রকে আমদানি করতে দেয়া হবেনা।
    বিসিক চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোশতাক হাসান এনডিসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি শিল্পপ্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি বলেন, আমদানি নির্ভরশীল না হয়ে দেশে গুণগত মানসম্পন্ন উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতায় বিসিকের মাধ্যমে নানামুখী কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। ইউনিসেফের সহায়তায় লবণ চাষের নতুন প্রযুক্তি পাইলটিং কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে।
    তিনি বলেন,
    বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, কক্সবাজার-৩ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের সংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, ইউনিসেফ বাংলাদেশের পুষ্টি বিভাগের প্রধান পিয়ালী মুস্তাফী, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা।
    অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে বিসিক চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোশতাক হাসান এনডিসি বলেন, ষাটের দশক থেকে বিসিক লবণ উৎপাদনের সাথে জড়িত রয়েছে। এ বছর ১৮.২৪ লক্ষ মেট্রিক টন এবং গত বছরের উদ্বৃত্ত ১.৬০ লক্ষ মেট্রিক টনসহ মোট ১৯.৮৪ মেট্রিক টন। বর্তমানে আমাদের লবণ মাঠ, লবণ মিল এবং পরিবহন চ্যানেল মিলিয়ে ১২ লক্ষ মেট্রিক টন মজুদ রয়েছে। আধুনিক প্রযুক্তিতে মানসম্পন্ন লবণ উৎপাদন হচ্ছে। ফলে এ বছর লবণ আমদানি প্রয়োজন হবেনা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিসিক এর পরিচালক (সিআইডিডি প্রকল্প) মোঃ আতাউর রহমান সিদ্দিকী। ‘লবণ চাষ ও আয়োডিনযুক্তকরণঃ সার্বজনীন আয়োডিনযুক্ত লবণ’ বিষয়ে মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশনে তথ্য উপাত্ত তুলে ধরেন ইউনিসেফ এর নিউট্রিশন অফিসার ডা. আইরিন আখতার চৌধুরী।
    অনুষ্ঠানে সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য কানিজ ফাতেমা আহমেদ, কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সরওয়ার কামাল, বিসিক কক্সবাজারের উপমহাব্যবস্থাপক সৈয়দ আহামদ, বিসিকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা প্রতিনিধি এবং লবণ মিল মালিক, চাষিরা উপস্থিত ছিলেন। যৌথ সঞ্চালনায় ছিলেন মোঃ ইদ্রিস আলী ও বেতারের সংবাদ পাঠিকা রোজিনা আকতার।
    শিল্পমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে লবণ আমদানি বন্ধের দাবি তুলে কথা বলেন- চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, ইসলামপুর লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি শামসুল আলম আজাদ, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও লবণ চাষী সমিতির সভাপতি শফিক মিয়া, বাংলাদেশে লবণ চাষী কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কায়ছার ইদ্রিস, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও লবণ মহাল কমিটির সদস্য রহিম উদ্দিন, বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি নুরুল কবির, লবণ মিল মালিক সমিতির নেতা রঈস উদ্দিন, ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিল মালিক মাস্টার আবদুল কাদের।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ