• শিরোনাম

    আইএস-অনাথদের নরওয়েতে স্বাগত জানিয়ে বিতর্কে প্রধানমন্ত্রী

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ২৪ এপ্রিল ২০১৯ | ৫:৪৫ অপরাহ্ণ

    আইএস-অনাথদের নরওয়েতে স্বাগত জানিয়ে বিতর্কে প্রধানমন্ত্রী

    নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী এরনা সোলবার্গ বলেছেন, তাঁর সরকার মধ্যপ্রাচ্যে আইএস-এর হয়ে কাজ করে মৃত্যুবরণ করেছে এমন নরওয়ে নাগরিকের অনাথ শিশু সন্তানদের ফিরিয়ে আনা হবে।

    নরওয়ের জাতীয় সম্প্রচার কেন্দ্র এনআরকে-কে এরনা সোলবার্গ বলেন, ‘আমরা দেশে আইএস যোদ্ধাদের ফিরিয়ে আনতে চাই না, তাদের স্ত্রীদেরও নিয়ে আসতে চাই না, কিন্তু আমরা তাদের অনাথ শিশু সন্তানদের ফিরিয়ে আনার পথ তৈরির চেষ্টা করব।’

    এই ঘোষণা দিয়ে বিতর্কের ভেতর পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী এরনা। ঘোষণার বিরোধিতা করেছেন দেশটির প্রগ্রেস পার্টির এমপি ও সাবেক আইনমন্ত্রী পার উইলি অ্যামান্ডসেনসহ অনেকে। উইলি অ্যামান্ডসেন বলেন, ‘মানুষ ব্যথিত। এর অর্থ হলো, আমরা বাড়িতে এমন বাচ্চাদের ফিরিয়ে আনতে পারি যারা সন্ত্রাসী প্রশিক্ষণ পেয়েছে। এটি মারাত্মক সমস্যা সৃষ্টি করবে।’

    তবে, দেশটির লিবারেল ও কনজারভেটিভ জোট প্রধানমন্ত্রীর এ পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছে।লিবারেল পার্টির পার্লামেন্টারি ভাইস প্রেসিডেন্ট আবিদ রাজা বলেছেন, প্রস্তাবিত ব্যবস্থাই যথেষ্ট নয়।

    তিনি বলেন, ‘মৃত আইএস সদস্যদের ৪০টি শিশু সন্তানকে খুঁজে বের করতে হবে। আমি অন্য শিশুদের জন্যও একটি তহবিলের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো। একেবারেই অনাথ এবং মা আছে এমন শিশুদের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। কিন্তু এখনো আমি বিশ্বাস করি, সব শিশুকে সমানভাবে দেখা উচিত।

    নরওয়ের পুলিশ সিকিউরিটি সার্ভিস (পিএসটি) এর ধারণা অনুযায়ী নরওয়ের অন্তত ৩০ জিহাদি শিশু এবং ৪০ আইএস সদস্যের শিশু সন্তান সিরিয়ায় আটক রয়েছে।

    তবে এরনা সোলবার্গ-এর মতো রক্ষণশীল প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা চমকে দিয়েছে সেদেশের নাগরিকদের। কেননা, এর আগে মধ্যপ্রাচ্যের শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনকে সেদেশের নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন এরনা।

    তাঁর ওই বক্তব্যকে ওই সময় ‘অবিবেচনাপ্রসূত’ ও ‘হতাশাজনক’ হিসেবে অভিহিত করেছিল সেদেশের প্রোগ্রেস পার্টি ও রক্ষণশীল ডানপন্থি জোট।

    সূত্র : স্পুটনিক নিউজ

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ