• শিরোনাম

    প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তারা

    আন্দোলন-সংগ্রাম ও গৌরবের পথে বেয়ে ৫০ বছরে এই দেশে মেহনতি মানুষ ও আওয়ামী রাজনীতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে শ্রমিকলীগ

    বার্তা পরিবেশক | ১৩ অক্টোবর ২০১৯ | ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

    আন্দোলন-সংগ্রাম ও গৌরবের পথে বেয়ে ৫০ বছরে এই দেশে মেহনতি মানুষ ও আওয়ামী রাজনীতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে শ্রমিকলীগ

    জাতীয় শ্রমিক লীগের গৌরবের ৫০ বছর ও সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষ্যে কক্সবাজারে বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়েছে। কক্সবাজার জেলা শ্রমিকলীগের উদ্যোগে গতকাল শনিবার কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত ময়দানে এই বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়। আয়োজনে কর্মসূচী ছিলো সকালের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকদির্শেনা মোতাবেক কর্মসূচী অংশ হিসেবে বৃক্ষরোপণ ও কেক কাটা হয়। বিকালে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
    জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ আনসারীর সঞ্চালনায় উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা। প্রধান বক্তা ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান।
    বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল হক মুকুল, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক কাজী মোস্তাক আহামদ শামীম, উপ-প্রচার সম্পাদক এমএ মঞ্জুর, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হেলাল উদ্দীন কবির, সাংস্কৃতিক সম্পাদক এড. তাপস রক্ষিত।
    আলোচনায় সভায় বক্তারা বলেন, আন্দোলন-সংগ্রাম ও গৌরবের পথে বেয়ে ৫০ বছরে এই দেশে মেহনতি মানুষের অধিকার আদায় ও বাংলাদেশের বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনের পথ বেয়ে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন শ্রমিকলীগ আজ আওয়ামী রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় অবস্থান করছে। পেরিয়ে আসা এই সময়ে শ্রমিক লীগ সব সময় দেশ ও মেহনতি মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও শ্রমিক লীগ পদযাত্রা অব্যাহত রেখে দেশের জন্য অবদান রেখে যাবেন।

    বক্তারা আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু তনয়া, শ্রমিকবান্ধব সরকারের মাননীয় সরকারের প্রধানমন্ত্রী, দেশরতœ শেখ হাসিনা গৃহিত শ্রমিক বান্ধব নীতির কারণে দেশে আজ কৃষকদের সারের জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে না। অভাব-অনটনে শ্রমিকদের আর আত্মহুতি দিতে হচ্ছে না। অতীতের সরকারগুলো শ্রমিকদের শোষণ করেছে আর শেখ হাসিনা শ্রমিকদের নিরাপদ কর্ম পরিবেশ নিশ্চিত করণের লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়সহ শ্রমিকদের জীবন মানোন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছে।

    আলোচনা আরো বক্তব্য রাখেন- জেলা শ্রমিকলীগের সহ-সভাপতি শফিকুল ইসলাম কালু, গিয়াস উদ্দীন, সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল কবির সাকী, খোরশেদুল হক, খোরশেদ আলম, সরওয়ার আলম, মহেশখালী উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আবদু শুক্কুর, উখিয়া উপজেলা সভাপতি সরওয়ার কামাল পাশা, সদর উপজেলা আহ্বায়ক মোঃ আবদুল্লাহ, পেকুয়া উপজেলা সভাপতি নূরুল আবছার, চকরিয়া পৌর সভাপতি জহিরুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা জসিম উদ্দীন, হোটেল শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম বিল্ডার। কোরআন শুরুতে তেলোয়াগ করেন ১২ নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগের সভাপতি হাফেজ নূরুল ইসলাম।
    অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা শ্রমিকলীগের যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ন কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন আহমদ, আবু তাহের রানা, ছৈয়দ রাসেদুল হক সোহেল, জাহাঙ্গীর আলম, ইয়াহিয়া, সিরাজুল করিম, নেজাম উদ্দীন শাওন, মোঃ ইউনুছ, দুলাল কান্তি দাশ, এম. ওসমান গণি, একরামুল হক চৌধুরী, মোঃ ফরিদুল আলম, রিপন উদ্দীন রিপন, ফরহাদ সিকদার, মুছা কলিম উল্লাহ, গিয়াস উদ্দীন, শাহিনশাহ চৌধুরী, শাহনেওয়াজ চৌধুরী, পেকুয়া উপজেলা সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, রামু উপজেলা সভাপতি শফিকুল ইসলাম কাজল, মোঃ আমিন, চকরিয়া উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন মামুন, উখিয়া উপজেলা সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দীন সুজন, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা সাধরণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, চকরিয়া পৌর সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধলু, টেকনাফ পৌর সভাপতি জিয়া উদ্দীন জিয়া, সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম, কুতুবদিয়ার আবদুর রহিম সিকদার রাসেল, ঈদগাঁও সাংগঠনিক সাবেক সদস্য সচিব আবু বকর ছিদ্দিক বান্ডি ও মোজাম্মেল হক, তৌহিদ, আনোয়ার, নূর আলম, ইমরান, জীপ-বার-মাইক্রো শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দীন, সাধ;রণ সম্পাদক ওসমান গণি, হোটেল শ্রমিক লীগের সভাপতি শামসুল আলম, ইমারত নির্মাণ শ্রমিকলীগের সভাপতি আহমদ কবির, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইফসুফ, ১২ নং সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিক, জাকের, মোর্শেদ, নজিবুল ইসলাম বাবু প্রমুখ। বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিট থেকে মিছিল সহকারে এসে বিপুল নেতাকর্মী আলোচনায় সভায় যোগ দেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ