• শিরোনাম

    টেকনাফ স্থল বন্দরে অদ্ভুত নিয়ম!

    আমদানী পণ্য ট্রলারে থাকলেও দিতে হয় চার্জ

    নুরুল করিম রাসেল, টেকনাফ | ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | ১২:১০ পূর্বাহ্ণ

    আমদানী পণ্য ট্রলারে থাকলেও দিতে হয় চার্জ

    টেকনাফ স্থল বন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আমদানীকৃত পণ্যের উপর কৌশলে নানা চার্জ আদায়ের অভিযোগ ব্যবসায়ীদের দীর্ঘদিনের। নাইট চার্জের নামে বিকাল ৫টা পার হলেই ব্যবসায়ীদের গুনতে হয় ট্রাক প্রতি প্রায় ৫ হাজার টাকার মতো অতিরিক্ত অর্থ। এইবার জানা গেল নতুন আরেকটি অদ্ভুত চার্জ আদায়ের কথা। টেকনাফ স্থল বন্দরে আসা পণ্য নদীতে ট্রলারে থাকাবস্তায় নাকি দিতে হয় ওয়্যার হাউসের চার্জ। এনিয়ে ব্যবসায়ীরা এতোদিন মুখ খুলতে না পারলেও বুধবার নৌ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত একটি সভায় ব্যবসায়ীরা এ অভিযোগ করেন।

    জানা যায়, বুধবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসানের সভাপতিত্বে টেকনাফ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষ, শুল্ক বিভাগ ও ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীন একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন বন্দর কর্তৃপক্ষ কৌশলে অতিরিক্ত নাইট চার্জ, আমদানী পণ্য ট্রলারে থাকাবস্তায় ওয়ার হাউজের চার্জ আদায়সহ নানা ভাবে ব্যবসায়ীদের কাছ অতিরিক্ত অর্থ আদায় করে থাকেন।
    ব্যবসায়ীদের এমন অভিযোগের বিষয়ে ইউএনও বিষয়টি জানতে চাইলে স্থল বন্দর ব্যবস্থাপক মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী কোন সদুত্তর দিতে পারেননি বলে জানা গেছে।
    টেকনাফ সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক এহেতেশামুল হক বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সভায় ব্যবসায়ীরা নদীতে ট্রলারে থাকাবস্তায় পণ্যের ওয়্যার হাউজের চার্জ আদায়ের বিষয়ে আপত্তি জানালে ইউএনও বিষয়টি অযৌক্তিক বলে মত প্রকাশ করেন।

    এদিকে বুধবার (১৬ অক্টোবর) আমদানী হওয়া ২০৪.৩১৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ ট্রলার থেকে খালাস করা হয়েছে। খালাস হওয়া পেঁয়াজ গুলো ট্রাকে বোঝাই করা হচ্ছে দেশীয় বাজারে সরবরাহের জন্য। রাতে অথবা সকালে পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাকগুলো বন্দর ছেড়ে যাবে।
    টেকনাফ স্থলবন্দরের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, বুধবার ১৬ অক্টোবর ৫ জন আমদানীকারকের প্রায় সাড়ে ৩’শ মেট্রিকটন (৯৬০ বস্তা) পেঁয়াজ নিয়ে ৩টি ট্রলার বন্দরে ভীড়ে। এরমধ্যে আমদানীকারক আবু আহমেদ, সাদ্দাম ও সেলিম ২০৪.৩১৩ মেট্রিকটন পেঁয়াজের আইজিএম জমা দিলে তা ট্রলার থেকে খালাস করা হচ্ছে। দিনে রাতে খালাসের কাজ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। এছাড়া বন্দর কৃর্তপক্ষ ব্যবসায়ীদের সাধ্যমত সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বলে দাবি তার। ট্রলারে থাকা পণ্যের ওয়্যার হাউজ চার্জ আদায়ের ব্যাপারে জানতে চাইলে নিয়মানুযায়ী সব ধরনের চার্জ আদায় করা হয় বলে জানান তিনি।

    সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল হক বাহাদুর জানান, বুধবার খালাস হওয়া পেঁয়াজ গুলো দুইদিন আগেই বন্দরে ভীড়েছে। বুধবার যেসব ট্রলার বন্দরে ভীড়েছে তা খালাস হতে অন্তত এক সপ্তাহ লেগে যাবে। তিনি আরো জানান, গত এক সপ্তাহে মিয়ানমার থেকে আমদানিকৃত তিন হাজারের বেশি পেঁয়াজের বস্তা খালাসে দেরি হওয়ায় নষ্ট হয়ে গেছে। এতে ব্যবসায়ীদের লাখ লাখ টাকা লোকসান হয়েছে। বন্দর কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা ও অবকাঠামোগত দূর্বলতা, জনবলের অভাবে প্রতিদিন ব্যবসায়ীদের পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

    খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত মাসের শেষের দিকে পেঁয়াজের সংকট সৃষ্টি হওয়ায় মূল্য বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে টেকনাফ স্থল বন্দরের ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার হতে পেঁয়াজ আমদানীতে ঝুঁকে পড়েন। মিয়ানমার হতে এপর্যন্ত আমদানী করা হয়েছে ১২৩৫৮.৬৯৬ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। ইতিমধ্যে পেঁয়াজ আমদানী নির্বিঘœ করতে বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের দুটি টীম টেকনাফ স্থল বন্দর পরিদর্শন করেন ও ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক করেন। গত ২ অক্টোবর বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব তৌফিকুর রহমানের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল ও গত ১৫ অক্টোবর মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ জালাল উদ্দিনের নেতৃত্বে অপর একটি প্রতিনিধি দল স্থল বন্দর ঘুরে দেখেন এবং ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রবিউল হাসান।
    এদিকে পেঁয়াজ আমদানী শুরু হওয়ার পর থেকেই ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে আসছিলেন, খালাসের অব্যবস্থাপনা ও পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধাসহ শ্রমিক সংকটের কারনে আমদানীকৃত পেঁয়াজ বন্দরের পঁচে নষ্ট হচ্ছিল। এতে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছিলেন ব্যবসায়ীরা। যদিও বন্দর কর্তৃপক্ষ পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ার জন্য বরাবরই ব্যবসায়ীদের দায়ী করে আসছিলেন। অস্বীকার করে আসছিলেন শ্রমিক সংকটসহ যাবতীয় অভিযোগ।

    টেকনাফ স্থল বন্দরের শুল্ক কর্মকর্তা আবছার উদ্দিন জানান, চলতি মাসে (১৬ অক্টোবর পর্যন্ত) মিয়ানমার থেকে আসা টেকনাফ স্থলবন্দরে ৮ হাজার ৭০১.৪২৩ মেট্রিক টন পেঁয়াজ খালাস করা হয়ছে। এছাড়া গত আগস্ট মাস থেকে ১২৩৫৮.৬৯৬ মেট্রিকটন পেঁয়াজ মিয়ানমার থেকে আমদানী হয়েছে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ