শুক্রবার ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

‘আমিই যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ হয়রানির শিকার প্রেসিডেন্ট’

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

‘আমিই যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ হয়রানির শিকার প্রেসিডেন্ট’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছেন, তিনিই যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ‘সর্বোচ্চ পর্যায়ের’ হয়রানির শিকার হওয়া প্রেসিডেন্ট। বৃহস্পতিবার তিনি তার টুইটার অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে এমন দাবি করেন।

টুইটার পোস্টে ট্রাম্প লেখেন, আমরা এখনও ডেমোক্র্যাটদেরকে এমন কিছু দিতে পারিনি, যা তাদেরকে সন্তুষ্ট করতে পারে। তিনি আরও লেখেন, এটি আমাদের দেশের ইতিহাসে প্রেসিডেন্টের জন্য সর্বোচ্চ পর্যায়ের হয়রানি।

যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেনডেন্টে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের চারজন প্রেসিডেন্ট নিহত এবং দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হওয়ার পরও এমন দাবি করলেন ট্রাম্প।

এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিককালের প্রায় সব প্রেসিডেন্ট একাধিক বৈধ চ্যালেঞ্জ এবং তদন্তের মুখোমুখি হয়েছেন। এটা নিয়েও আপত্তি ট্রাম্পের। এতে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এবং তার সহকারীরা বারবার দাবি করছে যে তাকে হয়রানি করা হচ্ছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যমটিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, কয়েক মাস ধরে রিপাবলিকানরা বলছে যে প্রেসিডেন্টের বিষয়গুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করা ঠিক নয়। আর ট্রাম্পের দাবি, প্রেসিডেন্টের বিষয়গুলো প্রশ্নবিদ্ধ করায় প্রকৃতপক্ষে আমাদের দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

এতে বলা হয়, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পকে সহযোগিতা করতে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ সংক্রান্ত পূর্ণাঙ্গ তদন্ত প্রতিবেদন দেখতে চাচ্ছে ডেমোক্র্যাটরা। কিন্তু তিনি এতে বারবার আপত্তি জানাচ্ছেন। ঠিক এমন সময় তিনি হয়রানির শিকার হওয়ার বিষয়ে মন্তব্য করলেন।

Comments

comments

Posted ১০:৩০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com