শনিবার ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

সৈকতের জাতির জনকের স্মৃতি বিজড়িত ঝাউ বাগান

আরো ২ লাখ ৫০ হাজার ঝাউ গাছের চারা রোপন

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আরো ২ লাখ ৫০ হাজার ঝাউ গাছের চারা রোপন

কক্সবাজারে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত ঝাউ বাগানটির পরিধি বৃদ্ধি করা হচ্ছে। ফিঃ বছরের ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাস সহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগ চলতি অর্থ বছরের ইতিমধ্যে ২ লাখ ৫০ হাজার ঝাউগাছের চারা রোপনের কাজ সম্পন্ন করেছে।
কক্সবাজার সমুদ্র উপকূলীয় এলাকার সৈকতে ইতিমধ্যে উক্ত সংখ্যক ঝাউগাছের চারা রোপনের মাধ্যমে ১০০ হেক্টর জমিতে ঝাউ বাগান গড়ে তুলেছে। ঝাউ বাগান সৃজন প্রকল্পের আওতায় কক্সবাজার বন বিভাগের ৫টি রেন্জ এর আওতায় এসব ঝাউ গাছ রোপন করা হয়।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের সহকারী বন সংরক্ষক মোহাম্মদ সোহেল রানা জানান, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের নাজিরারটেক থেকে বাগানপাড়া পর্যন্ত ২০ হেক্টর জমিতে ৫০ হাজারটি ঝাউ চারা, হিমছড়ির আমতলী এলাকার ২০ হেক্টর জমিতে ৫০ হাজার, সোয়ানখালী খাল থেকে রুপপতি খাল পর্যন্ত ৪০ একর জমিতে ১ লাখ এবং হিমছড়ি হেফজখানা থেকে রেজু ব্রীজ পর্যন্ত ২০ একর জমিতে ৫০ হাজার ঝাউ গাছের চারা রোপন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সাগরের ভাংগন থেকে শহরকে রক্ষা করতে এবং সমুদ্র সৈকতের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে বিদ্যমান ঝাউবাগানের পাশাপাশি নতুন ঝাউ বাগান গড়ে তোলার জন্য বন অধিদপ্তর প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। প্রসঙ্গত এসব ঝাউ বিথীর কারনেই সাগরের ঝড়ঝঞ্জা থেকে কক্সবাজার শহর রক্ষা পাচ্ছে। ঝাউ বাগানটি সৈকতের রক্ষাকবচ হিসাবে বিবেচিত হয়ে আসছে।

কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির এ প্রসঙ্গে জানান, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে জাতির জনক বংগবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে বন বিভাগ কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পাশে ঝাউ বাগান সৃজন প্রকল্পের কাজ শুরু করে। এ পর্যন্ত ৫৮৫ হেক্টর ঝাউ বাগান সৃজন করা হয়েছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে কক্সবাজার সাগর পাড়ের ডায়াবেটিক হাসপাতাল পয়েন্টে এবং শেবাল পয়েন্টে ঝাউ বাগান গুলোর গাছ ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় সেখানেও নতুন চারা রোপন করা হচ্ছে।

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা বলেন, “টেকসই বন ও জীবীকা (সুফল) প্রকল্পের আওতায় আগামী ৫ বছরে ৪০০ হেক্টর জমিতে এবং “কক্সবাজার জেলায় সবুজ বেষ্টনী সৃজন ও ইকো ট্যুরিজম উন্নয়ন” প্রকল্পের আওতায় ১৪০ হেক্টর জমিতে ঝাউ বাগান গড়ে তোলা হবে।

Comments

comments

Posted ১:৫৫ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com