• শিরোনাম

    উখিয়া-টেকনাফ আসন

    ইয়াবা বিরোধী শিবিরে এবার একজন সেনা কর্মকর্তা

    দেশবিদেশ রিপোর্ট | ২৮ অক্টোবর ২০১৮ | ২:১১ পূর্বাহ্ণ

    ইয়াবা বিরোধী শিবিরে এবার একজন সেনা কর্মকর্তা

     

    বাংলাদেশের আলোচিত সংসদীয় আসন কক্সবাজার-০৪ উখিয়া-টেকনাফে এবার নৌকার মনোনয়ন চেয়ে মাঠে নেমেছেন সাবেক এক সেনা কর্মকর্তা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি হচ্ছেন মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আবু তাহের। মরণ নেশা ইয়াবার কারণে আলোচিত সংসদীয় আসনটিতে আসন্ন নির্বাচনে অন্যান্য এমপি প্রত্যাশী প্রার্থীদের মধ্যে একজন সেনা কর্মকর্তার নাম আসায় ইতোমধ্যে তিনি আলোচনায়ও আসছেন ভোটারদের মাঝে।
    আসনটিতে উপর্যুপরি গত দু’বারের এমপি রয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ডন আবদুর রহমান বদি। সরকারের ইয়াবা কারবারের তালিকায় এমপি বদির পরিবারের আরো কমপক্ষে ২৫ জন সদস্য রয়েছেন। ইয়াবা সংশ্লিষ্টতার কারনেই ইতিমধ্যে দেশে-বিদেশে বিতর্কিত এমপি আবদুর রহমান বদি তৃতীয়বারের মত আসনটিতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পাচ্ছেন কিনা সেটাই এখন আলোচনার বিষয়।
    সীমান্ত দিয়ে ইয়াবা পাচারের সাথে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে এমপি আবদুর রহমান বদি বহুল বিতর্কিত হয়ে পড়ায় আসনটির দলীয় নেতাকর্মীদের একটি বড় অংশ ইতিমধ্যে তাঁর কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। এমনকি আরো ৭/৮ জন আওয়ামী লীগ নেতা জোটবদ্ধ হয়ে এমপি বদির বিরোধিতা করে দলীয় প্রার্থীতা চেয়ে মাঠে নেমেছেন। এলাকার লোকজন বলছেন, একদিকে এমপি বদি অপরদিকে তাঁর বিরুদ্ধে একাট্টা হয়ে ৬/৭ জন মাঠে নেমেছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়নের জন্য।
    এমপি বদি বিরোধী শিবিরের এসব একাট্টা হওয়া মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক দলীয় এমপি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাধনা দাশ গুপ্তা, কক্সবাজার জেলা যুব লীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বাশার, উখিয়ার হলদিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মোহাম্মদ শাহ আলম। এই কাতারে সর্বশেষ যোগ দিয়েছেন অবসর প্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর মোহাম্মদ আবু তাহের। কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার মধ্য রাজা পালং গ্রামের বাসিন্দা মেজর আবু তাহের একজন মুক্তিযোদ্ধা। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য ও বঙ্গবন্ধু সেনা পরিষদেরও কেন্দ্রীয় সদস্য।
    একজন সেনা কর্মকর্তা মনোনয়নের জন্য মাঠে নামায় ইয়াবা কারবারি বিরোধী শিবিরও চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। এতদিন ধরে ইয়াবা পাচারের বিরুদ্ধে এলাকায় যারা সোচ্চার ভুমিকা পালন করে আসছেন তাদেরও মনোবল বেড়েছে। এলাকার লোকজনের অভিযোগ এতদিন এলাকায় ইয়াবা কারবারিদের দাপটের মুখে কেউ মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে মাঠে নামতেও সাহস করেননি। ইয়াবার গডাফাদার হিসাবে তালিকাভুক্ত জনপ্রতিনিধিকে রুখতে এ কারনেই এবার ৬/৭ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী একাট্টা হয়েই মাঠে নেমেছেন। তাদের সাথে একজন সেনা কর্মকর্তা পেয়ে উখিয়া-টেকনাফ আসনে ইয়াবা কারবারিদের বিরোধী শিবির এখন শক্তিশালী হয়ে পড়েছে।
    সদালাপী এবং পরিচ্ছন্ন সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা মেজর তাহের ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগ সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন সম্বলিত লিফলেট, ব্যানার ও পোষ্টার বিতরণসহ গণ সংযোগ করে সাড়া জাগিয়েছেন উখিয়া-টেকনাফে। গত ক’দিন ধরে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের কথা তুলে ধরে উখিয়া, কোর্টবাজার, মরিচ্যা, ভালুকিয়া, সোনারপাড়া, নিদানিয়া, ইনানী, বালুখালী, থাইনখালী ও পালংখালীতে গণ সংযোগ করেছেন। একইভাবে টেকনাফের কাটাখালী, হোয়াইক্যং, হ্নীলা, টেকনাফ সদর, শাহপরীর দ্বীপ ও বাহারছরা শ্যামলাপুরে গণ সংযোগ করে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরেছেন।
    এসময় তিনি বলেন, আওয়মাী লীগ সরকার উখিয়া-টেকনাফসহ সারা দেশে যে উন্নয়ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তার ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী জানিয়ে আবারো নৌকায় ভোট দেয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানান।
    মেজর মোহাম্মদ আবু তাহের বলেন-‘ উখিয়া-টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে গত এক যুগ ধরে মরণ নেশা ইয়াবা পাচারের কারণে দেশ-বিদেশে আমাদের এলাকার বদনাম ছড়িয়ে পড়েছে। সেই সাথে একজন জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে ইয়াবা পাচারের লাগাতার অভিযোগের কারনে সরকার ও দলেরও ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। এমন অবস্থা থেকে আমাদের উঠে আসতে হবে।’

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ