শনিবার ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

উখিয়ায় ৭০ বস্তা সরকারি চালসহ ব্যবসায়ী আটক

  |   শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল ২০২০

উখিয়ায় ৭০ বস্তা সরকারি চালসহ ব্যবসায়ী আটক

শফিক আজাদ, উখিয়া :

উখিয়ায় উপজেলা প্রশাসন ও র‌্যাব যৌথ অভিযান চালিয়ে সরকারি চালের খালী বস্তা ও চাল সহ এক ব্যবসায়ী আটক করেছে। বৃহস্পতিবার ১৬ এপ্রিল বিকেলে উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের থিমছড়ি স্টেশনের নিজ দোকান হতে আটক ব্যক্তির নাম সাইফুল ইসলাম তিনি একজন রাইস মিলার ও ধান চাল ব্যবসায়ী বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তার মালিকানাধীন রাইস মিল হতে ৭০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করা হয়। তিনি ওই সময় ৩০ কেজি বস্তা থেকে চাল বের করে ৫০ কেজি ওজনের প্যাকেটজাত করছিল নিজের রাইচ মিলে। উপজেলার রত্না পালং ইউনিয়নের মাঝেরপাড়া গ্রামের বেলাল আহমদের ছেলে তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উখিয়া উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নিকারুজ্জামান চৌধুরীর নেতৃত্বে এই অভিযানে র‌্যাব এর একটি দল অংশগ্রহণ করেন। এ সময় রত্নাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ খাইরুল আলম চৌধুরী ও স্থানীয় মেম্বার উপস্থিত ছিলেন।

চেয়ারম্যান খায়রুল আলম চৌধুরী অভিযানের ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ধরনের খবর পাওয়ার সাথে সাথে আমরাও প্রশাসনকে সহযোগিতা করার জন্য তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলাম।

তিনি বলেন, ভিজিডি কর্মসূচির আওতায় আমার ইউনিয়নের ৯ টি ওয়ার্ডে ৩ হাজার ৫ শত পরিবারের মধ্যে প্রতিমাসেই চাল বিতরণ করা হয়ে থাকে। উপকারভোগী সদস্যরা কার্ড নিয়ে আসলেই সাথে সাথে চাল হস্তান্তর করা হয়। সেই চাল বাড়িতে নিয়ে যায় উপকারভোগীরা। স্বাভাবিক ভাবে বিতরণের পর চালের দায় দায়িত্ব আমাদের থাকে না।

এদিকে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, আটক সাইফুল ইসলাম স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন বিভিন্ন ইউনিয়ন হতে বিতরণকৃত সরকারি চাল উপকারভোগী সদস্যের নিকট হতে নগদ টাকা দিয়ে ক্রয় করেছিল। অনেকে জানান পুষ্টি মিশ্রিত চাল হওয়ায় খেতে চায় না। উপকারভোগী সদস্যরা প্রাপ্ত চাল গুলো বিক্রি করে খাবার উপযোগী চাল ক্রয় করে ঘরে নিয়ে যায় এমন কথাও মাঠে রয়েছে। খোজ নিয়ে জানা গেছে কয়েকটি সিন্ডিকেট চক্র গ্রামে গ্রামে গিয়ে সুযোগ বুঝে সরকারি চাল করে গুদাম জাত করত তা আবার বিক্রি করে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, দুস্ত,গরীব, অসহায় পরিবারের মাঝে বিতরণকৃত বিভিন্ন সরকারি কর্মসূচীর চাল রাইচ মিল মালিক সাইফুল ইসলাম কম দামে ক্রয় করে তা পুনরায় অন্য চাল মিশিয়ে বস্তা ভর্তি করে আসছিল। সংবাদ পেয়ে র‌্যাব-১৫ এর সহযোগিতায় ৭০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ আইনে মামলা রুজু করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

Comments

comments

Posted ১:২৯ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল ২০২০

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

দশ বছর পর
দশ বছর পর

(1252 বার পঠিত)

(1047 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com