বৃহস্পতিবার ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

এক ডোজের করোনা টিকা বানালো রাশিয়া

  |   শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১

এক ডোজের করোনা টিকা বানালো রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস) প্রতিরোধে দুই ডোজের সঙ্গে এক ডোজের স্পুৎনিক টিকাও এসে গেছে যা এই মুহূর্তে প্রচলিত অন্যান্য দুই ডোজের টিকার চেয়েও বেশি কার্যকর বলে দাবি করেছে রাশিয়া।
স্পুৎনিক-ভি কিনতে এবং তৈরি করতে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার মধ্যে বৃহস্পতিবার (৬ মে) রুশ গণমাধ্যমে এই খবর এসেছে যা যুক্তরাষ্ট্রের ব্লুমবার্গও প্রকাশ করেছে। বিডিনিউজ
ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এক ডোজের টিকার নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্পুৎনিক লাইট’, আর তা প্রায় ৮০ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করেছে দেশটি।
রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, স্পুৎনিক লাইট করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার মতো পরিস্থিতির আশঙ্কা বেশ কমিয়ে দিচ্ছে।
এই টিকা তৈরির পৃষ্ঠপোষকতায় থাকা আরডিআইএফ বলছে, দুই ডোজের স্পুৎনিক-ভি যেখানে ৯২ শতাংশ কার্যকর সেখানে এক ডোজের স্পুৎনিক লাইটের কার্যকারিতা ৭৯ দশমিক ৪ শতাংশ।
আরডিআইএফ-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কিরিল দিমিত্রিয়েভ ব্লমবার্গকে বলেছেন, যে সব দেশে করোনাভাইরাস দ্রুত গতিতে ছড়াচ্ছে সেসব দেশকে লক্ষ্য করেই এক ডোজের টিকাটি তৈরি করেছেন তারা।
আগামী সপ্তাহের মধ্যে বেশ কয়েকটি দেশ স্পুৎনিক লাইট অনুমোদন দেবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
অক্সফো্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার নতুন ডোজ পাওয়া নিয়ে জটিলতার মধ্যে রুশ টিকা ‘স্পুৎনিক-ভি’ আমদানি ও জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন ইতোমধ্যে দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।
মস্কোর গামালিয়া ইন্সটিটিউটের তৈরি করা স্পুৎনিক-ভি এর প্রথম ডোজ দেওয়ার ২১ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হয়। টিকা সংরক্ষণ করতে হয় ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায়। স্পুৎনিক টিকা সরকারিভাবে আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। তবে কবে নাগাদ আসবে এবং দাম কত হবে, তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।
পাশাপাশি দেশের ওষুধ কোম্পানিতে এই টিকা তৈরির অনুমোদনও দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। কোন প্রতিষ্ঠানে তৈরি হবে তা সরকার এখনও নির্ধারণ না করলেও এ ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যালস।
ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, মানসম্মত পরীক্ষামূলক প্রয়োগের মধ্য দিয়ে স্পুৎনিক লাইটের কার্যকারিতা যাচাই করে দেখা হয়নি বরং সরাসরি প্রয়োগের ফল দেখে সিদ্ধান্ত টানা হয়েছে। আর অন্তর্বর্তীকালীন এই পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল এই মাসের শেষ নাগাদ পাওয়া যাবে।
এই টিকার কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি বলেও জানিয়েছে আরডিআইএফ।
দুই ডোজের স্পুৎনিক টিকা বিশ্বের দুই কোটির বেশি মানুষ ইতোমধ্যে নিয়েছে বলে দাবি করেছে সংস্থাটি যদিও রাশিয়ায় এ পর্যন্ত টিকা নিয়েছে মাত্র ৮ শতাংশ মানুষ।

Comments

comments

Posted ৩:৩৮ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com