মঙ্গলবার ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

সুধীজন ও সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়ে-ওবায়দুল কাদের

কক্সবাজারের গরিবানা থাকবেনা, পাল্টে যাবে সহসা

দীপক শর্মা দীপু   |   সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কক্সবাজারের গরিবানা থাকবেনা, পাল্টে যাবে সহসা

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দুর্নীতি নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলে বিএনপি। নানাভাবে ভাল কথা বলার চেষ্টা করে। কিন্তু তারা তাদের চেহারা আয়নায় দেখেননি। পাঁচ বার তারা দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। তাদের এই দুর্নীতির রেকর্ড আগামিতে কেউ ভাঙ্গতে পারবেননা। হাওয়া ভবন বিএনপির দুর্নীতির ঘাটি ছিল। ছোট নেতা থেকে বড় নেতা সবাই দুর্নীতিগ্রস্থ। কিন্তু তখন তারা দুর্নীতিতে প্রতিরোধে কোন ব্যবস্থা নেননি। তাদের নিজেদের এত গন্ধ আর তারা ন্যায় নীতির কথা বলেন। এ যেন ভুতের মুখে রাম নাম। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে বিএনপি নেতারা ব্যর্থ। মাঠে তাদের কোন অবস্থান নেই। তারা ১০ বছরে ১০ মিনিটের জন্য মাঠে অবস্থান করতে পারেননি। আন্দোলনে তারা ব্যর্থ কোন আন্দোলন সফল করতে পারেনা। এমনকি তাদের নেত্রী খালেদা জিয়া দীর্ঘ দেড় বছর কারাবন্দি রয়েছেন। কিন্ত নেতাকর্মীরা তাকে মুক্ত করতে দেড় মিনিটের জন্যও মাঠে নামতে পারেননি। তাদের সবার রাজনৈতিক পদ থেকে পদত্যাগ করা উচিত।

২২ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম মিলনায়তনে সুধীবৃন্দ ও সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি কক্সবাজার শহরের নাজুক অবস্থা বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, এটি একটি ভুতুড়ে শহর। শহরের রাস্তার অবস্থা ভালো নয়। সন্ধা হলেই অন্ধকার নেমে আসে। শহরে আলোর অবস্থা খুবই অপ্রতুল। গরিবানা শহর কক্সবাজার। এই অবস্থার সহসা পরিবর্তন করা হবে। আগামি তিন বছরে পাল্টে যাবে কক্সবাজার।

তিনি সরকারি আমলাদের উদ্দেশ্যে বলেন, নিজেদের আওয়ামী লীগ নেতা মনে করবেন না। অনেকে তা করে থাকেন। আওয়ামী লীগের কাছে ভালো হওয়ার জন্য। দুর্নীতি না করে নিজেদের কাজ সততার সাথে করলেই এই সরকারের প্রিয় হওয়া যাবে । আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে অনিয়ম দুর্নীতি সহ্য করা হবেনা। তিনি বর্তমান সময়ের শুদ্ধি অভিযানের কথা উল্লেখ করে বলেন, যত বড় নেতা, প্রভাবশালী হোক কেন চলমান অভিযান থেকে কেউ বাদ যাবেনা। ভূমিদস্যুতা, দখলবাজদেরও রেহায় দেয়া হবেনা।

জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেনে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-মন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামিম, পংকজ নাথ এমপি, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়–য়া, সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, জাফর আলম এমপি, শরানার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মাহবুব আলম তালুকদার, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন, নুরুল আবছার, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের, উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রনজিত দাশ, আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম।
এর আগে তিনি সকাল সাড়ে ১০ টায় নবনির্মিত কক্সবাজার সড়ক ভবন উন্নয়ন, জরুরী সহায়তা প্রকল্প – কক্সবাজার টেকনাফ জাতীয় মহাসড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের উন্নয়ন, খুরুস্কুল – চৌফলদন্ডী- ঈদগাঁও জেলা সড়ক উদ্বোধন, জনতাবাজার-গোরকঘাটা জেলা মহাসড়কের উন্নীতকরণ উদ্বোধন, ইয়াংচা-মানিকপুর-শান্তিবাজার সড়ক উন্নতকরন উদ্বোধন, কক্সবাজার জেলার লিংকরোড থেকে লাবনী মোড় সড়ক ৪ লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প কাজের উদ্বোধন, কুতুবদিয়া-আজম জেলা মহাসড়ক শুভ উদ্বোধন।

দেশবিদেশ/নেছার

Comments

comments

Posted ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com