• শিরোনাম

    কাকারায় মাতামুহুরী নদীর ভাঙন ঠেকাতে

    কোটি টাকায় নির্মাণ হচ্ছে ২ হাজার মিটার প্রতিরক্ষা দেওয়াল

    ছোটন কান্তি নাথ, চকরিয়া | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১:৫২ পূর্বাহ্ণ

    কোটি টাকায় নির্মাণ হচ্ছে ২ হাজার মিটার প্রতিরক্ষা দেওয়াল

    মাতামুহুরী নদীর ভাঙন থেকে রক্ষায় চকরিয়ার কাকারায় মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলাম সিদ্দিকী সড়কের পাশ ঘেঁষে নির্মাণ হচ্ছে ২ হাজার মিটার প্রতিরক্ষা দেওয়াল।

    প্রতিবছর ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়ে লণ্ডভন্ড হয়ে আসছিল মাতামুহুরী নদী বিধৌত কক্সবাজারের চকরিয়ার কাকারা ইউনিয়নের দুই ওয়ার্ডের নদী তীরবর্তী বীর মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলাম সিদ্দিকী সড়কটি। এতে অসংখ্য বসতবাড়ি নদীগর্ভে তলিয়ে গিয়ে, শত শত একর জমির ফসল নষ্ট হওয়া ছাড়াও একমাত্র সড়কটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। যুগ যুগ ধরে এই অবস্থা অব্যাহত থাকায় এবার নদীতীরের সড়ক কাম বেড়িবাঁধটি রক্ষায় স্থায়ী পদক্ষেপ এসেছে। এরই অংশ হিসেবে প্রপার কাকারা থেকে মেনিবাজারের মৌলভী মোক্তারের বাড়ি হতে আশরাফুলের জমি পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার মিটার দীর্ঘ প্রতিরক্ষা দেওয়াল (গাইড ওয়াল) নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে গতকাল বুধবার থেকে। কাজটি শুরু হওয়ায় এলাকাবাসী বেশ খুশি। প্রতিরক্ষামূলক এই কাজটি বাস্তবায়ন করছে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অধীন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়। এতে ব্যয় হবে প্রায় কোটি টাকা।
    গতকাল সকালে বহুল  প্রতিক্ষিত কাজটির উদ্বোধন করেন কক্সবাজার-১ আসনের এমপি জাফর আলম। উপস্থিত ছিলেন পৌরমেয়র আলমগীর চৌধুরী, ইউএনও নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, পিআইও মো. মাসুদুর রহমান, আ. লীগ নেতা ছরওয়ার আলম, কাকারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শওকত ওসমান, শিক্ষক মহিউদ্দিন সিদ্দিকী, মাদ্রাসাসুপার বেলাল উদ্দিন, ইউপি সদস্য নাছির উদ্দিন, নাছির উদ্দিন সওদাগর, জিয়াউল করিম, মনির উদ্দিন, আবদুর রাজ্জাক, রাশেদুল ইসলাম, ইশতিয়াক আহমদ, চৌধুরী আরমান, শফিউল্লাহ, নুরুল আবচার, রেজাউল করিম প্রমূখ।
    উল্লেখ্য স্থানীয় বাসিন্দা ও কালের কণ্ঠ’র সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার আসিফ সিদ্দিকী এবং ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমানের ব্যাপক তদবিরে এমপি জাফর আলম জনগুরুত্বপূর্ণ বিবেচনায় প্রকল্পটি বাস্তবায়নে এগিয়ে আসেন।
    কাজ শুরু হওয়ায় শুকরিয়া জানিয়ে সাংবাদিক আসিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘নদীর তীরে টেকসই প্রতিরক্ষা দেওয়ালটি নির্মিত হবে বীর মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলাম সিদ্দিকী সড়কের পাশ ঘেঁষেই। এতে বর্ষামৌসুমে ভয়াবহ বন্যার সময় বিশাল এলাকা এবং সড়কটি ভাঙনের কবল থেকে রক্ষা পাবে। এছাড়াও তীরশুল নির্মাণের ফলে বিশাল চর সুরক্ষিত থাকবে কাকারার সবজি ভাÐারের। কৃষিপণ্য উৎপাদনে আর কোন প্রতিবন্ধকতা থাকবে না।
    কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান মো. শওকত ওসমান বলেন, ‘নদীতীরে মাটির বাঁধ হলে কৃষকেরা নিজেদের উৎপাদনের জমিটুকু হারাতেন। ধ্বস নামতো সবজি উৎপাদনে। তাই জনদাবির কথা বিবেচনায় নিয়ে আমাদের এমপি জাফর আলম এখানে টেকসই গাইড ওয়াল নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন। কাজটি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমি নিজে এবং সাংবাদিক আসিফ সিদ্দিকীও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন।’
    নদীতীরের প্রতিরক্ষা দেওয়ালটির নির্মাণকাজ শুরু হওয়ায় খুশি এলাকার অনেকেই বলেন, ‘প্রতিবছর নদীতে নেমে আসা উজানের প্রবল বেগের বন্যার ধাক্কাটি সরাসরি এসে লাগে আমাদেরই এলাকায়। এতে বহু মানুষ বসতভিটে হারানো ছাড়াও ফসলি জমি তলিয়ে যাওয়ায় আর্থিকভাবে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখিন হন। একমাত্র সড়কটিও লÐভÐ হয়ে যাওয়ায় কয়েকমাস ধরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকতে হতো। এই অবস্থায় স্থায়ী গাইডওয়াল নির্মাণ হলে বড় ক্ষতি থেকে পরিত্রাণ পাবেন। এজন্য এমপি জাফর আলমসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি, জনগুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পটি হাতে নেওয়ায়।
    এ ব্যাপারে কক্সবাজার-১ আসনের এমপি ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম বলেন, ‘প্রতিবছর বন্যার প্রথম ধাক্কাতেই বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয় এই এলাকা। তাই প্রতিবছর মাটির বাঁধ তৈরি না করে স্থায়ীভাবে এই প্রতিরক্ষা দেওয়াল নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জনগুরুত্বপূর্ণ এই কাজটির বাস্তবায়ন যাতে মুজিববর্ষের আগে সম্পন্ন হয় সেজন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ