সোমবার ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ক্যাম্পে রবি’র থ্রিজি,ফোর’জি নেটওয়ার্ক এখনও সচল, স্থানীয়রা হয়রানীর শিকার 

শফিক আজাদ,উখিয়া     |   বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ক্যাম্পে রবি’র থ্রিজি,ফোর’জি নেটওয়ার্ক এখনও সচল, স্থানীয়রা হয়রানীর শিকার 

কক্সবাজারের টেকনাফ-উখিয়া এলাকার অবস্থিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থ্রিজি ফোরজি সেবা বন্ধ করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। কিন্তু এক দিনের ব্যবধানে রবি’ কোম্পানী পুনরায় থ্রিজি ফোরজি সেবা সচল করে দেয় ক্যাম্পে। বুধবার উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্পে বসবাসকারী রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলে এমন তথ্য জানাগেছে। তবে ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকায় গত ২ দিন ধরে সকল ধরনের থ্রিজি,ফোরজি সেবা থেকে স্থানীয় বঞ্চিত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানাগেছে, গত সোমবার রাত ১০টায় বিটিআরসি সকল মোবাইল ফোন অপারেটরদের কাছে এ নির্দেশনা পাঠায়। নির্দেশনা অনুসারে মঙ্গলবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও তৎসংলগ্ন এলাকায় থ্রিজি ও ফোরজি মোবাইল ডেটা বন্ধ করে দেন সংশ্লিষ্ঠরা।
এর আগে গত ২ সেপ্টেম্বরে অপারেটরদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর বিটিআরসি বিকাল ৫টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত টেকনাফ ও উখিয়ায় থ্রিজি ও ফোরজি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। এক সপ্তাহের মধ্যে সেই নির্দেশনা কার্যকর করে বিটিআরসি। কিন্তু মঙ্গলবার রাত-দিন বন্ধ ছিল থ্রিজি, ফোরজি নেটওয়ার্ক। গত ১ সেপ্টেম্বর এক চিঠির মাধ্যমে বিটিআরসি রোহিঙ্গারা যাতে মোবাইল ফোন সেবা না পেতে পারে সে বিষয়ে অপারেটরদেরকে নির্দেশনা পাঠায়।

রোহিঙ্গা অধ্যূষিত এলাকা পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, মঙ্গলবার সকাল থেকে আমার এলাকায় কোন প্রকার থ্রিজি, ফোরজি নেটওয়ার্ক পায়নি। কিন্তু জরুরী কাজে তাজনিমারখোলা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ভিতরে গেলে র’বি কোম্পানী থ্রিজি, ফোরজি নেটওয়ার্ক পাওয়া যায়। তিনি বলেন, এভাবে রোহিঙ্গাদের সিম নিয়ন্ত্রণ করা যাবেনা। তবে রোহিঙ্গাদের নিকট থেকে মাঝির মাধ্যমে মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে বিটিআরসি’র কর্তৃক বন্ধ করতে হবে। যদি এসব সিমকার্ড গুলো বন্ধ করা না হয়, তাহলে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বিলম্বিতসহ দেশের সব ধরনের তথ্য বিদেশে পাচার হতে থাকবে। এতে আমাদের দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে।
স্থানীয় পালংখালী এলাকার নুরুল বশর অভিযোগ করে জানায়, মঙ্গলবার থেকে তারা সব ধরনের নেটওয়ার্ক কোম্পানীর থ্রিজি,ফোরজি সেবা থেকে বঞ্চিত। কিন্তু শফিউল্লাহকাটা, জামতলী ক্যাম্পের অভ্যান্তরে অন্যান্য অপারেটরে থ্রিজি,ফোরজি বন্ধ থাকলেও রবি’র কোম্পানীর থ্রিজি,ফোরজি চালু রয়েছে বলে তার অভিযোগ। তার মতে বিটিআরসি থ্রিজি, ফোরজি বন্ধ করার কারনে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়েছে স্থানীরা।

বালূখালী ২ নং ক্যাম্পের বাসিন্দা রোহিঙ্গা নাগরিক নুরুল বশর বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ প্রতিবেদককে জানান, মঙ্গলবার নেট ব্যবহারে কিছুটা সমস্যা সৃষ্টি হলেও বুধবার ভোর সকাল থেকে রবি’র থ্রিজি,ফোরজি সচল রয়েছে। যার ফলে ফেসবুক, ইমু, ওয়াটশপ ও ইউটিউব ব্যবহারে কোন সমস্যা নেই বলে জানায় সে।
উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানান, এ অভিযোগটি আমিও শুনেছি। কিভাবে তারা পুনরায় ক্যাম্পে থ্রিজি,ফোরজি নেটওয়ার্ক চালু করল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

Comments

comments

Posted ১:০৪ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com