বৃহস্পতিবার ২১শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

গুহায় নেয়া এয়ার ট্যাংক শেষ, প্রহর গুনছে বাকিরা

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   রবিবার, ০৮ জুলাই ২০১৮

গুহায় নেয়া এয়ার ট্যাংক শেষ, প্রহর গুনছে বাকিরা

থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলের গুহায় আটকা ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ উদ্ধারে শুরু হওয়া প্রথম দিনের সফল অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে। প্রথম দফায় ৬ জনকে উদ্ধার করা হলেও এখনো গুহার প্রবেশপথ থেকে চার কিলোমিটার দূরে আটকা আছে বাকি ছয় কিশোর ও তাদের কোচ।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আগামী ১০ থেকে ২০ ঘণ্টার মধ্যে দ্বিতীয় দফায় বাকিদের উদ্ধারে অভিযান শুরু হবে। গুহার ভেতরে নিয়ে যাওয়া অক্সিজেন ফুরিয়ে গেছে। নতুন করে আবারো গুহার বিভিন্ন মোড়ে ও সংকীর্ন পথে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও এয়ার ট্যাংক বসানোর কাজ শুরু হবে সোমবার সকালে।

উদ্ধার মিশনের যৌথ কমান্ড সেন্টারের প্রধান ন্যারংস্যাক ওসোত্তানাকর্ন বলেছেন, আমরা ইতোমধ্যে সব অক্সিজেন ব্যবহার করেছি। নতুন করে অভিযান পরিচালনার জন্য প্রস্তুতি নিতে ১০ থেকে ২০ ঘণ্টা সময়ের প্রয়োজন। তিনি বলেন, গুহার ভেতরে অবশ্যই এয়ার ট্যাংক বসাতে হবে। রোববারের অভিযানকে বড় ধরনের সফলতা হিসেবে উল্লেখ করেছেন ন্যারংস্যাক।

রোববার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় ১৩ বিদেশি ডুবুরি ও থাইল্যান্ডের নৌবাহিনীর অভিজাত শাখা থাই নেভি সিলের পাঁচ সদস্য এই উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৩৭ মিনিটে প্রথম, ৫টা ৫০ মিনিটে দ্বিতীয় এবং এর ১৬ মিনিট পর তৃতীয় কিশোরকে গুহার ভেতর থেকে বাইরে নিয়ে আসা হয়।

এর কিছুক্ষণ পর আরো তিন কিশোরকে উদ্ধার করা হয়। দেশটির উত্তরাঞ্চলের থ্যাম লুয়াং গুহা থেকে উদ্ধারের পর প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন চিকিৎসকরা। পরে দ্রুত সেখান থেকে হেলিকপ্টারযোগে মং জেলার চিয়াংরাই প্রাচ্যানুকরোহ হাসপাতালে নেয়া হয়।

এর আগে, ন্যারংস্যাক ওসোত্তানাকর্ন বলেন, গুহায় আটকা কিশোরদের চারটি গ্রুপে ভাগ করে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়। প্রথম গ্রুপে চারজন এবং দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ গ্রুপে থাকবে তিনজন করে। প্রত্যেক কিশোরকে গুহার আটকস্থান থেকে নিয়ে যাত্রা শুরু করবেন দু’জন ডুবুরি।

বিবিসি বলছে, সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টায় ফের শুরু হবে উদ্ধার অভিযান। নির্ধারিত সময়ের আগেই কিশোরদের উদ্ধারের ব্যাপারে ওই কর্মকর্তা বলেন, আমাদের প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সফল অভিযান পরিচালনা করেছেন ডুবুরিরা। স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে কিশোরদের প্রথম দলটিকে গুহার বাইরে নিয়ে আসার আগে পানির নিচে ডুবে আসতে হয়েছে প্রায় এক কিলোমিটার পথ।

অভিযানের প্রধান এই কর্মকর্তা বলেন, উদ্ধারকারীদের মধ্যে ১০ জন চেম্বার-৯ (যেখানে কিশোররা আটকা আছেন) ও মাঝপথে ঝুঁকিপূর্ণ স্থান হিসেবে চিহ্নিত চেম্বার-৬ এর উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। অন্য তিন ডুবুরি অভিযানে যোগ দিয়েছেন স্থানীয় সময় দুপুর ২টায়।

থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, চীন এবং ইউরোপ থেকে অংশ নেয়া ডুবুরিদের অপর একটি দল গুহার প্রবেশপথ চেম্বার-৩ এ অবস্থান করেন। চেম্বার-২ এবং চেম্বার-৩ এর মাঝে সংকীর্ণ ও উঁচু-নিচু জলমগ্ন পথে রশি বসিয়ে সহায়তা করছে এই দল। দীর্ঘ প্রায় ৪ কিলোমিটার সংকীর্ণ ও উঁচু-নিচু জলমগ্ন পথ পাড়ি দিয়ে এই কিশোররা শেষ পর্যন্ত বের হয়ে আসে। পরে গুহার পাশে অস্থায়ী শিবিরে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর হেলিকপ্টারযোগে সোজা নেয়া হয় প্রাচ্যানুকরোহ হাসপাতালে।

সূত্র : এএফপি, দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি, রয়টার্স।

Comments

comments

Posted ১১:৪৫ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৮ জুলাই ২০১৮

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com