বুধবার ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

বন্যার্ত মানুষের জন্য পর্যাপ্ত সহায়তা দেয়া হবে

চকরিয়ায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে এমপি-ডিসি

মুকুল কান্তি দাশ,চকরিয়া   |   মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯

চকরিয়ায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে এমপি-ডিসি

বৃষ্টিপাত থামার সাথে সাথে চকরিয়ার পাহাড় ঘেষা ইউনিয়নগুলো বেশিরভাগ গ্রাম থেকে পানি নামতে শুরু করেছে। যেখানেই পানি কমছে সেখানেই সড়ক-বাঁধের ক্ষত চিহৃ দৃশ্যমান হয়ে উঠছে। তীব্র ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে মাতামুহুরী নদীতে। অন্যদিকে, উপকুলীয় সাত ইউনিয়নে গ্রামগুলো সোমবার সকাল থেকে নতুনভাবে প্লাবিত হয়েছে। প্লাবিত ও ঢলের তোড়ে সড়ক, বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়া কাকারা ইউনিয়নে সরজমিন পরিদর্শন করেছেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের এমপি আলহাজ্ব জাফর আলম, জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আফসারসহ জেলা-উপজেলাসহ বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা। সোমবার সন্ধ্যায় চকরিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন মোহনায় এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।
জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আফসারের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের এমপি আলহাজ্ব জাফর আলম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহজাহান আলী, পাউবো কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী তয়ন কুমার ত্রিপুরা, এলজিইডি’র জেলার নির্বাহী মাকসুদুল আলম, জনস্বাস্থ কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী ঋত্বিক চৌধুরী, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি এম জাহেদ চৌধুরী, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এম আর মাহমুদ, উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মকছুদুল হক চুট্টু, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন স্তরের সরকারী কর্মকর্তারা।
সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আফসার বলেন, বন্যায় দুর্গত চকরিয়ায় ৪০ হাজার পরিবার পানিবন্দি রয়েছে। তাদের জন্য ২’শ মেট্রি টন চাল ও ৩ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার এবং পেকুয়ায় পানিবন্দি ২০ হাজার পরিবারের জন্য ১’শ মেট্রিকটন চাল ও ১ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ হয়েছে। বন্যা কবলিত কেউ যাতে না খেয়ে না থাকে জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে।
এসময় তিনি বন্যায় ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ নিুরপন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।
সভায় জাফর আলম এমপি বলেন, চকরিয়াবাসির দীর্ঘদিনের দাবি মাতামুহুরী ও শাখাখাল খনন। এই দাবি বাস্তবায়ন করতে ইতিমধ্যেই ৪’শতাধিক কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। আরো বরাদ্দ হবে। এই উপজেলার বানবাসি মানুষ অভাবি নয়। তারা ত্রাণ চাইনা, তাদের দাবি ঢলে ভাঙ্গা রাস্তা-ঘাট ও বাঁধ নির্মাণ করা। সেই দাবি পুরণ করতে বরাদ্দ করা ত্রাণের চাল বিতরণ না করে রাস্তা ও বেড়িবাঁধ নির্মাণ মেরামতে ব্যয় করা হবে। এই বরাদ্দ ছাড়াও যেখানে যা প্রয়োজন ততটুকু বরাদ্দ আনা হবে।

Comments

comments

Posted ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com