• শিরোনাম

    এস আলম গ্রæপের এ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর অনুষ্টানে সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ

    চিকিৎসা সেবায় কক্সবাজার এখন স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে

    দেশবিদেশ রিপোর্ট | ২০ জুলাই ২০২০ | ১২:৩৭ পূর্বাহ্ণ

    চিকিৎসা সেবায় কক্সবাজার এখন স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে

    করোনালয়ে কক্সবাজার জেলাবাসীকে সেবা দিতে এগিয়ে এসেছে দেশের অন্যতম শিল্প উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী প্রতিষ্টান এস আলম গ্রæপ। চট্টগ্রামের এই প্রতিষ্টান এস আলম গ্রæপ কক্সবাজারবাসীর জন্য প্রদান করেছে ২ টি অত্যাধুনিক এ্যাম্বুলেন্স। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন এস আলম গ্রæপের কাছে জেলাবাসীর সেবার জন্য এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের সহযোগিতা চাইলে গ্রæপের পক্ষ থেকে এ্যাম্বুলেন্স ২ টি প্রদান করা হয়।
    এস আলম গ্রæপের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসনের প্রাপ্ত আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্বলিত এ্যাম্বুলেন্স ২ টি গতরাতে আনুষ্টানিক ভাবে হস্তান্তর উপলক্ষে এক জুম কনফারেন্সের আয়োজন করা হয়। অনুষ্টানে একটি এ্যাম্বুলেন্স কক্সবাজার পৌরসভা এবং অন্যটি কক্সবাজার জেলা প্রশাসন পরিচালিত অরূনোদয়কে প্রদান করা হয়েছে। যদিও দু’টি এম্বুলেন্স-ই পৌরসভা পরিচালনা করবে। প্রসঙ্গত গত সপ্তাহে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে এক অনুষ্টানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এস আলম গ্রæপের এ্যাম্বুলেন্স ২টি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (মানবসম্পদ) সরওয়ার কামালের হাতে হস্তান্তর করেছিলেন।
    গতরাত ৮টায় জোম কনফারেন্স এর মাধ্যমে জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমানের হাতে চাবি হস্তান্তর করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব কক্সবাজারের ভূমিপুত্র হেলালুদ্দীন আহমদ। অনুষ্টানে সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, কক্সবাজার দেশের একটি প্রান্তের ছোট্ট জেলা হলেও এটির গুরুত্ব রয়েছে অনেক। করোনালয়ের সময়ে কক্সবাজার জেলা চিকিৎসা সেবায় স্বয়ং সম্পূর্ণতা অর্জণ করেছে বলে তিনি উল্লেখ করে বলেন, দেশের অনেক বড় জেলায়ও কক্সবাজারের মত চিকিৎসা সেবায় আধুনিক সেবায় অনেক পিছিয়ে রয়েছে। তিনি জানান, কক্সবাজার জেলা সদও হাসপাতালে এখন ১০ টি আইসিইউ ও ৮ এইচডিইউ’র মত সুবিধা রয়েছে।
    সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, কক্সবাজারের মহেশখালী ও কুতুবদিয়া দ্বীপবাসীর জন্য অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে নৌ এ্যাম্বুলেন্স। তিনি নৌ এ্যাম্বুলেন্স সংগ্রহের চেষ্টা করার কথাও জানান। এস, আলম গ্রæপের দেয়া এ্যাম্বুলেন্স ২ টির গ্রহণযোগ্য ভাড়া নির্ধারণের পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, সকল শ্রেণীর মানুষ যাতে এসবের সেবা নিতে পাওে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সেই সাথে আসন্ন্ ঈদুল আযহা উপলক্ষে হাট বাজার সহ সবস্থানে লোকজনকে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতাশূলক করার উপর তিনি জোর দেন।
    জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে তাঁর বাংলোয় অনুষ্ঠিত এই কনফারেন্সে অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, সিভিল সার্জন ডাঃ মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ অনুপম বড়–য়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহান আলি, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুদুর রহমান মোল্লা, জেলার সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের, সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ এবং কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়রগণ ও কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ