বৃহস্পতিবার ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ছাদ বাগান বাংলাদেশে শখ এবং উপার্জনের উপায়

  |   বুধবার, ২৭ এপ্রিল ২০২২

ছাদ বাগান বাংলাদেশে শখ এবং উপার্জনের উপায়

দেশবিদেশ ডেস্ক :

বাংলাদেশে প্রধানত শহরগুলিতে বর্তমানে ব্যবহারযোগ্য জমির পরিমাণ কমে যাওয়ায় বৃক্ষরোপণের চাহিদা মেটাতে ও শখ হিসেবে ছাদে বাগান করা একটি বিকল্প উপায় হয়ে উঠছে।

বাংলাদেশের ছাদ বাগানিরা বলছেন, ছাদ বাগানে তাজা ফল ও সবজি উৎপাদন শহুরে নাগরিকদের পরিবারের সদস্যদের পুষ্টির ব্যবস্থা বাড়াবে এবং এটি পরিবেশে ইতিবাচক অবদান রাখবে। বগুড়ার সোনাতলার ছাদ বাগান মালিক আসিফ ইকবাল বলেছেন, “আমি আমার বাগান শুরু করেছি ২০১৪-১৫ সালে ১-২ টি ক্যাকটাস দিয়ে। ক্যাকটাস ১- ২, ২-৪ এবং এভাবে বড় হতে হতে আমি ধীরে ধীরে ক্যাকটাসের প্রতি আরও টান অনুভব করি এবং একটি বড় বাগানের সম্ভাবনা উপলব্ধি করি। আগের চেয়ে বেশি বেশি সংগ্রহ করতে থাকি ক্যাকটাস, বনসাই, বিভিন্ন ধরনের ফুল ও সাজসজ্জার গাছ, যা সাধারণত বিভিন্ন অফিসের ডেস্কে রাখা হয়। এভাবে ধীরে ধীরে আমার গাছের সংগ্রহ বেড়ে উঠে। এখন ২০২২ সালে আমার বাগানটি এই ধরণের মধ্যে সবচেয়ে বড়। আমি নিজেও এখন আমার এত বড় বাগান দেখে অবাক হই।”

তারা আরো বলেন, এ ধরনের কৃষিকাজ আয়ের উৎস হতে পারে এবং বিভিন্ন ধরনের পাখি ও বিরল প্রজাতির পোকামাকড়ের উপস্থিতির মাধ্যমে প্রকৃতিতে জীববৈচিত্র্য সৃষ্টি করতে পারে।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন:

কৃষি বিশেষজ্ঞরা বলেন, একটি ছাদ বাগানের সাফল্যের জন্য একটি মজবুত ছাদ এবং সঠিক পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা প্রয়োজন। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষামূলক ইকো-সেন্টার ও রুফ গার্ডেনের ইনচার্জ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাহবুব ইসলাম জানান, “টেকসই ছাদ বাগান করার জন্য, কয়েকটি পয়েন্ট জানা দরকার। প্রাথমিকভাবে আমাদেরকে ছাদ মজবুত আছে কিনা তা পরীক্ষা করে নিশ্চিত করতে হবে, এতে বাগানের ভার নেওয়ার ক্ষমতা আছে কিনা এবং কোথাও পানি আছে কিনা তা জানা যাবে। ছাদে অবশ্যই সঠিক পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা থাকতে হবে এবং এর জন্য একজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারের সাথে পরামর্শ করা যেতে পারে। ছাদ পুরানো হলে, যথাযথ কংক্রিটিং করে, পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা পরিষ্কার করতে হবে তাহলে ভবনটি ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। কারণ, ভবনটি যদি ছাদ বাগানের জন্য ক্ষতিগ্রস্থ হয়, তবে সে বাগান মানুষ আর চাইবে না।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, “শখ করে, কেউ ছাদের বাগানে কুমড়ো চাষ করতে পারে, এটি একটি ভিন্ন বিষয়। কিন্তু কেউ যদি এটাকে অর্থনৈতিকভাবে টেকসই করতে চায় তাহলে অনেক বিষয় বিবেচনা করতে হবে। কৃষকরা তার জমিতে বিপুল বিনিয়োগ করে সবজি চাষের পর অনেক সময় লাভবান হতে পারেন না। তাই ছাদে লাভজনক এবং বাণিজ্যিকভাবে টেকসই চাষ করার জন্য, মালিককে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যাপারগুলো নিয়ে সতর্ক হতে হবে যেমন শস্য নির্বাচন, ব্যবহৃত উপকরণের খরচ কমানো ইত্যাদি। আর অনুভূমিকভাবে চাষ করা উচিত উল্লম্বভাবে নয় কারণ
ছাদে জায়গা খুবই সীমিত, আমরা যদি অনুভূমিক পদ্ধতি ব্যবহার করি তাহলে চাষের জন্য জায়গা খুব কম পাব। তাই উল্লিখিত সব বিষয় বিবেচনা করেই আমাদের ছাদ বাগানের পরিকল্পনা করতে হবে।

আদেবি/জেইউ।

Comments

comments

Posted ২:৫২ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৭ এপ্রিল ২০২২

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

দশ বছর পর
দশ বছর পর

(1415 বার পঠিত)

(1098 বার পঠিত)

সেই মা সেই ছবি
সেই মা সেই ছবি

(1094 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com