• শিরোনাম

    জীর্ণ বাড়ি থেকে উঠে এসে প্রাসাদ কিনলেন নেহা কক্কর

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ০৭ মার্চ ২০২০ | ৯:১৫ অপরাহ্ণ

    জীর্ণ বাড়ি থেকে উঠে এসে প্রাসাদ কিনলেন নেহা কক্কর

    বলিউডের আলোচিত সংগীতশিল্পী নেহা কক্কর। সামাজিক মাধ্যমে তার জীবনের গল্প নানা সময়ে ভাইরাল হয়েছে৷ এবার ভাইরাল তার নতুন বাড়ির ছবি। সম্প্রতি ঋষিকেশে একটি বিলাসবহুল বাড়ি কিনেছেন নেহা।অথচ এই ঋষিকেশেই আগে একটি জীর্ণ বাড়িতে থাকতেন তিনি।

    সেই জীর্ণ বাড়ি থেকে উঠে এসে হাজার লড়াই করে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছেছেন নেহা। আর সেই লড়াইয়ের কথা ভক্ত-অনুরাগীদের সঙ্গে শেয়ার করতেই চাইলেন তিনি। তাই এমন একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে তিনি শেয়ার করলেন যে ছবির একদিকে সেই পুরনো ভাঙা বাড়ির দরজার সামনে দাঁড়িয়ে আছেন নেহা। অন্যদিকে নতুন বিলাসবহুল বাংলোর সামনে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি।

    এই ছবি শেয়ার করে নেহা লেখেন, এই বাংলোটি আমরা কিনেছি ঋষিকেশে। ডানদিকে দেখুন, দেখতে পাবেন আগে কোন বাড়িতে থাকতাম। ওই বাড়িটিতেই আমার জন্ম। এই বাড়িতে আমরা থাকতাম একটি মাত্র ঘরে। সেখানে একটি মাত্র টেবিলে মা রান্না করতেন। একটি ঘরেই থাকতাম আমরা। ঘরটিও আমাদের ছিল না। আমরা ভাড়া বাড়িতে থাকতাম। আর এখন আমরা নিজেদের বাড়িটি দেখছি, একই শহরে, তবে একটু অন্য ভাবে৷ আমি এমন সময়গুলোতে সত্যি বড় আবেগতাড়িত হয়ে পড়ি।

    এরপর নিজের পরিবারকে ধন্যবাদ জানিয়ে নেহা লিখেছেন, আমার পরিবারকে ধন্যবাদ জানাই। আমার পরিবারকে ধন্যবাদ। সনু কক্কর, টনি কক্কর, মা, বাবা, মাতারানিকে ধন্যবাদ জানাই। ধন্যবাদ জানাই আমার সমস্ত ভক্তদের।

    নেহার সঙ্গে যে বলিউড গায়কের প্রেম নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছিল, সেই আদিত্য নারায়ণ নেহাকে লিখেছেন, ‘নেহা একজন প্রকৃষ্ট উদাহরণ – কীভাবে কঠোর পরিশ্রম, সৌজন্য ও জেদের শক্তিতে সাফল্য আসে।’ অভিনেত্রী রবি দুবে লিখেছেন, ‘নেহার ছবি প্রচণ্ড সাহস জোগায়।’

    নেহা কক্করের শেয়ার করা ছবি দ্রুতই ভাইরাল হয় সামাজিক মাধ্যমে। আর অগণিত ভক্তরাই শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন তাদের প্রিয় শিল্পীকে। এটা যে সংগীতপ্রিয় সকলের জন্যই অনেক প্রেরণাদায়ক একটি ঘটনা, সে কথা একবাক্যে স্বীকার করছেন সকলেই।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    লিজার প্রাণ জুড়ে কে?

    ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ