শুক্রবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

টমটমের তীব্র যানজটে কক্সবাজারের ঈদ বাজার গতি হারাচ্ছে

এম.আর. মাহবুব   |   শনিবার, ০১ জুন ২০১৯

টমটমের তীব্র যানজটে কক্সবাজারের ঈদ বাজার গতি হারাচ্ছে

হাজারো ইজি বাইক/টমটমের অসহনীয় তীব্র যানজটে কক্সবাজারের ঈদ বাজার ন্যুয়ে পড়েছে। প্রত্যহ সকাল থেকে গভীর রাত অবধি শহরের প্রধান সড়ক ছাড়াও অলিতে-গলিতে তীব্র যানজটে নাকাল হচ্ছে ঈদ বাজারমুখী ক্রেতা-সাধারণ, পথচারী ও শহরবাসী। ফলে কক্সবাজারের উন্নয়নের গতি বারবার থমকে যাচ্ছে। মূলত: পর্যটক শূন্য কক্সবাজারের যাবতীয় টমটম ঈদ বাজারমুখী ক্রেতা-ধরতে একযোগে শহরমুখী হওয়ায় প্রত্যহ দুঃসহ যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। যানজট নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশ ও কমিউিনিটি পুলিশ একযোগে কাজ করলেও অনেক স্পটে নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না। প্রাপ্ত তথ্য ও ভূক্তভোগী সূত্রে জানা যায়- আসন্ন ঈদ ও মাহে রমজান হওয়ায় কক্সবাজারের বিশাল আয়তনের হোটেল-মোটেল জোন ও পর্যটন স্পট সমূহ এখন টমটম শূণ্য। দেশী-বিদেশী পর্যটকদের অনুপস্থিতিতে পর্যটকদের উপর নির্ভরশীল টমটম চালকরা বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে রোজির গতি সচল রাখতে ঈদ বাজারমুখী ক্রেতা ধরতে মরিয়া। ফলে একযোগে কক্সবাজারে চলাচলরত লাইসেন্স প্রাপ্ত ও লাইসেন্স বিহীন প্রায় ৭ হাজার টমটম কক্সবাজারের প্রধান শহর ও শহরতলীর অলিতে-গলিতে অবস্থান নিয়েছে। ফলে অসহনীয় যানজট অনিবার্য হয়ে উঠে। বিশেষ করে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, পিটি স্কুল, কালুর দোকান, বার্মিজ মার্কেট, বাজার ঘাটা, আইবিপি রোড়, পানবাজার সড়ক মুখ, রক্ষিত মার্কেট এলাকা, বড়বাজার ও পালের দোকানস্থ পৌরসভা গেইটে ক্ষণে ক্ষণে তীব্র যানজট এখন ঈদ বাজারের সঙ্গী। তবে পান বাজার সড়ক মুখ, বৌদ্ধমন্দির সড়ক মুখ, আইবিপি রোড়, বাজার ঘাটা ও বড় বাজারের যানজট অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এসব যানজট স্থায়ীস্থ কোনো কোনো সময় ঘণ্টা ছাড়িয়ে যাচ্ছে।
পিএমখালীর বাংলাবাজার থেকে স্ব-পরিবারে কক্সবাজার শহরে ঈদ বাজার করতে আসা ডা. খোরশেদ জানান-টমটম নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে ঈদ বাজারের শেষ সময়ে এসে মানুষ অশেষ ভোগান্তিতে পড়বে। বিশেষ করে গ্রামে চলাচলরত লাইসেন্স বিহীন টমটম শহরে ঢুকা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। শহরের প্রধান বাণিজ্যিক মার্কেট এ ছালাম শপিং সেন্টারের পাবনা স্টোরের মালিক মুর্শেদ জানান-মার্কেটে আসতে ক্রোতারা যানজটে পড়ে দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। যা তাদের কথা-বার্তায় স্পষ্ট।
এদিকে কক্সবাজারের সচেতন মহলের মতে ট্রাফিক পুলিশ, কমিউনিটি পুলিশ ও মার্কেট-বিপিনি বিতানের নিয়োজিত লোক সমন্বিত উদ্যোগ নিলে হয়তো ঈদ বাজারের শেষ সময়ের দূর্ভোগের যানজট কিছুটা হলেও লাঘব হবে।

Comments

comments

Posted ২:০০ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০১ জুন ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com