বুধবার ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

টেকনাফে প্রভাশালীর কাছে জিম্মি এক অসহায় পরিবার

বার্তা পরিবেশক:   |   শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১

টেকনাফে প্রভাশালীর কাছে জিম্মি এক অসহায় পরিবার

বার্তা পরিবেশক
টেকনাফে প্রভাবশালীর কাছে জিম্মি হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন একটি অসহায় পরিবার। পরিবারটি ওই প্রভাবশালীদের কাছে নির্যাতিত হয়ে বিচার পাওয়ার জন্য আইন-আদালতের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। থানায় অভিযোগ করে মামলার পরও রেহাই মিলছে না পরিবারটির। প্রভাবশালীরা কালো টাকা খরচ করে জামিন নিয়ে পুনরায় নির্যাতন করছে তাদের। হুমকি-ধমকি ও নানা হয়রানির কারণে অতিষ্ঠ এখন অসহায় পরিবারটি।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, টেকনাফের হোয়াইক্যং লম্বাবিল তেচ্ছি ব্রীজ এলাকার মৃত জামাল হোসেনের পুত্র প্রভাবশালী আমির হোসেন প্রকাশ পেটান, আবদুল গফুরের সন্তান রোজিনা আক্তার, মো. জসিম উদ্দিন, মো. হেলাল উদ্দিন, জামাল উদ্দিনের পুত্র মো. আলী হোসন এবং জসিম উদ্দিনের স্ত্রী পারভীন আক্তার একই এলাকার সামশুল আলমের পুত্র মো. মামুনের পরিবারের সাথে দীর্ঘদিনের জমি সংক্রান্ত জের ধরে গত ৫ জুন মামুনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে আমির হোসেন প্রকাশ পেটান তার দলবল নিয়ে বসতবাড়ির কাঁটাতারের বেড়া কেটে মামুনের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। ওই ঘটনায় আমির হোসেন গং সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে মামুনের বসতবাড়ির আসবাবপত্র ভাংচুর, স্বর্ণের চেইন, মোবাইল ও নগদ টাকাসহ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি করে। এবং মামুনের পরিবারের লোকজনকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার মতো বেদড়ক মারধর ও জখম করে। পরবর্তীতে মামুন টেকনাফ মডেল থানায় এজাহার দায়ের করে মামলা হলেও আসামীরা তাদের প্রভাব ও কালে া টাকা ব্যবহার করে জামিনে মুক্তি হয়ে পুনরায় অসহায় পরিবারটির উপর জুলুম নির্যাতন শুরু করে।

ভুক্তভোগী মো. মামুন বলেন, ‘আমরা এলাকায় অসহায় বলে আমাদের উপর জুলুম নির্যাতন করে জমিগুলো জোরদখল করে নিতে চেয়েছিল আমির হোসন প্রকাশ পেটান গং। সেই বিরোধের জেরে আমার পরিবারের লোকজনকে সবসময় হুমকি-ধমকিতে রাখে তারা। এক পর্যায়ে ৫ জুন আমার বসবাড়িতে ঢুকে সন্ত্রাসী হামলা চালায় তারা। আমাদের মারাত্মক জখম করে বাড়ি থেকে মূল্যবান কাগজপত্র, জিনিসপত্র ও টাকা নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করলে তারা অনেকে জামিন নিয়ে এসে আমাদের উপর পুনরায় হামলার হুমকি-ধমকি ও প্রাণে মেরে ফেলে লাশ গুম করার হুমকি পর্যন্ত দিচ্ছে।’

এই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন মো. মামুন ও তার পরিবারের লোকজন।

Comments

comments

Posted ৯:১৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

দশ বছর পর
দশ বছর পর

(1016 বার পঠিত)

(890 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com