• শিরোনাম

    টেকনাফে ব্র্যাক পরিচালিত জীবিকায়নে সহায়তা ও নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্প পরিদর্শনে ইউএনও

    বার্তা পরিবেশক | ১৫ জানুয়ারি ২০২০ | ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

    টেকনাফে ব্র্যাক পরিচালিত জীবিকায়নে সহায়তা ও নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্প পরিদর্শনে ইউএনও

    টেকনাফ উপজেলার খুনকার পাড়া গ্রামে সোমবার ১৩ জানুয়ারী ব্র্যাক পরিচালিত জীবিকায়নে সহায়তা ও নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রাাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ শওকত আলী, কৃষি কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, ইউপি সদস্য আবদুল গনি, সমাজ সেবক মোঃ সরোয়ার আলম, নূরুল আমিন সহ ব্র্যাকের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বৃন্দ।
    পরিদর্শনকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন- গ্লোবাল এফেয়ার্স কানাডা এর সহায়তায় এবং ব্র্যাক এর বাস্তবায়নে স্থানীয় অতি দরিদ্র মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে। বাংলাদেশ দিন দিন উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এটা সত্যিকার অর্থে একে বারে নিশ্চিত। তিনি আরো বলেন আমি অত্যন্ত খুশি যে, ব্র্যাক প্রত্যন্ত গ্রাম-অঞ্চলে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবযাত্রার মানউন্নয়ন ও তাদের জীবকায়ন সুযোগ বৃদ্ধি ও পাশাপাশি একটি পরিবারকে সামাজিক ও স্বাস্থ্য বিষয়ে যে ধরনের সচেতনতামূলক দিকনিদের্শনা দেওয়া প্রয়োজন তা খুব সুন্দর ভাবে দিয়ে যাচ্ছে। এই ধরনের সেবা মূলক কাজ করার জন্য ব্র্যাকে তিনি ধ্যনবাদ দেন। এ ছাড়াও তিনি আরো বলেন যে, একটি দেশ উন্নতির জন্য সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়, তাই সরকারের পাশাপাশি এনজিওদের ভূমিকা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। ব্র্যাক আলট্রা-পুওর গ্রাজুয়েশন প্রোগ্রাম শুধু আপনাদেরকে গরু, ছাগল, কৃষি সামগ্রী দিয়ে চলে যাইনি এর সাথে ২ বছর ব্যাপী হাতে-কলমে শিক্ষা, চিকিৎসা সেবা ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুর উপর সচেতনতা বৃদ্ধি করে যাচ্ছে। আজকে দেশ উন্নতির দিকে যাওয়ার পিছনে এই প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অবদান অপূরণীয়।
    কৃষি কর্মকর্তা বলেন যে, সাধারন মানুষ সুস্থ্য থাকার জন্য কমপক্ষে ২৫০ থেকে ৪০০ গ্রাম সবজি খেতে হবে, তবে এই সবজি হবে বিষমুক্ত সবজি- অর্থাৎ বিশুদ্ধ সবজি, এই সবজি উৎপাদন করার জন্য সদস্যকে বলেন জৈব সার প্রয়োগ করার জন্য। জৈব সারের প্রস্তুত প্রণালী সম্পকে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তিনি আরো বলেন যে, শাক-সবজি ও ফলমুলের চাহিদা পূরণ করার জন্য বাজারের চড়া দামে বিক্রিত ফলের উপর নির্ভর না করে নিজের উদ্যোগে বসত ভিটা ও আঙ্গিনায় সবজি চাষ এবং ফলের গাছ লাগানোর জন্য পরামর্শ দেন এত করে নিজেও সুস্থ্য থাকার পাশাপাশি পরিবারের আয় ও বৃদ্ধি পাবে।
    উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার বলেন, গবাদি প্রাণিকে সুস্থ্য রাখার জন্য টিকা প্রদান করতে হবে, কারন একই এলাকায় যদি একটি গরু আক্রান্ত হয় তাহলে এলাকার প্রত্যক গবাদি প্রাণির রোগ ছড়িয়ে পড়ে- বিশেষ করে ক্ষুরা রোগ। তাই শুধু ব্র্যাক কর্তৃক প্রদানকৃত গবাদি প্রাণিকে টিকা দেওয়ার পাশাপাশি স্থানীয় সকল গবাদি প্রাণিকে একসাথে টিকা প্রদান করতে হবে। তিনি আরো বলেন, পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণে ডিম ও গরুর দুধের প্রতি বেশি গুরুত প্রদান করেন। উক্ত ভিজিটে ব্র্যাকের দক্ষিণ খুনকার পাড়ার ৫২ জন উপকার ভোগী সদস্য তাদের বিভিন্ন উন্নতির দিকগুলো তুলে ধরেন। ব্র্যাকের পক্ষ থেকে সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার আবু কায়ছার সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ