মঙ্গলবার ১৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

তুমব্রু সীমান্তে সেতুর নিচে ‘নেট’ এখন আতংক

শফিক আজাদ,সীমান্ত থেকে ফিরে   |   রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯

তুমব্রু সীমান্তে সেতুর নিচে ‘নেট’ এখন আতংক

তুমব্রু সীমান্তের অভ্যান্তরে শূণ্যরেখায় সেতুর নিচে লোহার নেট এখন কোনারপাড়ার স্থানীয় বাসিন্দা ও শূণ্যরেখার রোহিঙ্গাদের আতংকের বিষয় বস্তু হয়ে দাড়িয়েছে। বিজিবি’র বাধার মূখে পুরোদমে এগিয়ে চলছে নেট তৈরীর কাজ। এ নিয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে একাধিকার বৈঠকের আহবান করলেও কোন ছাড়া দেচ্ছেনা মিয়ানমার বিজিপি। এ নিয়ে সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এছাড়াও স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম আতঙ্ক। বুধবার সকালে সীমান্ত ঘুরে এমন পরিস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।
শূণ্যরেখার রোহিঙ্গা নেতা দিল মোহাম্মদ জানিয়েছেন, মিয়ানমার সেনা,বিজিপিথর সদস্যরা শূণ্যরেখার রোহিঙ্গাদের সরাতে বারবার নানা অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য সীমান্তে দেশটির অভ্যন্তরে ঘন ঘন গুলিবর্ষণ, অস্ত্র উঁচিয়ে হুমকি, রাতে সীমান্তে সৈন্য সমাবেশ ঘটানো হচ্ছে। তারপরও নিজ দেশ মিয়ানমারে ফিরে যাওয়া ছাড়া শূন্যরেখা ছাড়তে রাজি নন রোহিঙ্গারা। বর্তমানে সেতুর নিচে নেট তৈরী করায় আতংক সৃষ্টি হয়েছে বলে সে দাবী করেন।
স্থানীয় ছৈয়দুল বশর নামের এক যুবলীগ নেতা জানান, গত কয়েকদিন শূণ্যরেখার তুমব্রু রাইটের উত্তরে ব্রিজের নিচে নেট তৈরীর কাজ শুরু করেছে মিয়ানমার। বাংলাদেশের বিজিবি পক্ষ থেকে বারবার প্রতিবাদ করা হলেও মিয়ানমার পুরোদমে কাজ এগিয়ে নিচ্ছে ।
ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান একে জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, তুমব্রু খালে ব্রিজ নির্মাণের কারনে উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় রয়েছে রোহিঙ্গা ও স্থানীয়রা। ব্রিজের নিচে লোহার রড দিয়ে নেট তৈরী করার কারনে আতংক দেখা দিয়েছে স্থানীয় ও শূণ্যরেখার রোহিঙ্গাদের মাঝে।
কক্সবাজার ৩৪ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ জানান, ব্রিজটি মিয়ানমারের অভ্যান্তরে হওয়ার কারনে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। আমাদের পক্ষ থেকে এনিয়ে প্রতিবাদ অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট পর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনে পালিয়ে এসে শূণ্যরেখায় আশ্রয় নেয় প্রায় সাড়ে ৪ হাজার রোহিঙ্গা। এসব রোহিঙ্গাদের রেডক্রস মানবিক সহায়তা দিয়ে আসছে। তাদেরকে সরাতে মূলত এটি ফাঁদ পেতেছে বলে জানিয়েছেন রোহিঙ্গারা।

Comments

comments

Posted ১:০৬ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com