• শিরোনাম

    দুই টালি সুন্দরীর বাংলাদেশ মিশন

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ৯:৫৪ অপরাহ্ণ

    দুই টালি সুন্দরীর বাংলাদেশ মিশন

    নুসরত জাহান, সায়ন্তিকা ব্যানার্জি

    নুসরত জাহান টালিগঞ্জের বর্তমান হার্টথ্রব নায়িকা। সায়ন্তিকা ব্যানার্জিও কম যান না! শাকিব খানের হাত ধরে ঢালিউডে অভিষেকের অপেক্ষায় দুজনই। কাল বাংলাদেশে মুক্তি পাবে ‘নাকাব’। ছবির দুই নায়িকার সঙ্গে কথা বললেন কালের কণ্ঠ’র কলকাতা প্রতিনিধি অনিতা চৌধুরী
    দুই নায়িকারই মনটা খুব খারাপ। ২১ সেপ্টেম্বর দুই দেশে একসঙ্গে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ‘নাকাব’। কিন্তু না, পশ্চিমবঙ্গে হলেও সময়মতো রিলিজ হলো না বাংলাদেশে। এক সপ্তাহ পর আগামীকাল মুক্তি পাচ্ছে এখানে। মন খারাপের আরেকটা কারণ আছে। ছবির প্রাচারণায় বাংলাদেশে আসতে চেয়েছিলেন দুই নায়িকা, কিন্তু পারেননি। নুসরত বলেন, ‘আমি তো রেডিই ছিলাম। শেষ মুহূর্তে কিছু একটা হয়েছে, তাই ক্যানসেল করতে হয়েছে। বাংলাদেশে কোনো দিন যাইনি, তাই খুব এক্সাইটেড ছিলাম, সুযোগটা মিস হলো।’

    একই অনুযোগ সায়ন্তিকার, ‘মায়ের পূর্বপুরুষরা ওখানকার। তবু কোনো দিন যাইনি। অনেক আশায় ছিলাম এবার যেতে পারব, কিন্তু হলো না।’

    শাকিব খানের বিপরীতে প্রথমবার অভিনয় করলেন দুজন। এই নায়ককে নিয়ে উচ্ছ্বাস ঝরে পড়ল দুজনের মুখেই। সায়ন্তিকা বলেন, ‘আমি জানি বাংলাদেশের জনপ্রিয়তম সুপারস্টার শাকিব। কিন্তু ওকে স্টারিজম ফলাতে একেবারেই দেখিনি, নেই কোনো ইগো। সবচেয়ে ভালো লেগেছে ওর ডিসিপ্লিন আর ডেডিকেশন। অনেক কিছু শিখেছি ওর কাছে।’

    নুসরত বলেন, ‘ছবিটা করতে গিয়ে ওর সঙ্গে সখ্য গড়ে উঠেছে। আমার বলতে দ্বিধা নেই, বাংলাদেশের অভিনেতাদের মধ্যে আমার ফেভারিট শাকিবই।’

    কাজের সূত্রে বাংলাদেশের অনেক তারকাই নুসরতের চেনা আর তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগটাও হয় নিয়মিত। “এইতো সেদিন ফেরদৌস ভাইয়ের সঙ্গে দেখা হলো, অনেক গল্প করলাম। জয়া আহসান, নুসরাত ফারিয়াকেও ভালো চিনি। জয়াদির সঙ্গে তো এখানে ছবিও করেছি, ক্রিসক্রস”—বললেন নুসরত।

    ‘নাকাব’-এর আউটডোর শুটিং হয়েছে থাইল্যান্ডে। সেখানকার শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা বললেন সায়ন্তিকা, ‘অভিজ্ঞতা খুব ভালো, কিন্তু বৃষ্টি খুব ভুগিয়েছে। অনেক সময় সারা দিন অপেক্ষা করে বসে থেকেছি, কখন বৃষ্টি থামবে। আর ওই সময়ে জমে উঠত আড্ডা।’

    বাংলাদেশের খাবার, ঘোরার জায়গা, দুই দেশের রাজনীতি, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা—সবই ঘুরেফিরে আসত আড্ডায়। ‘আমরা ভাবতাম সিনেমা হিট হলে সেলিব্রেট করব বাংলাদেশের ফাটাফাটি কোনো একটা জায়গায়’—বললেন সায়ন্তিকা।

    বাংলাদেশের ছবির বিষয়েও ওঁদের বেশ আগ্রহ। দুই নায়িকা একেবারে খোলা মনে জানালেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের যত ফলোয়ার, তার বেশির ভাগই বাংলাদেশের মানুষ। তাই সুযোগ পেলে ঢালিউডের ছবি করার জন্য ওঁরা প্রস্তুত। ‘ভালো স্ক্রিপ্ট, ভালো রোলের অফার পেলেই করব’—যোগ করলেন নুসরত।

    তবে দুজনের কারো হাতেই এমন কোনো অফার এই মুহূর্তে নেই। আশা করছেন শিগগিরই বাংলাদেশে আসতে পারবেন। ‘ডিজিটাল মিডিয়ায় যারা আমাদের এত ভালোবাসে, সামনাসামনি সেটা দেখার অপেক্ষায় আছি বলতে পারেন’—বললেন সায়ন্তিকা।

    আর ‘নাকাব’? কেমন করবে ছবিটা? ‘ছবিটা কিন্তু বাংলাদেশের দর্শকদের জন্যই বানানো। শাকিব খান আছেন, দুই বাংলার মানুষ অনেক ভালোবাসে আমাদের দুই নায়িকাকে। দারুণ চলবে আশা করছি।’

    Comments

    comments

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ