• শিরোনাম

    শান্তি সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত কক্সবাজার সৈকতের বিজয়া উৎসব

    দেশের বৃহৎ প্রতিমা বিসর্জনে লাখো মানুষের মিলনমেলা

    দীপক শর্মা দীপু | ০৯ অক্টোবর ২০১৯ | ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

    দেশের বৃহৎ প্রতিমা বিসর্জনে লাখো মানুষের মিলনমেলা

    প্রতিমা বিসর্জনকে ঘিরে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকা জুড়ে লোকে লোকারন্য হয়ে উঠে। মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয় সৈকত বালিয়াড়ি। পূজারি, ভক্ত, দর্শানার্থী,পর্যটকসহ সকল সম্প্রদায়ের মানুষের মহামিলন মেলায় পরিণত হয়েছে । লাখো মানুষের অসাম্প্রদায়িক মিলনোৎসব হয় কক্সবাজার সৈকতে। ঢাক,ঢোল, কাঁসরের তালে আরতির বাদ্য বাজনায় ‘মা দুর্গার জয়’ শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে সাগরতট
    সৈকতের বৃহৎ প্রতিমা বিসর্জন অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে দেশের বৃহৎ প্রতিমা বিসর্জন উৎসবকে ঘিরে মানুষের সম্প্রীতি আর উচ্ছ্বাস প্রমাণ করে বাংলাদেশ শান্তি সম্প্রীতির দেশ। কক্সবাজার সৈকতের এই উৎসব সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মহামিলন উৎসব। সমুদ্র সৈকতের এই ভেন্যু সকল সম্প্রদায়ের উৎসবের সার্বজনিন ভেন্যুতে পরিনত হয়েছে।

    জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রনজিত দাশের সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক বাবুল শর্মার সঞ্চালনায় বিজয়া দশমীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, এমপি আশেক উল্লাহ রফিক, এমপি কানিজ ফাতেমা আহমেদ, জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, কক্সবাজার ট্যুরিষ্ট পুলিশের পুলিশ সুপার জিল্লুর রহমান, কক্সবাজার উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল (অব) ফোরকান আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, , হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি অধ্যাপক প্রিয়তোষ শর্মা চন্দন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম।

    জেলা পূজা কমিটির সহ সভাপতি রতন দাশ, উদয় শংকর পাল মিঠু, যুগ্ন সম্পাদক সরুপম পাল পাঞ্জু ও পৌর পূজা কমিটির সভাপতি বেন্টু দাশ নেতৃত্বে পৌর শহরের প্রতিমা নিয়ে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা সৈকতে বিসর্জনে আনা হয়। একইভাবে সদর উপজেলা পূজা কমিটির সভাপতি দীপক দাশ, সাধারণ সম্পাদক বাবলা পাল, রামু উপজেলা কমিটির সভাপতি তপন মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক সজীব শর্মা, উখিয়া উপজেলা পূজা কমিটির সভাপতি স্বপন শর্মা রনি, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রবীন্দ্র দাশ রবি, পেকুয়া উপজেলা পূজা কমিটির সভাপতি সুমন বিশ^াস, চকরিয়া উপজেলা পূজা কমিটির সভাপতি তপন কান্তি দাশ, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, চকরিয়া পৌর পূজা কমিটির সভাপতি টিটু বসাক, সাধারণ সম্পাদক নিলোৎপল দাশ, মহেশখালি পূজা কমিটির সভাপতি মাস্টার বজ্রগোপাল , টেকনাফ পূজা কমিটির সভাপতি শিবু প্রসাদ ভট্রাচার্য্য এর নেতৃত্বে স্ব স্ব এলাকার প্রতিমা কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে প্রতিমা বিসর্জনে আনা হয়। কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পূজার প্রতিমা আনা হয় জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের কর্মকর্তা বিপুল সেন ও উজ্জ্বল সেন এর নেতৃত্বে।

    এবারের প্রতিমা বিসর্জনে বান্দরবান নাইক্ষংছড়ির প্রতিমাসহ কক্সবাজার জেলার ১০৩ টি প্রতিমা সমুদ্রে বিসর্জন দেয়া হয়। হাজার হাজার ভক্তরা শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিসর্জন মন্ত্রের মাধ্যমে মা দুর্গাসহ অন্যান্য দেব দেবীর প্রতিমা সাগরে নিরঞ্জন করা হয়।সভার শুরুতে ইস্কন কক্সবাজারের সভাপতি রাধাগোবিন্দ প্রভু পবিত্র গীতা পাঠ করেন আর সরস্বতি বাড়ির পুরোহিত স্বপন ভট্রাচার্য্যের বিসর্জন মন্ত্র পাঠের মাধ্যমে প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন করা হয়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ