• শিরোনাম

    কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ

    নেতাকর্মীরা সজাগ থাকলে বিতর্কিতরা দলীয় পদে আসার সুযোগ নেই

    বার্তা পরিবেশক | ২৯ অক্টোবর ২০১৯ | ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

    নেতাকর্মীরা সজাগ থাকলে বিতর্কিতরা দলীয় পদে আসার সুযোগ নেই

    জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডঃ সিরাজুল মোস্তফা বলেছেন, আওয়ামী লীগের তৃণমুলের নেতাকর্মীরা সজাগ থাকলে দলে অনুপ্রবেশের কোন সুযোগ নাই। আওয়ামী লীগ সব সময় ত্যাগী নেতাকর্মীদের নিয়েই রাজনীতি করে। এরাই দলের প্রাণ। যারা দলের জন্য পরিশ্রম করে তারাই শেখ হাসিনার আপনজন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব এদের হাতেই থাকবে। নবাগতদের আপনারা কাউন্সিলে প্রত্যখান করুন। দলে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে এটি শুধু শহর কেন্দ্রিক নয় এটি উপজেলা পর্যায়েও বাস্তবায়ন হবে। গতকাল বেলা ১২টায় কুতুবদিয়া ইরহাম কমিউনিটি সেন্টারে কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

    প্রধান বক্তার বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান মেয়র বলেন, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন এর বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। কোন বিতর্কিত ব্যক্তি আওয়ামী লীগের দায়িত্ব পাবে না, তা নিয়ে সন্দেহ করার কিছু নেই। সারা জীবন দলের ত্যাগ করে আসবে একজন আর সম্মেলনের সময় পদ দখল করে নেবে একজন এটি আওয়ামী লীগে হবে না। এ সব লোকের জন্য আওয়ামী লীগ অনেক মুল্য দিতে হয়েছে। তাই আনুপ্রবেশকারীদের আর সুযোগ নেই। এখন ত্যাগী ও পরিশ্রমি নেতাকর্মীদের সন্ধানে আওয়ামী লীগে কাজ করছে।
    বিশেষ অতিথি’র বক্তব্যে আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেন, আওয়ামী লীগই একমাত্র সংগঠন যেখানে দলের তৃণমুলের নেতাকর্মীদের মুল্যায়ন হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এমন একটি নির্দেশনা ইতোমধ্যে দিয়েছেন। আমরা নতুন সদস্য সংগ্রহ করব, তবে বিতর্কিত কাউকে নয়। দলের ত্যাগী ও পরিশ্রমিদের অবমুল্যায়ন করে নয়। যারা দলে বিভিন্ন সময় অবহেলিত তাদেরকেও আমরা নেতৃত্বে নিয়ে আসতে চাই। এতে সজাগ থাকতে হবে তৃণমুলের নেতাকর্মীদের। আপনারাই নেতৃত্ব সৃষ্ট করবেন।

    উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুচ্ছফা বিকম’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডঃ ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী। সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক মুকুল, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডঃ রণজিত দাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সময়বায় ও কৃষি বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম কুতুবী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক এডঃ তাপস রক্ষিত, জেলা জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক এম এ মনজুর, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য শফিউল আলম কুতুবী, কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা হাজি মোহাম্মদ আবু তাহের, মাহবুবুল আলম মাতবর, মৌঃ মোহাম্মদ তাহের, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির সিকদার, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী সৈয়দা মেরুন্নেছা, শেখ শহিদুল ইসলাম লালা, বড়ঘোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম, আলী আকবর ডেইল আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর সিকদার, কৈয়ারবিল আওয়ামী লীগের আহবায়ক আজমগীর মাতবর, যুগ্ম আহবায়ক মোসলেম উদ্দিন, লেইমশী খালী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, দক্ষিণ ধুরুং আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহের হোসেন, ধুরুং আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিউল মোরশেদ চৌধুরী। সভায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন মৌঃ সিরাজুল ইসলাম।

    সভায় অতি ধ্রুত কুতুবদিয়া উপজেলায় ৫৪টি ওয়ার্ডের সম্মেলন ও কাউন্সিল সম্পন্ন করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল নেতৃবৃন্দ ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ