মঙ্গলবার ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

বাসাবাড়ির অতিথি অনেক পর্যটক

পর্যটকে টইটম্বুর কক্সবাজার শহর

দীপক শর্মা দীপু   |   শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

পর্যটকে টইটম্বুর কক্সবাজার শহর

কক্সবাজারে এবার আবাসিক হোটেলের ধারণ ক্ষমতার বেশী পর্যটক এসেছে। সাড়ে চার শতাধিক আবাসিক হোটেল মোটেল গেষ্ট হাউসে ২ লাখ পর্যটক আবাসনের ধারণ ক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু পর্যটক এসেছে ৩ লাখের কাছাকাছি। অতিরিক্ত পর্যটকরা স্থানীয় বিভিন্ন বাসাবাড়িতে মেহমান হিসেবে অবস্থান নিয়েছেন।
টানা তিন দিনের ছুটিতে প্রায় ৩ লক্ষ পর্যটকে মুখরিত পর্যটন রাজধানী খ্যাত কক্সবাজার। হোটেল-মোটেল-গেস্ট হাউজে সংকুলান না হয়ে অনেক পর্যটক স্থান নিয়েছে বিভিন্ন বাসাবাড়িতে। আগত এসব পর্যটকরা বিশ্বের দীর্ঘতম কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পাশাপাশি বিভিন্ন পর্যটন স্পটে ঘুরে বেড়াচ্ছেন মনের আনন্দে। পর্যটকদের নিরাপত্তায় ৬ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে মোবাইল টিম, ট্যুরিস্ট পুলিশ, জেলা পুলিশ ও সাদা পোশাকে গোয়েন্দা সদস্য সহ কয়েক স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
পর্যটন রাজধানী খ্যাত কক্সবাজার বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের কারণে অনেকের কাছেই স্বপ্নের শহর। সমুদ্রের ঢেউয়ের লোনা জলে গা ভাসানো আর বালুকা বেলায় দাঁড়িয়ে সুর্যাস্ত দেখতে পর্যটন মৌসুমে কক্সবাজারে ছুটে আসেন কয়েক লাখ পর্যটক। টানা তিন দিনের ছুটিতে ৩ লক্ষাধিক পর্যটক কর্ম ব্যস্থতা ফেলে পরিবার পরিজন নিয়ে কক্সবাজারে অবকাশ যাপন করছেন। সাড়ে ৪ শতাধিক হোটেল-মোটেল-গেস্ট হাউজে সংকুলন না হয়ে অনেক পর্যটক স্থান নিয়েছে বিভিন্ন বাসাবাড়িতে। ভ্রমন পিপাসু এসব পর্যটকরা সমুদ্র সৈকতের পাশাপাশি সমুদ্র ভ্রমন, প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন, মেরিনড্রাইভ সড়ক, দরিয়ানগর পর্যটন স্পট, হিমছড়ি, ইনানী, ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক, মহেশখালী, সোনাদিয়া সহ বিভিন্ন স্পটে মনের আনন্দে ঘুরে বেড়াচ্ছে। সৈকতের বেলাভূমির পাশাপাশি প্রাকৃতিক অপরুপ সৌন্দর্য্য উপভোগ করে অভিভূত পর্যটকরা।
নারায়নগঞ্জ থেকে আসা কলেজ ছাত্র নাইম উদ্দিন জানান, তারা ৮ জন বন্ধু বেড়াতে এসে আবাসিক হোটেল না পেয়ে বিপাকে পড়ে যায়। পরে এক হোটেল ম্যানেজার তাদের একটি বাসায় থাকার ব্যবস্থা করে দেন।
আবাসিক হোটেলের ম্যানেজার কলিম উল্লাহ জানান, তিনি শতাধিত পর্যটকদের শুধূ রাতের জন্য বিভিন্ন অফিসে ও বাসায় রেখেছেন। এ জন্য এসব পর্যটকদের কাছ থেকে সামান্য টাকা নেয়া হয়েছে। যাতে এই টাকায় পরিস্কার পরিচ্ছন্নসহ তাদের সেবা করা যায়।

Comments

comments

Posted ১:৫৭ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com