• শিরোনাম

    পাঠ্যপুস্তক নিয়ে দুর্নীতি, এনসিটিবির বিরুদ্ধে মামলা

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ২৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৮:০২ অপরাহ্ণ

    পাঠ্যপুস্তক নিয়ে দুর্নীতি, এনসিটিবির বিরুদ্ধে মামলা

    বিনামূল্যের বইয়ে নিম্নমানের কাগজ ব্যবহার করে প্রতিবছর ১৬০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মামলা করেছে কনজ্যুমারস অ্যাসেসিয়েশন-ক্যাব। মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত করে দুদককে এক মাসের মধ্যে রিপোর্ট দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত। দুদকের আইনজীবী জানান, বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন তারা।

    ২০১০ সাল থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের বই শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করে আসছে সরকার।

    ভোক্তা অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন ক্যাব বলছে, বইয়ে যে মানের কাগজ ব্যবহারের বিধান রয়েছে তার চেয়ে নিম্নমানের কাগজ ব্যবহার করে আসছে এনসিটিবি। যেটি বিএসটিআই এবং সায়েন্স ল্যাবরেটরির পরীক্ষায় প্রমাণিত।

    সংস্থাটির আইনজীবী জানান, এতে প্রতিবছর দেড় শতাধিক কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে। বিষয়টি দুদক ও এনসিটিবিকে জানানো হলেও কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় বাধ্য হয়েই হাইকোর্টে মামলা করেছেন তারা।

    ক্যাবের আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোর্তিময় বড়ুয়া বলেন, টেন্ডার ডকুমেন্টের নিয়ম অনুযায়ী যে মানের কাগজ দেয়া আছে, সে কাগজ ব্যতীত নিম্নমানের কাগজ দিয়ে পাঠ্যপস্তুক ছাপানো হয়েছে। সেখানে আমরা হিসাব করে দেখেছি যে বছরে প্রায় ১৬০ কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে। তাই দুদককে আগামী তিন মাসের মধ্যে তদন্ত করে এ বিষয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

    দুদকের আইনজীবী জানান,বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করে যথাসময়ে রিপোর্ট দেয়া হবে।

    দুদকের আইনজীবী বলেন, হাইকোর্টে নির্দেশনা অনুযায়ী দুদক তদন্ত করবে। এবং হাইকোর্টের দেয়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ওই প্রতিবেদন দুদক জমা দেবে।

    বই মুদ্রণ এবং প্রস্তুতের যাবতীয় কাজ করে থাকে ন্যাশনাল কারিকুলাম এবং টেক্সবুক বোর্ড-এনসিটিবি।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    মাতারবাড়ী ঘিরে মহাবন্দর

    ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ