বুধবার ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পুলিশ লাইন

পুলিশ লাইনের পাশে ছরা আর পাহাড় দখল করে স্থাপনা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯

পুলিশ লাইনের  পাশে ছরা আর পাহাড় দখল করে স্থাপনা

কক্সবাজার শহরের বাইপাস সড়কস্থ পুলিশ লাইনের পাশে ছরা ও পাহাড় দখল করে আস্তানা গড়ে তুলেছে জনৈক রফিক। আর এসব আস্তানায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে। পতিতা, মাদকসহ নানা অপতৎপরতা চলছে এসব আস্তানায়। এসব নানা অপকর্মকান্ডের কারনে পুলিশ লাইনের নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বাইপাস সড়কস্থ পুলিশ লাইনের সাথে লাগোয়া দক্ষিন পাশের একটি ছরার উপর টিনসেট পাকা স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে। ছরা দখল করে গড়ে উঠা এই স্থাপনাটি প্রায় ১০০ ফুট দীর্ঘ। একইভাবে পুলিশ লাইনের সীমানার সাথে লাগোয়া আরেকটি সেমি পাকা দীর্ঘ স্থাপনা নির্মান করা হয়েছে। সরকারি খাস জমিতে জবর দখল এসব আস্তানা নির্মান করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, জনৈক রফিক উকিল নামের এক ব্যক্তি রাতের আঁধারে এসব স্থাপনা তৈরি করে। একদিকে পাহাড় কেটে অন্যদিকে ছরা দখল করে এসব স্থাপনা গড়ে তোলা হয়। সম্প্রতি অবৈধভাবে সরকারি জমি দখল করে গড়ে তোলা এসব স্থাপনায় দিনের বেলায় তেমন কোন মানুষ না থাকলেও রাতে সন্দেহজনক অপরিচিত মানুষের আনাগোনা বেড়ে যায়। এতে করে স্থানীয়রা আতংকে রয়েছেন।

স্থানীয়রা সন্দেহ করছেন, কোন জঙ্গি তৎপরতা বা অবৈধ কোন কর্মকান্ড এসব স্থাপনায় চলছে। অনেকে বলছেন পতিতা ব্যবসা ও মাদক ব্যবসার ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে রফিকের এসব আস্তানা।
এসব আস্তানায় সন্দেহভাজন কর্মকান্ডের কারনে জেলা পুলিশ লাইনের নিরাপত্তা হুমকির মধ্যে পড়তে পারে বলে আশংকা করছেন সচেতনমহল। এ ব্যাপারে জেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি সাংবাদিক তোফায়েল আহমেদ জানান, সরকারি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার পাশে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলা হলে সে ব্যাপারে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। কারন এসব স্থাপনা থেকে হামলা বা দুর্ঘটনার কবলে পড়তে পারে সরকারি স্থাপনা। আর পুলিশ লাইন সরকারের অতি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। পুলিশ লাইনে রয়েছে অস্ত্রাগার, আর হাজার হাজার রিজার্ভ পুলিশ সদস্য। এর পাশে অবৈধভাবে আস্তানা গড়ে উঠায় হুমকির মুখে পড়তে পারে পুলিশ লাইন। কারন পুলিশ লাইনের পাশে সন্ত্রাসী, জঙ্গি বা অপরাধীরা লুকিয়ে থেকে বিষ্ফোরন ঘটাতে পারে। তাই তিনি এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

Comments

comments

Posted ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com