বৃহস্পতিবার ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

পৌর এলাকায় পানি সংকট দূরীকরণে মেয়রের উদ্যোগ

দীপক শর্মা দীপু   |   শুক্রবার, ১০ মে ২০১৯

পৌর এলাকায় পানি সংকট দূরীকরণে মেয়রের উদ্যোগ

কক্সবাজার পৌরশহরের বৃহত্তর পেশকারপাড়াসহ ৫টি মহল্লায় পৌরসভার নিয়মিত পানি সরবরাহ নেই। দেড়মাস ধরে পানির জন্য হাহাকার করছে ৫ মহল্লার প্রায় ৭ হাজার পরিবার।
একদিকে অসহ্য গরম অন্যদিকে লোডশেডিং আর এর মধ্যে পানি সংকটে থাকা পৌরশহরের বাঁকখালী নদীর উপকুলীয় ৫ মহল্লার মানুষদের চরম দুর্বিষহ জীবন কাটাতে হচ্ছে। দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ পত্রিকায় এমন সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর পৌরশহরের পানি সংকট নিরসনে এগিয়ে এসেছেন পৌর পিতা মুজিবুর রহমান। তিনি গতকাল ১০ মে কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনালে উন্নতমানের পাম্প উদ্বোধন করেন।
এসময় মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, ঘন্টায় ৪৮ হাজার লিটার পানি দেয়ার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এ পাম্পটি বসানোর ফলে পৌরসভার বিশাল একটি জনগোষ্ঠির দীর্ঘদিনের পানি সংকটের সমস্যা সমাধান হবে। বিশেষ করে কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল, টেকপাড়া, নুরপাড়া, পেশকারপাড়া, ফুলবাগ সড়ক, বড় বাজারসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকার বাসিন্দারা নিরবিচ্ছিন্নভাবে এ পাম্পের পানি সুবিধা ভোগ করবে। পাশাপাশি আরো ৪টি পাম্প স্থাপনের কাজ চলমান রয়েছে উল্লেখ করে ধারাবাহিকভাবে সব জায়গায় চলমান পানি সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে প্রয়োজনমতো উন্নতমানের পাম্প বসিয়ে পৌরবাসীর শতভাগ সেবা নিশ্চিত করার উপর গুরুত্বারূপ করেন মেয়র।
পরে দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে সুইস টিপে আনুষ্ঠানিকভাবে পাম্প চালু করেন পৌরপিতা। এসময় কক্সবাজার পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী ও পানি সুপার ইঞ্জিনিয়ার টিটন দাশ, বিল ক্লার্ক আবদুল্লাহ, পাম্প চালক ফেরদৌস ও আবদুর রশিদসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে মেয়রের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন পানি সংকটে থাকা পৌরশহরের বৃহত্তর পেশকারপাড়া, নুর পাড়া, হাঙ্গরপাড়া, উত্তর টেকপাড়া, ফুলবাগ, মাঝের ঘাট এলাকার মানুষ। ভুক্তভোগি এসব এলাকাবাসী জানান, যুগযুগ ধরে এসব এলাকায় পানি সংকট রয়েছে । পৌরসভার আগের মেয়ররা পানি সংকটের সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। বাঁকখালী নদীর পাশের এলাকাগুলোতে নলকুপে লবনাক্ত পানি ছাড়া ভালো পানি পাওয়া যায়না। সবসময় খাওয়া পানি কিনে পান করতে হয়। তখন পৌরসভার লাইনের পানি গৃহস্থলী অন্যান্য কাজে ব্যবহার করা হতো। আর গ্রীস্মকাল আসলেই পৌরসভার লাইনের পানি নিয়মিত সরবরাহ না হওয়ায় খাবারের পানির সাথে সাথে ব্যবহারের পানিও কিনতে হয়। এমন অবস্থায় মেয়র মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে পানি সংকট দূরীকরণ হলে তা হবে মাইলফলক সফলতা। আর এই কারনে মেয়র মুজিব ভুক্তভোগি এলাকাবাসীর মনের মানুষ হয়ে থাকবেন।

Comments

comments

Posted ১১:৫৯ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১০ মে ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com