• শিরোনাম

    প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের জন্য ২ ডজন নির্দেশনা

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ১৬ আগস্ট ২০২০ | ৭:১৮ অপরাহ্ণ

    প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের জন্য ২ ডজন নির্দেশনা

    প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ থেকে রক্ষায় ২৪ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

    অধিদপ্তরে দর্শানার্থী সীমিতকরণ, বাইরের খাবার পরিহার, ই-নথি ব্যবহারসহ বেশকিছু সতর্কতা দিয়ে রোববার (১৬ আগস্ট) নির্দেশনা দেওয়া হয়।

    কোভিড-১৯ মোকাবিলায় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ভিজিল্যান্স টিমের গত ১২ আগস্টের সভায় এসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

    নির্দেশনাসমূহ:
    ১. প্রত্যেক কর্মকর্তা-কর্মচারী পরিবহন ও দপ্তরে সার্বক্ষণিক মাস্ক ব্যবহার করুন। ২. শারীরিক তাপমাপার যন্ত্র (থার্মো গান) দিয়ে আপনার শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করুন। ৩. নিজের মধ্যে কোভিড-১৯ এর কোনো লক্ষণ পরিলক্ষিত হলে তাৎক্ষণিক কর্তৃপক্ষকে অবহিত করুন এবং কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা যথাযথভাবে মেনে চলুন। ৪. জীবাণুনাশক স্প্রে দ্বারা অফিসের দরজা, আলমিরার হ্যান্ডেল, হাতল, লক, চেয়ার, টেবিল, বৈদ্যুতিক সুইচ ইত্যাদি পরিষ্কার রাখুন।

    ৫. বাইরে থেকে সরবরাহ করা প্যাকেটের নাস্তা/খাবার যতদূর সম্ভব পরিহার করুন। ৬. নিজের ব্যবহৃত জিনিসপত্র (প্লেট, গ্লাস, কাপ ইত্যাদি) নিজে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। ৭. অফিসে কাজ করার সময় ন্যূনতম তিন ফুট শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ৮. নির্দিষ্ট সময় পরপর সাবান/হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করে হাত পরিষ্কার করুন। ৯. দাপ্তরিক কার্য সম্পাদনে সহকর্মী/সহকর্মীদের সঙ্গে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখুন। ১০. নিজ নিজ কক্ষ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন এবং সংশ্লিষ্ট ভবনে নিয়োজিত পরিচ্ছন্নতাকর্মী প্রয়োজনীয় সহায়তা দিন।

    ১১. একান্ত প্রয়োজন না হলে অন্যের রুমে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন। ১২. কোনো রুমেই একসঙ্গে চারজনের বেশি প্রবেশ বা অবস্থান করা থেকে বিরত থাকুন। ১৩. দর্শনার্থী সীমিত করুন এবং তাদের সঙ্গে সাক্ষাতে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখুন। ১৪. কেউ খাবার বা নামাজরত থাকলে ওই কক্ষে প্রবেশ করা থেকে বিরত থাকুন।

    ১৫. যথাসম্ভব লিফট ব্যবহার না করে সিঁড়ি ব্যবহার করুন। একান্ত প্রয়োজনে একসঙ্গে অনধিক চারজন লিফট ব্যবহার করুন। ১৬. লিফটে মুখোমুখি দাঁড়াবেন না। দেওয়ালের দিকে মুখ করে দাঁড়ান। ১৭. লিফটের বাটনে চাপ দেওয়ার সময় খুব ভালো হয় যদি অ্যালকোহল প্যাড বা টিস্যু ব্যবহার করেন। সেগুলো হাতের কাছে না থাকলে হাতের উল্টো পিঠ দিয়ে অথবা কনুই দিয়ে বাটনে চাপ দিন। ১৮. লিফট থেকে নেমে হাত পরিষ্কার করে নিন। ব্যবহৃত অ্যালকোহল প্যাড কিংবা টিস্যু নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলুন। ১৯. লিফটের ভেতর যতটা সম্বব হাঁচি-কাশি দেয়া থেকে বিরত থাকুন। একান্তই প্রয়োজন হলে রুমাল বা টিস্যুতে মুখ ঢেকে হাঁচি-কাশি দিন। ব্যবহৃত রুমালটি জীবাণুমুক্ত করে ধুয়ে ফেলুন এবং ব্যবহৃত টিস্যুটি ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিনে ফেলুন।

    ২০. ই-নথি ব্যবহার করুন। ২১. হার্ড-ফাইল স্বাক্ষরের ক্ষেত্রে ফাইল বহনকারীর সঙ্গে নির্ধারিত সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ২২. হার্ড-ফাইল/কাগজপত্রাদি স্পর্শ করার পর হ্যান্ডওয়াশ/সাবান-পানি দিয়ে ভালোভাবে হাত ধুয়ে ফেলুন।

    ২৩. করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মোকাবিলায় সরকার ও বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ বাসায় ও অফিসে প্রতিপালন করুন। ২৪. স্বাস্থ্যবিধি নিজে মেনে চলুন এবং অন্যকে মেনে চলতে উৎসাহিত করুন।

     

    দেশবিদেশ/নেছার

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ