বৃহস্পতিবার ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ফণী আতঙ্কে দক্ষিণাঞ্চলের ৪০ লাখ মানুষ

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ০২ মে ২০১৯

ফণী আতঙ্কে দক্ষিণাঞ্চলের ৪০ লাখ মানুষ

ধেয়ে আসছে ঘূণিঝড় ফণী। ফণী নিয়ে চরম আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে দক্ষিনাঞ্চলের ৪০ লাখ মানুষের মধ্যে। মিডিয়ার বার বার সতর্কবার্তা, প্রশাসনের তৎপরতায় আতংক ছড়াচ্ছে আরও বেশি। উপকুলীয় অঞ্চল আর বরিশালের নদী তীরবর্র্তী এলাকার মানুষ সরে যাচ্ছে নিরাপদ এলাকায়। জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বরিশাল সিটি কর্পোরশেন এবং বিভিন্ন জেলার পৌরসভাগুলোও সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে জানা গেছে। বিভিন্ন এলাকায় প্রশাসনের পক্ষে মাইকিং করাও হচ্ছে।
সিডরের ক্ষত না শুকাতেই ফণীর ভয়াবহতা প্রচারে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে সবাই। বরিশালের রাস্তাঘাটে মানুষের চলাচল কমে গেছে। হোটেল রেস্তরাঁ আর অফিসে আজ একটাই আলোচনা ছিল কখন আসছে ফণী।

এদিকে জেলা প্রশাসন সকাল ১০টায় ঘূর্ণিঝড় মোকবেলা এবং ঝড় পরবর্তী করনীয় নিয়ে দীর্ঘ সভা করে। জেলা প্রশাসক এস এস অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে সভায় জেলার প্রায় সকল উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উপকূলের মানুষ গুলোকে সরিয়ে নিতে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় খালি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সেখানে দুর্যোগপূর্ণ এলাকার মানুষদের আশ্রয়কেন্দ্র খোলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে সকল কর্মকর্তাদের। এদিকে ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সব ধরণের প্রস্ততি সম্পন্ন করেছে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি। জেলায় ২৩২টি সাইক্লোন শেল্টার , চার’শ স্বেচ্ছাসেবক ও প্রতিটি ইউনিয়নে মেডিকেল টিম আর প্রতি উপজেলায় কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণীর কারণে পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৭ নম্বর সতর্ক জারি করার পরপরই বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটে সব ধরণের নৌ যান চলাচল বন্ধ করেছে বিআইডব্লিউটিএ। লঞ্চঘাটে মোতায়েন করা হয়েছে নৌ পুলিশ। যাতে কোনো ধরনের লঞ্চ চলাচল করতে না পারে। এদিকে বেলা ১১টা থেকে হঠাৎ করে অভ্যন্তরীণ রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয়াতে ভোগান্তিতে পড়েছে যাত্রীরা। এতে করে অভ্যন্তরীণ ১২টি রুটে চলাচল করা ৫৫টি একতলা লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় যাত্রীরা গন্তব্যে যেতে পারছেন না।
এদিকে নৌ পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তারা বিআইডব্লিউটিএর নির্দেশনা মেনে কোনো লঞ্চ চলাচল করতে দিচ্ছে না। অপরদিকে তারা দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে।

Comments

comments

Posted ৪:২৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০২ মে ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com