বুধবার ২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম
মহেশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্র

বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে যুক্তরাষ্ট্রের বড় বিনিয়োগ আসছে

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ১০ জুলাই ২০১৮

বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে যুক্তরাষ্ট্রের বড় বিনিয়োগ আসছে

বিদ্যুৎ খাতে যুক্তরাষ্ট্রের বড় বিনিয়োগ আসছে। দেশটির জায়ান্ট কোম্পানি জেনারেল ইলেক্ট্রিক (জিই) বাংলাদেশে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে বড় অঙ্কের বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে। আগামী বুধবার (১১ জুলাই) কোম্পানিটি বাংলাদেশে ছয় হাজার মেগাওয়াটের বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য সমঝোতা স্মারক সই করতে আসছে। ইউরোপের সিমেন্স এর পরে এটিই হবে দেশের বিদ্যুৎখাতে সবচেয়ে বড় বিনিয়োগ।
চট্টগ্রামের মহেশখালীতে বিদ্যুৎ হাব নির্মাণ করার সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। দীর্ঘমেয়াদি এ পরিকল্পনায় শুরুতে সেখানে ১০ হাজার মেগাওয়াটের কয়লাচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে পরবর্তীতে কয়লার পাশাপাশি সেখানে এলএনজিভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড পিডিবি সূত্র জানায় বুধবার বিকেলে রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে পিডিবির সঙ্গে জিই তিন হাজার ৬০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের সমঝোতা স্মারক সই করবে।
পিডিবি সূত্র বলছে, এখন বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণের এমওইউ সই হবে। এর ভিত্তিতে জিই এর সঙ্গে একটি যৌথমূলধনী কোম্পানি গঠন করা হবে। সরকারি বেসরকারি অংশীদারিত্ব চুক্তি অনুযায়ী ওই কোম্পানিটি মহেশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করবে।
পিডিবি সূত্র বলছে, এ প্রকল্পের ৫১ শতাংশ অংশীদারিত্ব থাকবে পিডিবির হাতে। বাকি শেয়ারের মধ্যে ৩০ ভাগের মালিকানা পাবে জিই। এছাড়া ১৯ ভাগ পিডিবি এবং জিই-এর সমাঝোতার ভিত্তিতে অন্য কোম্পানিকে দেওয়া হবে।
পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ সমঝোতা স্মারক সই করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমরা বুধবারই সমঝোতা স্মারকটি সই করতে যাচ্ছি।
অন্যদিকে সামিট পাওয়ার কোম্পানি সূত্র জানায়, একই দিন দুপুরে রাজধানীর একটি পাঁচতারা হোটেলে সামিটের সঙ্গে একটি দুই হাজার ৪০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের সমঝোতা স্মারক সই করবে জিই।
দুটি কেন্দ্রই চলবে আমদানি করা গ্যাস অর্থাৎ এলএনজিতে। কেন্দ্র দুটির সঙ্গে স্থায়ী এলএনজি টার্মিনালও নির্মাণ করা হবে। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিদ্যুৎখাতের সব থেকে বড় চুক্তি এটি।
সামিট গ্রুপের পক্ষ থেকে এক ইমেইল এ জানানো হয়, তাদের চুক্তিটি হবে তিন বিলিয়ন ডলারের। চুক্তিতে মার্কিন জেনারেল ইলেক্ট্রিক (জিই) এবং জাপানের মিত্সুবিশি করপোরেশন সঙ্গে অংশীদার হচ্ছে সামিট গ্রুপ।
চুক্তির আওতায় মহেশখালীতে একটি স্থায়ী তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) টার্মিনালের সঙ্গে দুই হাজার ৪০০ মেগাওয়াটের একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে।
সামিট পাওয়ার সূত্র বলছে, ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিঙ্গাপুর সফরের সময় মিত্সুবিশি করপোরেশন সঙ্গে সামিটের একটি চুক্তি হয়েছে। মিত্সুবিশি বিদ্যুতকেন্দ্র এবং এলএনজি টার্মিনাল উভয়ের অংশীদার হবে। অন্যদিকে, জিই বিদ্যুৎকেন্দ্রর নির্মাণের পাশাপাশি বিনিয়োগও করবে।
সরকারিভাবে দেশে এখনও পর্যন্ত বড় একক অংশীদারিত্ব ব্যবসা হিসেবে ধরা হয় নর্থ ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি (এনডব্লিলিউপিজিসিএল) এর পায়রা তিন হাজার ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে। এই কেন্দ্রের সঙ্গেও জার্মানির সিমেন্স এর একটি এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ করবে।দেশবিদেশ /১০ জুলাই ২০১৮/নেছার

Comments

comments

Posted ১:২৬ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১০ জুলাই ২০১৮

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com