• শিরোনাম

    বিবর্ণ দিনে উজ্জ্বল আঁখি

    দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক | ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৮:১৮ অপরাহ্ণ

    বিবর্ণ দিনে উজ্জ্বল আঁখি

    এসএ গেমসে আরেকটি বিবর্ণ দিন কাটালো বাংলাদেশ। সাঁতারে রোমানা আক্তার পারেননি গতবারের সোনাজয়ী মাহফুজা খাতুন শীলার মতো আলো ছড়াতে। অ্যাথলেটিক্সে ব্যর্থতার সেই পুরানো গল্প। গলফ, ভারোত্তোলন, শুটিংয়ে সর্বোচ্চ প্রাপ্তি রুপার হাসি। মলিন দিনে উজ্জ্বল কেবল ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে রুপা জেতা আরদিনা ফেরদৌস আঁখি। দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের ইতিহাসে বাংলাদেশকে মেয়েদের পিস্তল একক থেকে প্রথম রুপা এনে দিয়েছেন এই শুটার।

    সাতদোবাতোর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে শুক্রবার ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৩৪ দশমিক ৬ স্কোর গড়ে রুপা জিতেন আঁখি। ২৩৮ দশমিক ৪ স্কোর নিয়ে সেরা হন ভারতের পারমানানথাম। প্রতিযোগিতার ষষ্ঠ দিনে সব মিলিয়ে ৭টি রুপা ও ৬টি ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ।
    গলফ থেকে চারটি রুপা
    গলফের ব্যক্তিগত ও দলীয় ইভেন্ট থেকে চারটি রুপা পেয়েছে বাংলাদেশ। গোকর্না গলফ কোর্সে ছেলেদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে মোহাম্মদ ফরহাদ চার রাউন্ড মিলিয়ে পারের চেয়ে ছয় শট কম খেলে রুপা পান। পারের চেয়ে ১৪ শট কম খেলে নেপালের প্রতিযোগী জিতেন সোনা। পুরুষ দলীয় ইভেন্টে বাংলাদেশের ফরহাদ, মোঃ সম্রাট, মোঃ শাহাবুদ্দিন ও মোঃ শফিক ৮৫৬ স্কোর করে রুপা জিতেন। মেয়েদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে জাকিয়া সুলতানা রুপা জিতেন ৩১৭ স্কোর করে। দলগত ইভেন্ট থেকে বাংলাদেশের নাসিমা আক্তার, সোনিয়া আক্তার ও জাকিয়া সুলতানা রুপা জিতেন।
    ভারোত্তোলনে দুটি রুপা, কাবাডিতে ব্রোঞ্জ
    পোখারায় হওয়া মেয়েদের ৭১ কেজি ওজন শ্রেণিতে রোকেয়া সুলতানা সাথী রুপা জিতেছেন। গত এসএ গেমসে ৬৯ কেজিতে রুপা জেতা এই ভারোত্তোলক স্ন্যাচ (৭০) ও ক্লিন অ্যান্ড জার্ক (৮৫) মিলিয়ে তুলেছেন ১৫৫ কেজি। ভারতের মানপ্রীত কউর সোনা জিতেছেন। ছেলেদের ৮৯ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্ন্যাচ (১২৩) এবং ক্লিন অ্যান্ড জার্ক (১৪৫) মিলিয়ে ২৬৮ কেজি তুলে রুপা পেয়েছেন শাখায়েত হোসেন। এ ইভেন্টে স্বাগতিক নেপালের বিকাশ থাপা সব মিলিয়ে ২৬৯ কেজি তুলে সোনা জিতেছেন।
    মেয়েদের কাবাডি এবার হতাশই করেছে। শ্রীলঙ্কাকে ১৭-১৬ ব্যবধানে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ। গতবার এ বিভাগে রুপা জিতেছিল মেয়েরা।

    ব্যর্থতার বৃত্তে অ্যাথলেটিক্স
    দশরথ স্টেডিয়ামের ট্র্যাকে ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি বাংলাদেশের অ্যাথলেটিক্স। ছেলেদের ৪*১০০ মিটার রিলেতে আব্দুর রউফ-শরিফুল-মোহাম্মদ ইসমাইল-হাসান মিয়া ৪২ দশমিক ৩৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ হন। শ্রীলঙ্কা ৩৯ দশমিক ১৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা এবং ভারত ৩৯ দশমিক ৯৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছে। মেয়েদের ৪*১০০ মিটার রিলেতে শরিফা খাতুন-সোহাগী আক্তার-তামান্না আক্তার-শিরিন আক্তারে গড়া দল ৪৭ দশমিক ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ছয় দলের মধ্যে চতুর্থ হয়। এ ইভেন্টে শ্রীলঙ্কা (৪৪ দশমিক ৮৯ সেকেন্ড) সোনা ও ভারত (৪৫ দশমিক ৩৬ সেকেন্ড) রুপা জিতেছে।
    সাঁতারে হতাশ করলেন জুনাইনা-রোমানা
    মেয়েদের ৪০০ মিটার ইনডিভিজ্যুয়াল মিডলেতে জুনাইনা ৫ মিনিট ২৫.২৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন। এ ইভেন্টে সোনাজয়ী ভারতীয় প্রতিযোগীর টাইমিং  ৫ মিনিট ০৩.৩৬ সেকেন্ড।
    ছেলেদের ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ফয়সাল আহমেদ ১৭ মিনিট ০০.৩৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন ফয়সাল আহমেদ। এ ইভেন্টে সোনাজয়ী ভারতের প্রতিযোগী সময় নেন ১৫ দশমিক ০৮.৮৩ মিনিট।

    মেয়েদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে রোমানা আক্তার ১ মিনিট ১৮.৮৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে পঞ্চম হন। সপ্তম হন মুক্তি খাতুন (১ দশমিক ২১.০৫ মিনিট)। গত আসরে ১ দশমিক ১৭.৮৬ মিনিট সময় নিয়ে এই ইভেন্ট থেকে সোনা জিতেছিলেন শীলা।
    ছেলেদের ২০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে জুয়েল আহমেদ ২ মিনিট ১৬.৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে পঞ্চম হন। এই ইভেন্টের মেয়েদের বিভাগে সুরাইয়া আক্তার ২ মিনিট ৩৮.৭৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে পঞ্চম হন। ষষ্ঠ হওয়া নাইমা আক্তারের টাইমিং ২ মিনিট ৪৩.১৭ সেকেন্ড।
    ছেলেদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে আরিফুল ইসলাম ১ মিনিট ০২.৯৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ হন। সুকুমার রাজ হন পঞ্চম (১ মিনিট ০৭.১২ সেকেন্ড)। ছেলেদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে আসিফ রেজা ২৩ দশমিক ০৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ এবং মাহফিজুর রহমান সাগর (২৩ দশমিক ৭৮ সেকেন্ড) পঞ্চম হন।

    ফেন্সিংয়ে তিনটি ব্রোঞ্
    ভারতের অ্যাথলেটদের সঙ্গে কোনো লড়াইয়ে পেরে ওঠেনি বাংলাদেশ। ছেলেদের ইপে ইভেন্টে মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, সাবরে ইভেন্টে ইফতেখার আলম বিপুল ও মেয়েদের ফয়েল একক ইভেন্টে মাহিমা আক্তার মৌ ব্রোঞ্জ পান। তিনটি বিভাগেই সোনা ও রুপা জিতেছে ভারতের প্রতিযোগীরা।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    লিটনের প্রথম সেঞ্চুরি

    ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ