সোমবার ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ভেসে আসছিল.. গোলাগুলি আর চিৎকার, হুইলচেয়ারে থেকেও বেঁচে যান ফরিদ

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০১৯

ভেসে আসছিল.. গোলাগুলি আর চিৎকার, হুইলচেয়ারে থেকেও বেঁচে যান ফরিদ

সময় যত বাড়ছে নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় মানবিক গল্পগুলো ততটাই প্রকট হচ্ছে। হামলার দিন শুক্রবার দুপুরে ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি পার্কের আল-নূর মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন ফরিদ আহমেদ নামে এক মুসল্লি। শারীরিকভাবে অক্ষম এই ব্যক্তি গোলাগুলির সময় নিজের হুইলচেয়ারে থাকলেও ভাগ্যগুণে বেঁচে যান। খবর বিবিসির।

ফরিদ আহমেদ জানান, আমি মসজিদের ভিতরেই ছিলাম। পাশের রুমে ইমাম খুতবা পড়ছিলেন। মুসল্লিরা মনোযোগ দিয়ে তা শুনছিল।

তিনি বলেন, সবকিছু ছিল শান্ত। ঠিক সে সময়ে অস্বাভাবিক কিছু ঘটলো। হঠাৎ প্রচণ্ড গোলাগুলি শুরু হলো। ইমামের কক্ষটি থেকে হামলা শুরু হয়। আমি দেখলাম সবাই এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করছে। কারো কারো শরীরে গুলির চিহ্ন, কারো গায়ে রক্ত।

ফরিদ বলেন, আমি শুধু ওপাশটায় গুলির শব্দ শুনছিলাম। শুধুই গুলির শব্দ। এভাবে চলছিল ৬ মিনিটের বেশি সময় ধরে।

তিনি আরও বলেন, সেসময় ভেসে আসছিল, চিৎকার ও কান্নার শব্দ। আমি অনেকের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেছি। দেখেছি কেউ পালিয়ে যাচ্ছে। হুইলচেয়ারে বসে থাকা ছাড়া আমার উপায় ছিল না। আর আমি পালাতেও চাচ্ছিলাম না। আমি ভাবছিলাম আমার স্ত্রী-মেয়েরা কেমন আছে!

ফরিদ জানান, আমি বুঝতে পারলাম অবস্থা সত্যিই ভয়াবহ। কেউ কেউ আমাকে আবারও বলল, আমাকে পালিয়ে যেতে।

তিনি বলেন, যেখানে আমার গাড়ি রাখা আছে আমি কোনোমতে সেখানে গেলাম ও গাড়ির পিছনে আশ্রয় নিলাম।

সারাবাংলা/এনএইচ

Comments

comments

Posted ৯:১৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com