রবিবার ২৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

মহেশখালিতে নৌকার বিরোধিতায় দলীয় নেতা !

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯

মহেশখালিতে নৌকার বিরোধিতায় দলীয় নেতা !

স্বাধীনতার প্রতীক নৌকা আর বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে আওয়ামী লীগে যোগদানকারিরা সব সময় নিবেদিত প্রাণ। আর ছলনাময় স্বার্থপররা আওয়ামী লীগকে ব্যবহার করে থাকে। এরকম সুযোগ বুঝে আওয়ামী লীগ এর ক্ষতি করে। আওয়ামী লীগের জন্য এরা হচ্ছে জাতীয় বেঈমান। এমন বেঈমানরা মহেশখালীতে আগে থেকে ছিল। এখন উপজেলা নির্বাচনে তাদের খোলস উন্মোচন হয়েছে। দলীয় বেঈমানের অপতৎপরতা টেকনাফ, উখিয়া, রামু ও পেকুয়ায়ও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক রয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
মহেশখালি উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রধান যদি নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে নৌকার সমালোচনা করে এবং নৌকায় ভোট না দিতে বলে তাহলে তাকে কি বলা যায় ? মুখোশধারী আওয়ামী লীগ নেতাকে নিয়ে এমনই প্রশ্ন উঠেছে।
নৌকা মানে আওয়ামী লীগ, আর আওয়ামী লীগ মানে নৌকা। নৌকাকে বাদ দিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা হওয়া যায়না। তবে মশেখালিতে যে আওয়ামী লীগ নেতা নৌকার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন তার পূর্ব ইতিহাসের খবর নিয়ে জানা যায়, তিনি ১৯৭১ সালের আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিপক্ষে ছিলেন। সুযোগ বুঝে আওয়ামী লীগের পতাকা তলে আসেন স্বার্থ উদ্ধারের জন্য। সুবিধাবাদি এই নেতা একসময় জাতীয় পার্টিও করেন।
খোলস বদলকারি এই নেতার কারনে মহেশখালিতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। আওয়ামী লীগের এই নেতা নৌকা প্রতীকে ভোট না দেয়ার জন্য বলায় সাধারণ নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।
তবে মহেশখালিতে আওয়ামী লীগের দুয়েকজন জাতীয় বেঈমান নৌকার বিরোধিতা করলেও কোন প্রভাব পড়েনি। মহেশখালির ঘরে ঘরে, পাড়ায় পাড়ায়, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে, ইউনিয়নে ইউনিয়নে নৌকার আওয়াজ উঠেছে।

Comments

comments

Posted ১:৫০ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com