• শিরোনাম

    মহেশখালী রিপোর্টাস ইউনিটির আত্মপ্রকাশ

    খবর বিজ্ঞপ্তির | ১১ নভেম্বর ২০১৮ | ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

    মহেশখালী রিপোর্টাস ইউনিটির আত্মপ্রকাশ

    “নিরপেক্ষ ও সৃজনশীল সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী” এই শ্লোগান কে ধারণ করে প্রায় বছরখানেক ধরে সামাজিক রাজনৈতিক ও সমসাময়িক বিভিন্ন অসংগতির উপর ভিন্নধারায় নীরবে কাজ করে যাচ্ছে মহেশখালী রিপোর্টাস ইউনিটি তরুণ লেখকদের সংগঠনটি ৷ ইতোমধ্যে সংগঠনটির সদস্যরা তাদের লেখনির যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন ৷ ভিন্নধারার লেখনির সুবাধে প্রশাসন সহ রাজনৈতিক অঙ্গনে তোলপাড় সৃষ্টি করেছেন, পাশাপাশি সম্মুখিন হতে হয়েছে বিভিন্নভাবে আলোচনা সমালোচনার ৷ সাম্প্রতিক সময়ে মহেশখালী রিপোর্টাস ইউনিটি উপজেলার একঝাঁক সাহসী, সৃজনশীল ও নবীন লেখকদের সমন্বয়ে তাদের সাংগঠনিক কাঠামো মজবুত করেছে এবং আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করেছে ৷ তরুন লেখক এস. এম. রুবেলকে অাহ্বায়ক করে আট সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটির ঘোষনা করেছে সংগঠনটি ৷ কমিটির অন্যান্য সদস্য যথাক্রমে যুগ্ম-আহবায়ক তরুন লেখক ও ব্লগার অা ন ম হাসান, মুহাম্মদ ফারুক ইকবাল, কবি সুব্রত অাপন ও নাজমুল হাসান সদস্য যথাক্রমে শওকত অালম, হামিদুল ইসলাম ও জসিম উদ্দিন ৷ মহেশখালী রিপোর্টাস ইউনিটি প্রফেশনাল সংবাদকর্মীদের সংগঠন না হলেও সংগঠনটির প্রায় সদস্য নীরবে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিকস মিডিয়ার সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে এবং তরুন লেখক সংবাদকর্মীদের একটি প্লাটফর্ম হিসেবে সাধারণের মনে স্থান করে নিতে সক্ষম হয়েছে। সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা জানায়, সাংবাদিকতা পেশাটি অতি পবিত্র একটি পেশা। সাংবাদিকদের বলা হয় জাতীর বিবেক, দেশের আয়না ৷ এটিকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবেও আখ্যায়িত করা হয়। কিন্তু কিছু কিছু নামসর্বস্ব সাংবাদিক এই মহান পেশাটাকে করেছে কলংকিত, জাতীর কাছে হয়েছে ঘৃণিত ৷ হলুদ সাংবাদিকতাকে পুঁজি করে অপ-সাংবাদিকতার পাশাপাশি বিশেষ ব্যাক্তিদের তৈল মর্দন সহ সাংবাদিকতার মূল থিম হতে সরে আসার কারণে এই পেশা কে করেছে তামাশার পাত্র। অযোগ্য, অদক্ষ, অশিক্ষিত মুষ্টিমেয় লোভী মানুষরা সাংবাদিকতাকে অর্থনৈতিক সাবলম্ভী হওয়ার প্রধান অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করায় অাজ সৃজনশীল ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার এই বেহাল দশা। সাংবাদিকতার হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে, সাধারণের মাঝে গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টি করতে, এবং তরুন লেখকদের পৃষ্ঠপোষকতা করতে আমাদের এই সংগঠনের লক্ষ্য ও উদ্দ্যেশ্যে । আমাদের সামনে অনেক বাঁধা বিপত্তি আসবে, আমাদের অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে ৷ আমরা চেষ্টা করে যাবো সকল বাঁধা বিপত্তিকে পাশ কাটিয়ে আমাদের লক্ষ্যে স্থীর থাকতে ৷ তারা আরো জানান, আমরা কারো প্রতিদ্বন্দি নয়, কারো সাথে প্রতিদ্বন্দিতা করার জন্য সংগঠন সৃষ্টি হইনি ৷ আমাদের মাঝে নেতৃত্ব দেওয়া বা পদ পদবীর জন্য কারো লোভ নেই এরকম মনমানসিকতা কারো মাঝে বিদ্যমান নেই ৷ যখনি এমন কোন পরিস্থিতি দেখা দিবে,আমরা সংগঠন বিলুপ্ত করে দিব ৷ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা সিনিয়র সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সামাজিক ব্যাক্তিত্ব সহ সকলের কাছ হতে পরামর্শ সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করেছেন ৷

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ