বৃহস্পতিবার ৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

মাতারবাড়ীতে প্রকল্প এলাকায় লবণ চাষ বন্ধের নির্দেশ

মোহাম্মদ শাহাবউদ্দীন,মহেশখালী   |   বৃহস্পতিবার, ১০ জানুয়ারি ২০১৯

মাতারবাড়ীতে প্রকল্প এলাকায় লবণ চাষ বন্ধের নির্দেশ

মাতারবাড়ীতে কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য অধিগ্রহণকৃত ১২শত একর জমিতে লবণ উৎপাদন বন্ধ করতে কোলপাওয়া কতৃপক্ষ ১০ জানুয়ারী দিন ব্যাপী এলাকায় মাইকিং করেছে। মাতারবাড়ীতে ২টি কয়লা বিদ্যুৎ স্থাপিত হওয়ার জন্য ১৪শত ১৪ একর ভূমি অধিগ্রহণ করার পর সেখানে ২০১৫ সাল থেকে অবকাঠামো নির্মাণের কাজ চলছে। অপরটি ১২শত একরের ভূমি অধিগ্রহণ হলেও এখনো উক্ত প্রকল্পে কোন ধরণের অবকাঠামো নির্মাণের কাজ শুরু না করায় জমির মালিকরা চাষাবাদ করছে। উক্ত জমিতে চলছে লবণ উৎপাদন ও লবণ বিক্রি শুরু হয়েছে। অপরদিকে অধিগ্রহনকৃত উক্ত জমিতে মার্চ-এপ্রিল মাসে ছোট-খাটো অবকাঠামো নির্মাণ করার জন্য কোল পাওয়ারের পরিকল্পনা ও রয়েছে। এ অবস্থা দেখে কোল পাওয়ার কর্তৃপক্ষ লবণ উৎপাদন বন্ধ করার জন্য গত ১০ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দিনভর মাতারবাড়িতে মাইকিং করে সতর্ক করে দিয়েছেন লবণ চাষীদের। এমনকি কোল পাওয়ার মাতারবাড়ি শাখায় দায়িত্বরত পুলিশ ও আনসার বাহিনী মাঠে গিয়ে লবণ চাষীদের মাঠ ছেড়ে দেয়ার জন্য ও সতর্ক করে দিচ্ছেন। মাইক ও প্রশাসনের মাধ্যমে এ সতর্ক বাণী শুনে লবণ চাষীরা মাথায় হাত দিয়েছেন। অপরদিকে জমিনের মালিক, চাষী ও কোল পাওয়ার কতৃপক্ষের দফায় দফায় অন্তত এ বছর চাষাবাদ করার জন্য বৈঠক করছে বলেও সুত্র জানায়।
মাতারবাড়ীর আওয়ামীলীগ নেতা ও জমির মালিক কাউছার সিকদার বলেন প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় আমরা জমি দিয়েছি প্রয়োজনে আরো জমি দেব কিন্তু পরিত্যক্ত জমিতে গরীব চাষীদের কাজ করার সুযোগ প্রদানের জন্য কোল পাওয়ার কতৃপক্ষকে অনুরোধ জানান।
তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে কোল পাওয়ারের শীর্ষ স্থানীয় এক কর্মকর্তা বলেন , কোল পাওয়ার কর্তৃপক্ষ সেখানে অচিরেই কাজ শুরু করবে বিধায় কারো আবেদন-নিবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না বলে জানান। মাতারবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন এখনো অনেক জমির মালিকরা অধিগ্রহণ বা ক্ষতি পূরণের টাকা পায় নাই, অব্যহৃত জমিতে গরিব মানুষ চাষাবাদ করলে মন্দ কি। যখন কাজ শুরু হবে তখন কাজ বন্ধ করলে উচিত হবে বলে মনে করেন। বিষয়টি এলাকার মানুষের দিক বিবেচনা করে সংসদ সদস্যসহ প্রশাসনকে অবহিত করবেন বলে জানান।

Comments

comments

Posted ১০:৪৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com