শনিবার ১০ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৭শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

রাতারাতি কোটিপতি ২৪ বছরের যুবক

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৯

রাতারাতি কোটিপতি ২৪ বছরের যুবক

এক রাতের মধ্যেই সারা বিশ্ব তাকে চিনে ফেলল। এক রাতের মধ্যেই বিশ্বের ধনীতমদের তালিকায় জায়গা করে নিলেন তিনি।

যার কথা বলা হচ্ছে, তিনি মাত্র ২৪ বছরের এক যুবক। সবে পড়াশোনা শেষ করেছেন। কোটি কোটি ডলারের মালিক হওয়ার জন্য একবিন্দুও পরিশ্রম করতে হয়নি তাকে। যেন আকাশের চাঁদ নিজে থেকেই তার হাতে চলে এসেছে!

হাতে ‘চাঁদ’ পেয়ে জীবনটাকে এখন অন্য ভাবে উপভোগ করছেন তিনি। কখনও নামী মডেলদের সঙ্গে পার্টি করছেন তো কখনও বিল গেটসদের সঙ্গে একই টেবিলে ওঠাবসা করছেন, তো কখনও নামজাদা অভিনেতার পাশে বসে বাস্কেটবল খেলা দেখছেন।
ওই যুবকের নাম এরিক সে। ওয়াশিংটনের সিয়াটল-এ জন্ম হলেও এরিকের বেড়ে ওঠা হংকং-এ।

হংকংয়ের স্কুলেই তার পড়াশোনা। পেনসিলভেনিয়ার হোয়ারটন স্কুল থেকে অর্থনীতিতে ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। বেজিংয়ের সিনহুয়া বিশ্ববিদ্যায়ের স্কলার ছিলেন তিনি।

জানতে ইচ্ছা করছে তো কী ভাবে রাতারাতি কোটি কোটিপতি হয়ে উঠলেন এই যুবক? আসলে, ৩৮৮ কোটি ডলার উপহার পেয়েই রাতারাতি বিলিয়নেয়ার হয়ে গিয়েছেন এরিক।

এরিকের বাবার পারিবারিক ব্যবসা। সাইনো বায়োফার্মাসিউটিকল লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা তার বাবা-ই। আর তার মা সংস্থার এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর।

সংস্থার সম্পত্তির পরিমাণ বর্তমানে ৮৫০ কোটি ডলার। সেই সম্পত্তির একটা অংশই ছেলে এরিককে উপহার দিয়েছেন টেসি দম্পতি। ফলে রাতারাতি বিলিয়নিয়র হয়ে উঠেছেন এরিক।

বিলিয়নেয়ার হওয়ার পর কেমন জীবন কাটাচ্ছেন এরিক? তার বিলাসবহুল জীবনের পরিচয় সোশ্যাল মিডিয়া থেকেই পাওয়া যায়।

রিহানা, বেলা হাদিদের মতো একাধিক সেলিব্রিটির সঙ্গে দুর্দান্ত সব ছবি আপলোড করেছেন এরিক। তাদের সঙ্গে পার্টি করে বেড়াচ্ছেন। কখনও ফ্রান্সের প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি কার্লা ব্রুনির সঙ্গে, তো কখনও ইউরোপের মোনাকের প্রিন্সেস চার্লিনের সঙ্গে ফটোশুট করছেন। বা কখনও ডলফিনের সঙ্গে স্নান উপভোগ করছেন।

তার সম্পত্তি রাতারাতি স্টারবাকস্-এর প্রতিষ্ঠাতা হোয়ার্ড এবং স্ন্যাপচ্যাট-এর সিইও ইভানের থেকেও বেশি হয়ে গেছে।

ফোর্বস ম্যাগাজিন অনুসারে, এই উপহার তাকে বিশ্বের প্রথম প্রথম সাড়ে পাঁচশো জন ধনীর তালিকায় নিয়ে এসেছে।

ঘুরতে ভীষণ পছন্দ করেন এই কোটিপতি যুবক। কখনও দুবাই, কখনও রাশিয়া তো কখনও প্যারিসে চলে যান। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ১০ হাজার ফলোয়ারের জন্য ছবি তুলতে কখনও ভোলেন না এরিক।-আনন্দবাজার

Comments

comments

Posted ৮:৩৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com