• শিরোনাম

    রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একজন আক্রান্ত হলে সবশেষ’ করোনা রোধে তৎপর নৌবাহিনী

    আবদুর রহমান, টেকনাফ : | ২৯ মার্চ ২০২০ | ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

    রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একজন আক্রান্ত হলে সবশেষ’ করোনা রোধে তৎপর নৌবাহিনী

    বিশ্বের বৃহত্তম শরণার্থী অধ্যুষিত জনপদ কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করার কোনো ব্যবস্থা নেই। গাদাগাদি করে থাকা সেখানকার দশ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা রয়েছেন উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার মধ্যে। ফলে রোহিঙ্গাদের মাঝে ভয়ভীতি কমানোর লক্ষ্যে গতকাল (শনিবার) সকালে বাংলাদেশে নৌবাহিনীর কক্সবাজার জেলা সমন্বয়ক কমান্ডার এম রাজিবুল ইসলামের এই ১৮ সদস্যের একটি টহল দল টেকনাফ নিবন্ধিত নয়াপড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলার ব্যাপক প্রচারনা চালায়।

    এই টহলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবুল মনসুর। এসময় উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ নৌবাহিনীর কন্টিজেন্ট কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মোহাম্মদ আছাদুজ্জামান ইমরান ও লে. তৌকির আহমেদ ।

    সরেজমিনে দেখা যায়, নৌবাহিনীর টহল দলটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লকে ব্লকে গিয়ে মাইকিং করে “নিয়মিত হাত ধোয়া, জনসমাগম এড়ানোসহ রোহিঙ্গাদের মসজিদের বদলে ঘরে বসে নামাজ আদায় করার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়া সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিতসহ করোনাভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করতে প্রচারপত্র বিলি করে তাদের মাঝে।

    পাশপাশি টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও মসজিদের ইমামদের মাঝে করোনা রোধে প্রচারনা চালানো হয়।

    পরে বিকেলে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন। “অনেক ছোট একটা জায়গায় বিশাল জনগোষ্ঠী বসবাস করছেন। যে কারণে রোহিঙ্গা শিবিরগুলোকে আমি খুব ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করি উল্লেখ করে নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মুহা: আবুল মনসুর বলেন, আমরা লোকাল লোকজনের কাছে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আমরা গিয়েছি, জনবসতিপূণ এলাকা, সেখানে সুশ্যাল ডিস্টেন্স যেতা বলা হচ্ছে সেটা আসলে কঠিন। তবে আমরা তাদের সচেতনতার জন্য বিভিন্ন জিও, এনজিও, লোকাল যারা আছে তাদের মাধ্যমে আমরা সচেতনতা সৃষ্টির জন্য কাজ করে যাচিছ। জনঘনত্বের কারণে রোহিঙ্গা শিবিরগুলো করোনাভাইরাস ঝুঁকিটাও বেি ফলে সেখানে করোনা রোধে খুব গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি। জেলা সমন্বয়ক কমান্ডার এম রাজিবুল ইসলাম বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ঝুকিপূর্ণ এলাকা হচ্ছে রোহিঙ্গা ক্যাম্প। এখানে অল্প পরিসরে জনঘনত্বের লোকজনের বসবাস। যদি এখানে কারো ‘করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত’ হয়, সেখান থেকে সবখানে ছড়িয়ে পড়ার ঝুকি সব চেয়ে বেশি।

    আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে কোন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যাক্তি যেন ক্যাম্পে প্রবেশ করতে না পারে। সেই লক্ষ্যে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ক্যাম্পে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

    পাশপাশি স্থানীয় মসজিদের ঈমাম, মাদ্রাসার প্রিন্সিপলসহ বিভিন্ন স্থরের মানুষের সাথে কথা বলেছি তারা যেন স্ব স্ব এলাকায় করোনা বিষয়ে মানুষকে সচেতনতা সৃষ্টি করে। আশা করছি, খুব কম সময়ের মধ্যে আমরা এটা প্রতিরোধ করতে সক্ষম হব।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ