• শিরোনাম

    রামু সেনানিবাসে সাংবাদিকদের ব্রিফিং কালে সেনাপ্রধান *আগামি মাসে মিয়ানমার যাবেন সেনাপ্রধান

    রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়ার প্রাথমিক কাজ শুরু

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৫ নভেম্বর ২০১৯ | ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ

    রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাঁটাতারের বেড়ার প্রাথমিক কাজ শুরু

    কুতুপালং ও নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চারিপাশে কাঁটাতারের বেড়া দেয়া হবে। প্রাথমিকভাবে ক্যাম্পের চারপাশের সীমানায় খুঁটি স্থাপনার কাজ শুরু হয়েছে। যেহেতু কাজ শুরু হয়ে গেছে তাই যথাসময়ে শেষও হবে। এমনটি জানালেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ।
    তিনি জানালেন , আগামি মাসে মিয়ানমার সফরে যাবেন। সেখানে দুইদেশের সম্পর্ক উন্নয়নে কথা হবে। যতবেশি আলোচনা হবে তত বেশি দুইদেশের সম্পর্কের উন্নয়ন হবে। আলোচনায় নানা বিষয় উঠে আসতে পারে। রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়েও আলোচনা হতে পারে। যাই হোক দেশের স্বার্থে কথা হবে। এসময় তিনি আরো বলেন, মিয়ানমার ও ভারতের সীমানায় বাংলাদেশের অংশে কাঁটাতারের বেড়া নেই, নেই বর্ডার রোড। মিয়ানমার সীমান্তে, কোন কোন ক্ষেত্রে ভারত সীমান্তে সীমান্ত সড়কের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। ২৮৭ কিলোমিটার সীমান্ত সড়কের কাজ শীঘ্রই শুরু হবে।
    ২৪ নভেম্বর সকাল সকাল ১০ টায় রামু সেনানিবাসে সেনাবাহিনী প্রধান কর্তৃক ৬টি ই্উনিটকে কালার প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। রামু সেনানিবাসের অধীনস্থ ৬, ৯ ও ২৭ রেজিমেন্ট অর্টিলারি, ৬ ইঞ্জিনিয়ার ব্যাটালিয়ন এবং ১৩ ও ১৪ বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টসমূহকে রেজিমেন্টাল কালার প্রদান করেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। এসময় তিনি বলেন, রেজিমেন্ট সমূহ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ধারাবাহিক ও প্রশংসনীয় কার্যক্রম প্রদর্শনের মাধ্যমে রেজিমেন্টাল কালার পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। রেজিমেন্টাল কালার প্রাপ্তি যে কোন ইউনিটের জন্য একটি বিরল সম্মান এবং কর্তব্যনিষ্ঠার স্বীকৃতিস্বরুপ প্রাপ্ত রেজিমেন্ট কালার এর মর্যাদা এবং সেনাবাহিনীর প্রতি জাতির আস্থা অটুট রাখার জন্য যে কোন ত্যাগ স্বীকারে ইউনিটসমূহ সর্বদা সচেষ্ট থাকবে।তিনি আরো বলেন, সেনাবাহিনী দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার পাশাপাশি প্রাকৃতিক ও মানবসৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলাসহ দেশের আর্থসামাজিক এবং অবকাঠামোগত উন্নয়নে গুরুত্ব ভূমিকা রেখে চলেছে। ভবিষ্যতেও মাতৃভূমির অখন্ডতা রক্ষা ও জাতীয় যে কোন প্রয়োজনে সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারের জন্য সদা প্রস্তুত থাকবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ১০ পদাতিক ভিশনের জিওসি জেনারেল মো: মাঈন উল্লাহ চৌধুরী। প্রাক্তন সাবেক ৫ সেনা প্রধান, প্রাক্তন অধিনায়কবৃন্দ, প্রাক্তন সুবেদার মেজরবৃন্দ ও প্রাক্তন সেনাসদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ