মঙ্গলবার ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম
ময়নার ঘোনা রোহিঙ্গা শিবিরে ৮ টি গরু জবাই

রোহিঙ্গা নেতা হত্যাকারীদের উৎসাহিত করতে গরুর মাংশ বিতরণ !

দেশবিদেশ রিপোর্ট   |   বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮

রোহিঙ্গা নেতা হত্যাকারীদের উৎসাহিত করতে গরুর মাংশ বিতরণ !

উখিয়ার ময়নার ঘোনা রোহিঙ্গা শিবিরে গতকাল বুধবার একে একে ৮টি গরু জবাই করে মাংশ বিতরণ করা হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, গরুর মাংশ দিয়ে উৎসাহিত করা হয়েছে শিবিরটির দুর্ধর্ষ প্রকৃতির জঙ্গি রোহিঙ্গাদের। যারা কিনা মাত্র একদিন আগে আরিফুল্লাহ নামের একজন জনপ্রিয় রোহিঙ্গা নেতাকে অত্যন্ত নৃশংস কায়দায় হত্যা করেছে। অভিযোগ উঠেছে, পালংখালী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের শিয়াইল্লা পাড়ার বাসিন্দা জামায়াত কর্মী আকবর আহমদ এসব গরু জবাই করার ব্যবস্থা করেছেন। এমন ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে-রোহিঙ্গা শিবিরে এসব কি ঘটছে ?
গতরাতে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন জানিয়েছেন-‘ বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। বিস্তারিত জানার জন্য আরো খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।’
জানা গেছে, জবাই করা গরুর মাংশ বিতরণ করা হয়েছে শিবিরটির জঙ্গি গ্রুপ হিসাবে পরিচিত আল ইয়াকিন বা আরসা নামে পরিচিত উগ্র সংগটনটির নৃশংসতা কাজে জড়িতদের হাতে বলে। উগ্রবাদ বিরোধী বিশেষ করে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে যেসব রোহিঙ্গা নানা কাজে জড়িত এসব রোহিঙ্গারাই আল ইয়াকিন জঙ্গিদের শিকারে পরিণত হচ্ছে। গত ৯ মাসে এরকম ২৩ জন নিরীহ রোহিঙ্গা আল ইয়াকিনের শিকার হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানা গেছে। গতরাতে প্রশাসনিক একাধিক সুত্রে রোহিঙ্গা শিবিরের এ ঘটনা নিশ্চিত করা হয়েছে।
রোহিঙ্গা শিবিরে মাত্র একদিন আগে একজন জনপ্রিয় রোহিঙ্গা নেতাকে নৃশংস ভাবে জবাই করে হত্যা করা হয়। এমন নৃশংস ঘটনার পর যেখানে মিলাদ বা ধর্মীয় অনুষ্টান করে একজন মুসলিমের রুহের মাগফিরাত কামনার কথা সেখানে উল্টো উৎসাহ-উদ্দীপনা করার জন্য গরু জবাই করে উল্লাস করায় রোহিঙ্গা শিবিরের অভ্যন্তর নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে।
অভিযোগ উঠেছে, গত সোমবার রাতে বালুখালী-২ নম্বর শিবিরের রোহিঙ্গা মাঝি আরিফুল্লাহ হত্যাকান্ডে জড়িতদের উৎসাহিত করতেই শিবিরটিতে এসব গরু জবাই করা হয়। বিদেশী কোন সংস্থা থেকেই টাকার যোগান দেয়া হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় জামায়াত কর্মী আকবর আহমদ হচ্ছেন একজন দুর্ধর্ষ প্রকৃতির লোক।
ঘটনার সংবাদ পেয়ে উখিয়ায় কর্মরত আইন প্রয়োগকারি সংস্থার একজন গোয়েন্দা কর্মী জামায়াত কর্মী আকবরের কাছে মোবাইলে জানার চেষ্টা করেন। আকবর গোয়েন্দা কর্মীকে একটি বিদেশী রাষ্ট্রের টাকায় গরু ক্রয়ের কথা স্বীকার করেন। কিন্তু সেই বিদেশী রাষ্ট্রটি আকবরকে টাকা দিতে যাবে কেন জানতে চাইলে আকবর মোবাইল বন্ধ করে দেন বলে জানান ওই গোয়েন্দা কর্মী।
এ বিষয়ে গতরাতে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানিয়েছেন, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। তবে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Comments

comments

Posted ২:২৪ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

প্রকাশক
তাহা ইয়াহিয়া
সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
01870-646060
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com