• শিরোনাম

    সাগর পাড়ের শিশু পার্কে শিশু মেলা ও বই উৎসব

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০২ জানুয়ারি ২০২০ | ১:৫৩ পূর্বাহ্ণ

    সাগর পাড়ের শিশু পার্কে শিশু মেলা ও বই উৎসব

    সারাদেশের ন্যায় কক্সবাজারেও বই উৎসব শুরু হয়েছে গতকাল বুধবার বছরের প্রথম দিন থেকে। ২০২০ সালে কক্সবাজার জেলায় বিতরণ করা হচ্ছে ৭৫ লাখ নতুন বই। বই পাবে জেলার ৮ উপজেলার ৮ লাখ ৬৪ হাজার শিক্ষার্থী। এরই অংশ হিসাবে কক্সবাজার সাগর পাড়ের শিশু পার্ক প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে “শিশু সমাবেশ ও বই উৎসব ২০২০”। গতকাল সকালে বই উৎসব চলাকালে আকস্মিক এক পশলা ভারি বর্ষণে আনন্দের উৎসবে ছন্দপতন ঘটে।
    গতকাল বুধবার সকালে সাগর পাড়ের শিশু পার্কে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরোয়ার কমল। জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে শিশু সমাবেশে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

    সভায় অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে বক্তৃতা করেন কক্সবাজার সরকারি কলেজেরে অধ্যক্ষ একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবর রহমান,সদর উপজেলার ইউএনও এ.এইচ.এম মাহফুজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা মো: শাহজাহান ও মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার প্রমুখ।
    আলোচনা সভা শেষে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেন প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ।এছাড়াও শিশু সমাবেশে আগত প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে পাঠ্য পুস্তকের পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ড. জাফর ইকবাল রচিত ‘মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস’ শীর্ষক বই উপহার হিসেবে প্রদান করা হয়।

    সভায় বক্তারা বলেন- ‘বাংলাদেশ পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যেখানে বছরের প্রথম দিন সরকার শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়। এছাড়াও বুধবার থেকে মুজিব বর্ষ শুরু হয়েছে। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বছর ব্যাপী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে।’

    এসময় জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলেন- ‘সন্তানদের মঙ্গলের জন্য কিন্ডার গার্ডেন ও প্রাইভেটের দিকে না ঝুঁকে নিজেরা আরও দায়িত্ববান হোন। সকাল সকাল ছেলে মেয়েদের ঘুম থেকে তুলে দিবেন এবং সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সন্তানদের কাছ থেকে মোবাইল-টিভি দূরে রাখুন। বাকি দায়িত্ব আমাদের হাতে ছেড়ে দিন।

    ’প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য সাইমুম সরোয়ার কমল বলেন- ‘বর্তমান সরকার শিক্ষাকে খুবই গুরুত্ব দিচ্ছে। শিক্ষার মান উন্নয়নে আগামীতে আরও বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তবে এর জন্য সরকারের পাশাপাশি অভিভাবকদেরও ভূমিকা পালন করতে হবে।’এদিকে, সারা জেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একযোগে বই বিতরণ করা হচ্ছে। নতুন বই পেয়ে উচ্ছসিত হয়ে উঠেন কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। তাদের আনন্দ যেন চোখে-মুখে ও ভাষায় ভেসে উঠে।

    এরপর কক্সবাজারে সাম্প্রতিক সময়ে গড়ে তোলা প্রতিবন্ধীদের বিশেষায়িত শিক্ষা প্রতিষ্টান “অরুণোদয়’র মাঠে ইংরেজী নববর্ষ বরণ উপলক্ষে অপর এক অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়। অনুষ্টানে প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে কেক কাটা হয়।
    অরুণোদয়ের মাঠের অনুষ্টানে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট (এডিএম) মোঃ শাজাহান আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আমিন আল পারভেজ ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান ।

    দেশবিদেশ/নেছার

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ