বুধবার ৮ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

ক্যাম্প জুড়ে ভয়

 সাধারণ রোহিঙ্গাদের নির্ঘুম রাত

  |   মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

 সাধারণ রোহিঙ্গাদের নির্ঘুম রাত

দেশবিদেশ প্রতিবেদক , টেকনাফ

উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প ১৮ এর এইচ—৫২ ব্লকের দারুল উলুম নাদওয়াতুল উলামা ইসলামিয়া মাদরাসায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার পর ক্যাম্পের সর্বত্র আতঙ্ক বিরাজ করছে। সাধারণ রোহিঙ্গারা নতুন করে তাদের উপর হামলা হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন। অনেকে ভয়ে ক্যাম্প ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে যেতে চাচ্ছেন।

ক্যাম্পের রোহিঙ্গারা জানান, শুক্রবারের ঘটনাটি আরসার শাখা সংগঠন উলামা কাউন্সিলের মদদে হয়েছে। তারা মাদরাসাটির নিয়ন্ত্রন নিতে না পারে ক্ষুব্ধ ছিল। এছাড়া এই ব্লকের লোকজন মুহিব উল্লাহ হত্যার পর সন্ত্রাসীদের ধরতে পুলিশকে সহায়তা দিয়েছিল বলেও আরসার ক্ষোভ তাদের উপর। তাই তারা যেকোন মুহুর্তে আরো বড় ধরনের হামলার মাধ্যমে আমাদের উপর প্রতিশোধ নিতে পারে।

রোহিঙ্গা যুবক রফিক আহমদ বলেন, এখানে সবসময় পুলিশ থাকেনা। যখন পুলিশ থাকেনা তখন সন্ত্রাসীরা বুক ফুঁলিয়ে প্রকাশ্যে রাস্তায় নেমে আসে। সাধারণ রোহিঙ্গাদের হুমকি ধমকি দিয়ে থাকে। এখন আমরা আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ম। যেকোন মুহুর্তে আমাদের উপর হামলা হতে পারে। তবে আমাদের দাবি থাকবে, এই ব্লকে যেন একটি পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হয়।

কক্সবাজার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম জানান, ক্যাম্পে ৬ জন রোহিঙ্গা নিহতের ঘটনায় ২৫ জনকে নামীয় ও ২৫০ জন অজ্ঞাত আসামী করে নিহত আজিজুল হকের পিতা নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এখন পুলিশ আসামীদের ধরতে তৎপর রয়েছে।

নিহত রোহিঙ্গা আজিজের পিতার দায়ের করা মামলার আসামীদের মধ্যে ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) ৬ জন রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় এ পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করেছে। এদের মধ্যে ৫ জন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। বাকী ৫ জন সন্দেহভাজন। এজাহারভুক্ত আটক ৫ জন হলেন, মজিবুর রহমান (১৯), দিলদার মাবুদ ওরফে পারভেজ (৩২), মোহাম্মদ আইয়ুব (৩৭), ফেরদৌস আমিন (৪০), আব্দুল মজিদ (২৪)।
বালুখালী ১৮ নম্বর ক্যাম্পের এইচ—৫২ ব্লকের রোহিঙ্গা যুবক আবদুল মাজেদ বলেন, প্রত্যেকটি ক্যাম্পের প্রতিটি ব্লক থেকে আরসা এবং আল ইয়াকীন কে কম বেশি সহযোগিতা দেয়া হতো। কিন্তু আমাদের ব্লক থেকে তারা কোন ধরনের সহযোগীতা পেতোনা। তাই তারা এই ব্লকের লোকদের উপর সবচেয়ে বেশি ক্ষুব্ধ ছিল এবং বারবার আমাদের ঘায়েল করার চেষ্টা করেছে। ঘটনা শেষে চলে যাওয়ার সময়ও তারা এই ক্যাম্পের ১০ বছরের বেশি বয়সী সব পুরুষকে খতম করে দেবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। তাই এখানে এপিবিএন এর একটি স্থায়ী ফাঁড়ি খুব দরকার, আমাদের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে।

এদিকে গতকাল সোমবার সরেজমিনে, বালুখালী ক্যাম্প ১৮ এর এইচ—৫২ ব্লকে গিয়ে নিহত পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পরিবারের নিহত সদস্যরা ছিল একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তাই তারা তাদের সন্তান সন্ততি ও পারিবারিক ভবিষ্যত দূরাবস্থা নিয়ে উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছেন।
নিহত মোহাম্মদ আমিনের বৃদ্ধ বাবা আবুল ফয়েজ (৭৮) বলেন, আমিন আমাদের দশ সদস্যের পরিবারে একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। পরিবারের বেশির ভাগ সদস্য নারী ও শিশু হওয়ায় এখন ঘর সামলানোর মতোও কেউ নেই। আমরা এখন কিভাবে দিনাতিপাত করবো ভেবে পাচ্ছিনা। এছাড়া তার নিজের সন্তান গুলো এখনো শিশু। আমরা স্ত্রীসহ দুইজন বৃদ্ধ এবং অসুস্থ। আমিন দিনমজুরের কাজ করে এত বড় পরিবার সুন্দর মতো সামাল দিয়ে আসছিলেন।

নিহত আমিনের মা লায়লা বেগম বলেন, মিয়ানমারে আমার মগ (রাখাইন জাতি) ও সশস্ত্র বাহিনীর হামলার শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছিলাম জীবনের নিরাপত্তায়। কিন্তু এখানে এসে স্বজাতির হামলায় মরতে হবে তা কখনো ভাবিনি। আরসার সন্ত্রাসীরা সেদিনের ঘটনায় আমার ছেলে মসজিদে আশ্রয় নিলে সেখানে গিয়ে হামলা করেছে। সে মুলত ঘটনার কিছুক্ষণ আগে মাদরাসার টয়লেটে গিয়েছিলেন। ফিরে আসার পথে সন্ত্রাসীদের সামনে পড়ে যায়।
এদিকে বালুখালীর সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরান হোসেন বলেন, ঘটনার পর আমরা দশ জনকে আটক করে

উখিয়া থানায় হস্তান্তর করেছি। এর মধ্যে পাঁচজন ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসায় জানা গেছে।
উখিয়া থানা পুলিশের ওসি আহমেদ সঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তদন্ত চলছে, তাই এখন কিছু বলা যাচ্ছে না। আসামিদের রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হবে।

এডিবি/জেইউ।

 

Comments

comments

Posted ১২:৩৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(368 বার পঠিত)

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com