মঙ্গলবার ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

সেই ‘কুলাঙ্গার’ রোহিঙ্গা মালয়েশিয়া থেকেই ভিডিও ছেড়েছে

দেশবিদেশ রিপোর্ট   |   রবিবার, ১০ মার্চ ২০১৯

সেই ‘কুলাঙ্গার’ রোহিঙ্গা মালয়েশিয়া থেকেই ভিডিও ছেড়েছে

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সহ দেশের শীর্ষ স্থানীয় কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভিডিও বার্তা প্রকাশের মাধ্যমে হুমকিদাতা সেই ‘কুলাঙ্গার’ রোহিঙ্গা যুবকের পরিচয় উদঘাটন করেছে পুলিশ। কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) একটি দল গতকাল শনিবার কক্সবাজারের উখিয়ার তিনটি রোহিঙ্গা শিবিরে হানা দিয়ে হুমকিদাতার পরিবারের সদস্যদের সনাক্ত করেন। রোহিঙ্গা পরিবারের সদস্যরাই গোয়েন্দা পুলিশকে জানিয়েছে, যুবক আবদুল খালেক মালয়েশিয়ায় বসবাস করে আসছে বহু বছর ধরে। মালয়েশিয়া থেকেই হুমকিদাতা আবদুল খালেক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি ছাড়ে বলে স্বজনরা নিশ্চিত করেছে পুলিশকে।
ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে গেলে এনিয়ে সর্বত্র তোলপাড় শুরু হয়। হুমকিদাতা রোহিঙ্গা দামি জামা কাপড় এবং অলঙ্কারে শোভিত অবস্থায় একটি গাড়িতে বসে প্রধানমন্ত্রীকে আরাকানি রোহিঙ্গা ভাষায় ‘পরিণতি খারাপ হবে’ বলে হুমকি দিয়েছে। একই সাথে বাংলাদেশের যত উঁচু দালানকোঠা স্থাপনা আছে, সবই ধ্বংস করে মাটির সাথে মিশিয়ে দেবে বলেও জানায় এই যুবক। গতকালের দৈনিক আজকের দেশবিদেশ পত্রিকায় ‘হুমকিদাতা কুলাঙ্গার রোহিঙ্গার পরিচয় মিলেছে’ শীর্ষক প্রকাশিত সংবাদের সূত্র ধরে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক মানস বড়–য়া একদল পুলিশ নিয়ে ছুটে যান রোহিঙ্গা শিবিরে।
পরিদর্শক জানান-‘ মানবতার মূর্ত প্রতীক বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ দেশের শীর্ষ স্থানীয় কর্মকর্তাদেরকে হুমকি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এক ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে এক ‘কুলাঙ্গার’ রোহিঙ্গা যুবক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। এনিয়ে সর্বত্র চলছে তোলপাড়।’ তিনি জানান, হুমকিদাতা রোহিঙ্গা দামি জামা কাপড় এবং অলঙ্কারে শোভিত অবস্থায় একটি গাড়িতে বসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আরাকানি রোহিঙ্গা ভাষায় ‘পরিণতি খারাপ হবে’ বলে হুমকি দিয়েছে। একই সাথে বাংলাদেশের যত উঁচু দালানকোঠা স্থাপনা আছে, সবই ধ্বংস করে মাটির সাথে মিশিয়ে দেবে বলেও জানায় এই যুবক।
ডিবি পুলিশের পরিদর্শক আরো জানান, তিনি তিনটি শিবিরে গিয়ে খালেকের ৬ জন ভাই ও এক মায়ের সন্ধান পেয়েছেন। ২০১৭ সালে তারা মন্ডুর বলিবাজার এলাকা থেকে পালিয়ে শিবিরে আশ্রয় নেন। খালেকের বাবা প্রয়াত আবদুস সালাম একে একে ৪ টি বিয়ে করেছেন। ৬ ভাই তাদের এক মাকে নিয়ে বর্তমানে তিনটি শিবিরে রয়েছেন। তিনি আরো জানান, প্রয়াত রোহিঙ্গা আবদুস সালামের ৪ জন স্ত্রীর রয়েছে মোট ২৭ জন ছেলে-মেয়ে। তাদের মধ্যে এক কন্যার বিয়ে হয়েছে সৌদি আরবে। খালেকের ভাইদের বালুখালী শিবিরে রয়েছে কম্পিউটার ও স্বর্ণের দোকান।
ডিবি পুলিশ পরিদর্শক খালেকের এক ভাই জাহাঙ্গীরকে দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। এমনকি তাদের মায়ের সাথেও কথা বলেছেন অনেকক্ষন। তারা পরিদর্শককে জানিয়েছেন-হয়তোবা খালেক মদ্যপান করেই এমনসব হুমকি দিয়েও থাকতে পারেন। তারা এমনও সন্দেহ করছেন যে-দীর্ঘদিন ধরে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন থাকা খালেক কোন খারাপ গোষ্টির সাহচর্য পেয়েও এমনসব কাজ করে থাকতে পারেন।
কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন এ বিষয়ে জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়া ভিডিওটির ব্যাপারে পুলিশ রোহিঙ্গা শিবিরে ব্যাপক তদন্ত চালিয়ে সনাক্ত করতে সমর্থ হয়েছে হুমকিদাতাকে। হুমকিদাতা রোহিঙ্গা যুবকের নাম আবদুল খালেক (৩২)। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের মন্ডু থানার বলিবাজার ধুমরাই এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত আবদুস সালামের পুত্র খালেক প্রায় এক দশক সময় ধরে রয়েছে মালয়েশিয়ায়।
পুলিশ হুমকিদাতা রোহিঙ্গা যুবক খালেকের বিষয়ে নানা তথ্যের সন্ধান করছে। মালয়েশিয়ায় তার অবস্থান নিয়ে জানার কাজও শুরু করেছে পুলিশ। হুমকিদাতা রোহিঙ্গা যুবক কেন এবং কি কারনে দেশের প্রধানমšত্রীকে হুমকি দিয়েছে তাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এই যুবক কোন জঙ্গি সন্ত্রাসী গোষ্ঠির সাথে জড়িত রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে-জানান পুলিশ সুপার।
প্রসঙ্গত, মিয়ানমার বাহিনীর নির্যাতনের মূখে প্রাণ বাঁচাতে এদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে আশ্রয় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রতিবেশী দেশ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের বাসিন্দা রোহিঙ্গাদের যখন ২০১৭ সালের ২৫ আগষ্টের পর ঢল নামে তখন এদেশের সরকার, সরকার প্রধান শেখ হাসিনা এবং এদেশবাসী মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন।
এমনকি যখন কোন দেশ এবং এনজিওরা ছিলনা তখন এদেশের মানবিক মানুষগুলোই নিজেরা না খেয়ে খাবার নিয়ে মুখে তুলে দিয়েছিলেন নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের। আর এমন রোহিঙ্গারাই কিনা বাংলাদেশের সরকার প্রধান ও সরকারকে উদ্দেশ্য করে হুমকি দেওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশীরা ব্যাপক ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছে। ####

Comments

comments

Posted ১২:৫৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১০ মার্চ ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com