রবিবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
শিরোনাম

মুশফিকের বিদায়ে তৃতীয় উইকেটের পতন

দেশবিদেশ অনলাইন ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ০২ জুলাই ২০১৯

মুশফিকের বিদায়ে তৃতীয় উইকেটের পতন

বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালের পথে এগিয়ে যেতে ভারতের ছুঁড়ে দেওয়া ৩১৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। এ রিপোর্ট লেখা অবধি, ২৩ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১২১ রান। উইকেটে আছেন সাকিব আল হাসান (৩৯)।
৩১৫ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ের শুরুটা করেন তামিম ইকবাল এবং সৌম্য সরকার। দলীয় ৩৯ রানের মাথায় দশম ওভারে বিদায় নেন তামিম। চতুর্থ বাংলাদেশি হিসেবে নিজের ২০০তম ম্যাচ খেলতে নামেন দেশসেরা এই ওপেনার। মাইলফলকের ম্যাচে তামিম করেন ২২ রান। মোহাম্মদ শামির বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৩১ বলে তিনটি বাউন্ডারির দেখা পান তামিম। দলীয় ৭৪ রানের মাথায় বিদায় নেন সৌম্য সরকার। ৩৮ বলে চারটি বাউন্ডারিতে ৩৩ রান করে হার্দিক পান্ডিয়ার বলে কোহলির হাতে ধরা পড়েন সেট ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার।
মঙ্গলবার (২ জুলাই) বার্মিংহামের এজবাস্টন স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। ম্যাচটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায়। গাজী টেলিভিশন ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করছে। টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় দলপতি বিরাট কোহলি। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে টিম ইন্ডিয়া তুলেছে ৩১৪ রান। সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ওপেনার রোহিত শর্মা। ফিফটির দেখা পান আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল। কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান নিয়েছেন পাঁচটি উইকেট।
ভারতের হয়ে ওপেনিংয়ে নামেন রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল। উদ্বোধনী জুটিতে আসে ১৮০ রান। বোলিংয়ে এসে নিজের তৃতীয় ও ইনিংসের ৩০তম ওভারে রোহিত শর্মাকে আউট করেন সৌম্য সরকার। সৌম্যের অফকাটারে এক্সট্রা কাভার অঞ্চলে ক্যাচ নেন লিটন দাস। আউট হওয়ার আগে রোহিত শর্মা দ্বাদশ বিশ্বকাপে নিজের চতুর্থ সেঞ্চুরি পূর্ণ করে সংগ্রহ করেন ১০৪ রান। ৯২ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও পাঁচটি ছক্কা। ম্যাচের ৫ম ওভারে মোস্তাফিজুর রহমানের বলে রোহিত শর্মার (৯) ক্যাচ ফেলে দেন তামিম ইকবাল। এর পরে এই ওপেনার আর পিছু ফিরে তাকাননি। বাংলাদেশের বোলারদের সাবলীলভাবে খেলে নিজের ২৬তম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন রোহিত শর্মা।
দলীয় ১৯৫ রানের মাথায় বিদায় নেন আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল। রুবেল হোসেনের বলে উইকেটের পেছনে মুশফিকের গ্লাভসবন্দি হন তিনি। তার আগে ৯২ বলে ছয়টি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৭৭ রান। দলীয় ২৩৭ রানের মাথায় বিদায় নেন দলপতি বিরাট কোহলি। ইনিংসের ৩৯তম ওভারে মোস্তাফিজের বলে মিড উইকেটে রুবেলের হাতে ধরা পড়েন আগের পাঁচ ইনিংসে টানা ফিফটি প্লাস ইনিংস খেলা কোহলি। সাজঘরে ফেরার আগে ২৭ বলে তিনটি বাউন্ডারিতে কোহলি করেন ২৬ রান। এক বল পরেই বিদায় নেন হার্দিক পান্ডিয়া। একই ওভারে জোড়া আঘাত হানেন ফিজ।
এরপর ইনিংস টেনে নিতে থাকেন রিশব পান্ত এবং মহেন্দ্র সিং ধোনি। দলীয় ৪৫তম ওভারের প্রথম বলে সাকিব ফিরিয়ে দেন রিশবকে। ৪১ বলে ছয়টি চার আর একটি ছক্কায় ৪৮ রান করে মোসাদ্দেকের তালুবন্দি হন রিশব পান্ত। সাকিব নিজের শেষ ওভারে গিয়ে প্রথম উইকেট পান। ইনিংসের ৪৮তম ওভারে মোস্তাফিজ ফিরিয়ে দেন দীনেশ কার্তিককে। ব্যক্তিগত ৮ রানে ফিজের অফকাটারে কাটা পড়েন কার্তিক, ক্যাচ তুলে দেন মোসাদ্দেকের হাতে। দলীয় ২৯৮ রানের মাথায় ষষ্ঠ উইকেট হারায় ভারত। শেষ ওভারে মোস্তাফিজ তুলে নেন মহেন্দ্র সিং ধোনিকে। সাকিবের হাতে ধরা পড়ার আগে ধোনি ৩৩ বলে চারটি বাউন্ডারিতে করেন ৩৫ রান। শেষ ওভারে রানআউট হন ভুবনেশ্বর কুমার। শেষ বলে মোস্তাফিজ বোল্ড করেন বুমরাহকে।
সাকিব ১০ ওভারে ৪১ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট। মোসাদ্দেক হোসেন ৪ ওভারে ৩২ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। সৌম্য সরকার ৬ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে তুলে নেন একটি উইকেট। রুবেল হোসেন ৮ ওভারে ৪৮ রানে নেন একটি উইকেট। মাশরাফি ৫ ওভারে ৩৬ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি। সাইফউদ্দিন ৭ ওভারে ৫৯ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। মোস্তাফিজ ১০ ওভারে ৫৯ রানে তুলে নেন পাঁচটি উইকেট।
এই ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জায়গায় একাদশে এসেছেন সাব্বির রহমান। আর মেহেদি হাসান মিরাজের জায়গায় একাদশে এসেছেন পেসার রুবেল হোসেন। রুবেল এই বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত একটি ম্যাচ খেলেছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচে ৯ ওভারে ৮৩ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। এদিকে, ভারতের একাদশে এসেছেন পেসার ভুবনেশ্বর কুমার এবং দীনেশ কার্তিক। বাদ পড়েছেন স্পিনার কুলদীপ যাদব এবং কেদার যাদব।
বাংলাদেশ একাদশ:মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, রুবেল হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং সাব্বির রহমান।
ভারত একাদশ: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা (সহ-অধিনায়ক), রিশব পান্ত, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), দীনেশ কার্তিক, লোকেশ রাহুল, হার্দিক পান্ডিয়া, জাসপ্রিত বুমরাহ, ভুবনেশ্বর কুমার, মোহাম্মদ শামি এবং যুভেন্দ্র চাহাল।

Comments

comments

Posted ৮:৫৯ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০২ জুলাই ২০১৯

ajkerdeshbidesh.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক
মোঃ আয়ুবুল ইসলাম
প্রধান কার্যালয়
প্রকাশক : তাহা ইয়াহিয়া কর্তৃক প্রকাশিত এবং দেশবিদেশ অফসেট প্রিন্টার্স, শহীদ সরণী (শহীদ মিনারের বিপরীতে) কক্সবাজার থেকে মুদ্রিত
ফোন ও ফ্যাক্স
০৩৪১-৬৪১৮৮
বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন
০১৮১২-৫৮৬২৩৭
Email
ajkerdeshbidesh@yahoo.com