• শিরোনাম

    কালের কণ্ঠের সাংবাদিক ছোটনকে হুমকি, থানায় জিডি

    হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে কক্সবাজার-১ আসনের এমপি মৌলভী ইলিয়াছের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য

    দেশবিদেশ রিপোর্ট | ০৩ নভেম্বর ২০১৮ | ৯:৩২ অপরাহ্ণ

    হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে কক্সবাজার-১ আসনের এমপি মৌলভী ইলিয়াছের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য

    সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়াকে কেন্দ্র করে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের এমপি মৌলভী মোহাম্মদ ইলিয়াছ মুঠোফোনে হুমকি ও ধর্মীয় পরিচয় তুলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন কালের কণ্ঠের চকরিয়া প্রতিনিধি ও স্থানীয় প্রেস ক্লাবের কার্যকরী সভাপতি ছোটন কান্তি নাথকে।

    সাংবাদিক ছোটনের ধর্মীয় পরিচয় তুলে গালিগালাজের ৫৫ সেকেণ্ডের একটি অডিও রেকর্ড আজ শনিবার সকাল থেকে ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। তোলপাড় চলছে পুরো কক্সবাজার জেলায়। এ ঘটনায় সাংবাদিক ছোটন চকরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি রুজু করেছেন। ভাইরাল হওয়া অডিওটি শুনে সাংবাদিক ছোটনের এই অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

    এদিকে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন অসাম্প্রদায়িক জোটের একজন আইন প্রণেতার (এমপি) মুখে এমন আচরণ শুনে ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে সকল সম্প্রদায়ের মানুষ। সাংসদ ইলিয়াছকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন এমপি ইলিয়াছকে তার দল জাতীয় পার্টি থেকে বহিষ্কারসহ কঠোর শাস্তির দাবি উঠেছে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে।

    উল্লেখ্য, এমপি মৌলভী ইলিয়াছ জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও কক্সবাজার জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন।

    ছোটন কান্তি নাথ বলেন, ‘গত ২৮ অক্টোবর রাত ৮ টার দিকে সাংসদ ইলিয়াছ তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে বিকৃত, কুরুচিপূর্ণ ও অকথ্য ভাষায় আমার ধর্মীয় পরিচয় তুলে গালিগালাজ করেন। এ সময় তিনি আমাকে তথ্য-প্রযুক্তি আইনের মামলায় জড়িয়ে জেল খাটানোরও হুমকি দেন। কথোপকথনের শেষে গিয়ে এমপি ইলিয়াছ পুরো হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়েও কুরুচিপূর্ণ ও সাম্প্রদায়িক মনোনভাবাপন্ন ভাষায় গালি দেন। এই অবস্থায় আমার আশঙ্কা সাংসদ ইলিয়াছ তার লালিত সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে আমাকে যে কোনো সময় অপহরণ এবং খুন করে লাশ গুম করতে পারে। জিডিতেও আমি এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছি। কারণ এমপির পাশাপাশি তার লালিত আরো কয়েকজন ব্যক্তি মুঠোফোনে এবং ফেসবুকে একই ধরণের হুমকি দিয়েছেন।’

    ছোটন বলেন, ‘গত ২৭ অক্টোবর নিজের ফেসবুকে ওয়ালে আমি একটি স্ট্যাটাস দিই। স্ট্যাটাসটি ছিল, ‘জাফর ঠেকাতে মরিয়া বিরোধীরা, গভীর রাতে গোপন বৈঠক বিকাশের বাসায়!’ ওই স্ট্যাটাসটি সাংসদ ইলিয়াছ তার বিরুদ্ধে প্রচার করা হয়েছে মনে করে ক্ষিপ্ত হয়ে গালিগালাজ করেন এবং হুমকি দেন।’

    একটি সম্প্রদায়কে ধরে গালিগালাজে বেশ ক্ষুদ্ধ হিন্দু-বৌদ্ধ- খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চকরিয়ার সভাপতি রতন বরণ দাশ ও সাধারণ সম্পাদক মুকুল কান্তি দাশ। তারা বলেন, ‘প্রথমে বলি, তিনি আমাদের একজন এমপি। তাও আবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় ধর্মবিষয়ক সম্পাদক। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের একজন এমপি হলেও আমরা মনে করি ইলিয়াছ লালন করেন সাম্প্রদায়িক চেতনাকে। না হলে তিনি এমপি পদে থেকে কিভাবে একজন সাংবাদিককে হুমকি দিতে গিয়ে পুরো হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও বিকৃত ভাষায় গালিগালাজ করলেন। আমরা বিষয়টি নিয়ে অচিরেই কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামবো।’

    চকরিয়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি তপন কান্তি দাশ ও সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ বলেন, ‘আমরা এমপি ইলিয়াছের অতীতের সব রেকর্ড জানি। এর পরও তিনি ঘটনাচক্রে এমপি হয়ে গেছেন ভালো। কিন্তু যখন ব্যক্তিগতভাবে কাউকে হুমকি দিতে গিয়ে পুরো হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় পরিচয় তুলে মা-মাসি নিয়ে গালিগালাজ করবেন তখন তো আর বসে থাকতে পারি না।’

    চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু বলেন, ‘আমাদের বড়ই দুর্ভাগ্য। এমন একজন সাম্প্রদায়িক ব্যক্তি এমপি হয়ে আমাদের উপর চেপে বসে আছেন গত পাঁচ বছর ধরে। যে ব্যক্তি একজন সাধারণ মেম্বার হওয়ার যোগ্যতা রাখেন না সেই ব্যক্তি যখন রাতারাতি বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় এমপি হয়ে যান তখন তো এমন আচরণই করবেন। যার খেসারত দিতে হচ্ছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে। আমরা এ ধরণের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। দলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘটনার প্রতিবাদ জানানো হবে।’

    চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘একজন সাংবাদিক সংবাদ প্রকাশ বা অন্য কিছু করে থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারতেন এমপি ইলিয়াছ। কিন্তু তা না করে ব্যক্তিগতভাবে হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি পুরো হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ কটুক্তি করার অধিকার বাংলাদেশের আইন তাকে দেয়নি। এজন্য আমরা ভীষণভাবে লজ্জিত।’

    তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করবো, চকরিয়া ও পেকুয়ায় অস্তিত্ববিহীন জাতীয় পার্টির এই এমপি প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইবেন তার এহেন কর্মকাণ্ডের দায়ে। তা না হলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এমপির এই আচরণের প্রতিবাদে কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামবে।’

    অপরদিকে ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই অডিও রেকর্ডটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকে অসংখ্য ফেসবুক ব্যবহারকারী স্ব স্ব ওয়ালে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। ইউটিউব লিংক শেয়ার করে তাদের অনেকে লিখেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে এমন মৌলবাদী একজন রাজনীতিক কিভাবে এমপি হয়ে গেছেন। এখন সেই প্রশ্নটিই জনমনে। একজন এমপির এমন সাম্প্রদায়িক আচরণের তীব্র নিন্দা জানাই।’ পাশাপাশি তাকে দল থেকেও বহিষ্কারের দাবি তুলেন তারা। একইসঙ্গে এই অসভ্য ব্যবহারের জন্য এমপি ইলিয়াছের প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া উচিৎ।

    চকরিয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম জাহেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মিজবাউল হক বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক ও উসকানিমূলক কটাক্ষ করে প্রেস ক্লাবের কার্যকরী সভাপতি ছোটন কান্তি নাথকে গালিগালাজ ও হুমকি দেওয়াসহ পুরো হিন্দু সম্প্রদায়কে নিয়ে স্থানীয় ভাষায় কুরুচিপূর্ণ কটূক্তির তীব্র নিন্দা জানাই। এজন্য তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।’

    এ প্রসঙ্গে চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দীন চৌধুরী বলেন, ‘সাংবাদিক ছোটনের পক্ষ থেকে এ ধরণের একটি অভিযোগ দিলে তা সাধারণ ডায়েরি হিসেবে রুজু করা হয়েছে ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক। বিষয়টির তদন্ত চলছে।’

    এ ব্যাপারে কক্সবাজার-১ আসনের এমপি মৌলভী মোহাম্মদ ইলিয়াছ শনিবার দুপুরে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ছোটনকে ফোন করার বিষয়টি সত্য। এ সময় তার সঙ্গে আমার কিছু উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে। কিন্তু এই কথার অডিওটি ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যাওয়াটা দুঃখজনক।’

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দৈনিক আজকের দেশ বিদেশ